চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ২৯ ভাদ্র ১৪২৫। ২ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৩। তোমাদের প্রতিপালক সম্বন্ধে তোমাদের এই ধারণাই তোমাদের ধ্বংস এনেছে। ফলে তোমরা হয়েছো ক্ষতিগ্রস্ত।

২৪। এখন তারা ধৈর্যধারণ করলেও জাহান্নামই হবে তাদের আবাস এবং তারা অনুগ্রহ চাইলেও তারা অনুগ্রহ প্রাপ্ত হবে না।

২৫। আমি তাদের জন্যে নির্ধারণ করে দিয়েছিলাম সহচর যারা তাদের সম্মুখ ও পশ্চাতে যা আছে তা তাদের দৃষ্টিতে শোভন করে দেখিয়েছিল এবং তাদের ব্যাপারেও তাদের পূর্ববর্তী জি¦ন ও মানবদের ন্যায় শাস্তির কথা বাস্তব হয়েছে। তারা তো ছিল ক্ষতিগ্রস্ত।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


সব সমস্যার প্রতিকার হচ্ছে ধৈর্য ও চেষ্টা।

-প্লুটাস।


ন্যায়পরায়ণ বিজ্ঞ নরপতি আল্লাহ’র শ্রেষ্ঠ দান এবং অসৎ মূর্খ নরপতি তার নিকৃষ্ট দান।



 


ফটো গ্যালারি
প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

গত ১১ সেপ্টেম্বর দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের প্রথম পাতায় 'মকিমাবাদ গ্রামে নিরীহ পরিবার হয়রানির শিকার' শিরোনামে যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে আমি নিম্ন স্বাক্ষরকারী উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। প্রকৃতপক্ষে আমি কখনো ইটের ব্যবসা করি না আর কাউকে হুমকি দেবার প্রশ্নই আসে না। স্থানীয়ভাবে আমি হাজীগঞ্জ বাজারের প্রথম শ্রেণীর একজন ব্যবসায়ী আর সেই কারণে সম্মানহানি করার জন্যে একটি পক্ষ আমার বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা শুরু করে। প্রকৃতপক্ষে জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী তার বাবা বশির আহম্মদ চৌধুরীর কাছ থেকে ১৯৯৫ সালে পৌনে ৯ শতাংশ জমি ক্রয় করেন। সেই জমি থেকে জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী স্থানীয় আঃ মান্নান গং, মফিজ মোক্তার ও সেলিম প্রফেসরের কাছে সাড়ে ৯ শতাংশ জমি বিক্রি করেন। এখানে জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী পয়েন্ট ৭৫ শতাংশ জমি বেশি বিক্রি করাসহ বর্তমানে আমাদের সম্পত্তির উপর তিনি নতুন ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করেন। সম্পত্তির সুষ্ঠু সমাধান আর আমার সম্পত্তির উপর ভবন নির্মাণকাজ বন্ধ রাখার জন্যে আমি পৌর মেয়র বরাবর একটি অভিযোগ দেই। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর ও পৌর প্রকৌশলী গত মাসে এসে কাজ বন্ধ করে দেন। সেই থেকে অদ্যাবধি কাজ বন্ধ রয়েছে। তাই আমি উক্ত সংবাদের প্রতিবাদ করছি।

নিবেদক

-হাজী আলী আশরাফ, মকিমাবাদ, হাজীগঞ্জ।

১২/৯/২০১৮খ্রিঃ

জিডি-১২৭৪/১৮

আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৫৬৭২
পুরোন সংখ্যা