চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


২৬। আমি নূহ এবং ইব্রাহিমকে রাসূলরূপে প্রেরণ করিয়াছিলাম এবং আমি তাহাদের বংশধরগণের জন্যে স্থির করিয়াছিলাম নুবূওয়াত ও কিতাব, কিন্তু উহাদের অল্পই সৎপথ অবলম্বন করিয়াছিল এবং অধিকাংশই ছিল সত্যত্যাগী।


 


 


অপ্রয়োজনে প্রকৃতি কিছুই সৃষ্টি করে না। -শংকর।


 


 


কবর এবং গোসলখানা ব্যতীত সমগ্র দুনিয়াই নামাজের স্থান।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরের শামীমের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কার সাথে বাংলাদেশী যুবাদের জয়
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শ্রীলংকাকে হারিয়ে শুভ সূচনা শুরু করলো বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ১৯ দল (যুবারা)। আর এ জয়ের কৃতিত্বে ছিলেন ফরিদগঞ্জস্থ ধানুয়া এলাকার শামিম পাটওয়ারী ও দলের অপর ক্রিকেটার তৌহিদ হোসেন। শামিম পাটওয়ারী ব্যাট হাতে ৯৫ রান করেন। ম্যাচটিতে বোলিংয়ে তার অবদান ছিলো। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে গতকাল সোমবার ৫ উইকেটে জিতেছে বাংলাদেশ। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কারণে প্রথম যুব ওয়ানডে ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে।



খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে বৃষ্টির কারণে ম্যাচ নেমে আসে ৩১ ওভারে। এতে প্রথমে ৭ উইকেটে ২০৯ রান করে সফরকারীরা। ৪২ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ২৫.৪ ওভারেই। দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে গিয়ে আউট হন শামীম। এর আগে ৬১ বলে ৯টি চার ও পাঁচ ছক্কায় খেলেন ৯৫ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংস। দলের জয়কে সঙ্গে নিয়ে মাঠ ছাড়া হৃদয় ৫৬ বলে সাত চার ও তিন ছক্কায় করেন ৮২ রান।



এর আগে বল হাতেও অবদান রাখেন শামীম। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা লঙ্কানদের ৪০ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। পঞ্চম উইকেটে যখন আবার চোখ রাঙাচ্ছিল শ্রীলঙ্কা, তখনও ইনিংসে তাদের সর্বোচ্চ ৬৩ রানের জুটি ভাঙেন শামীম। আউট করেন ৭৫ বলে ৯টি চার ও এক ছক্কায় ৭৮ রান করা ওপেনার নাভোদ পারানাভিথানাকে।



শেষ দিকে গামাগে দিনুশার ৩৪ বলে ৪১ ও চামিন্দু পিউমলের ২০ বলে ৩০ রানের ক্যামিও ইনিংসে লড়াই করার মতো সংগ্রহ গড়ে শ্রীলঙ্কা। রান তাড়ায় শুরুতেই আমশি ডি সিলভার বোলিং তোপে পড়ে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ওভারে বিদায় নেন তানজিদ হাসান। থিতু হয়ে আউট হন পারভেজ হোসেন ও মাহমুদুল হাসান। ৪২ রানের মধ্যে শাহাদাত হোসেনও ফিরে গেলে বিপদে পড়ে যায় স্বাগতিকরা।



পঞ্চম উইকেটে ১৬১ রানের দুর্দান্ত জুটি গড়ে দলকে জয়ের কাছে নিয়ে যান হৃদয় ও শামীম। সাদুনের বলে এলবিডবিস্নউ হয়ে শামীম ফেরার সময় দল ছিল জয় থেকে ৭ রান দূরে।



সিরিজের পরের তিন ম্যাচ হবে ১৪, ১৭ ও ১৯ নভেম্বর, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে।



সংক্ষিপ্ত স্কোর : শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দল : ৩১ ওভারে ২০৯/৭ (পারানাভিথানা ৭৮, সামাজ ১০, রাসান্থা ৩৩, দনাঞ্জয়া ০,থারিন্দু ৫, দিনুশা ৪১, পিয়ুমাল ৩০*, সঞ্জয়া ২, থারাকা ৩*; তানজিম ৬-১-৪৭-১, অভিষেক ৬-০-৪২-১, শরিফুল ৭-০-৪১-২, শামীম ৭-০-৪১-২, রকিবুল ৬-০৩৭-২)



বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল : ২৫.৪ ওভারে ২১০/৫ (তানজিদ ২, পারভেজ ৮, মাহমুদুল ১১, হৃদয় ৮২*, শাহাদাত ৩, শামীম ৯৫, আকবর ১*; মাদুশাঙ্কা ৫-০-৩৮-১, আমশি ৬-০-৩৬-৩, সঞ্জয়া ৬-০-৪৬-০, পিয়ুমাল ২-০-২২-০, থারাকা ৩.৪-০-৪২-১, দনাঞ্জয়া ১-০-১৩-০, থারিুন্দু ২-০-১৩-০)



ফল : বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৫ উইকেটে জয়ী



ম্যান অব দা ম্যাচ : শামীম হোসেন



সিরিজ : ৫ ম্যাচের সিরিজে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ১-০তে এগিয়ে।



 



 



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৮২৪৫৪৫
পুরোন সংখ্যা