চাঁদপুর, রোববার ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ৫ মাঘ ১৪২৬, ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬১-সূরা সাফ্ফ


১৪ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১২। আল্লাহ তোমাদের পাপ ক্ষমা করিয়া দিবেন এবং তোমাদিগকে দাখিল করিবেন জান্নাতে যাহার পাদদেশে নদী প্রবাহিত, এবং স্থায়ী জান্নাতের উত্তম বাসগৃহে। ইহাই মহাসাফল্য।


 


 


 


অবসরকে দর্শনশাস্ত্রের জননী বলা যায়। -টমাস হবর্স।


যে মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ নয়, সে আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ নয়।


 


 


ফটো গ্যালারি
জুতা পায়ে আড্ডা দিয়ে তারা শহীদ মিনারের পবিত্রতা কতোটুকু রক্ষা করছে?
১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ছবিতে দৃশ্যমান শহীদ মিনারটি হলো জেলার নারী শিক্ষার শীর্ষ প্রতিষ্ঠান চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজের। এই কলেজের সীমানা-প্রাচীরের মধ্যে উক্ত শহীদ মিনারটি অবস্থিত। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি দেশের ছাত্র-জনতা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ঢাকার পিচঢালা রাজপথে নেমেছিলো 'রাষ্ট্র ভাষা বাংলা চাই' সস্নোগানে। কিন্তু তৎকালীন শাসকগোষ্ঠী এ মিছিলে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে কালো পিচের রাস্তাকে রক্তে রঞ্জিত করে। এ রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয় মাতৃভাষা বাংলায় কথা বলার অধিকার। তারপর মহান ২১ ফেব্রুয়ারিকে পালন করা হয় শহীদ দিবস হিসেবে। অপরদিকে স্বাধীনতার নেতৃত্বদানকারী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে গঠিত সরকার উক্ত শহীদ দিবসের জাতিসংঘ কর্তৃক স্বীকৃতি আনতে সক্ষম হয়। এ স্বীকৃতির ফলে ২১ ফেব্রুয়ারি সারাবিশ্বে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পরিচিত।



এ দিবসটি খুব কাছাকাছি আসলে অর্থাৎ এ দিবসের সপ্তাহখানেক আগ থেকে শুরু হয় আমাদের দেশে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা, ভক্তি এবং শহীদ মিনারের পবিত্রতার বিষয়ে যত ক্রন্দন। তারপর দৃশ্যপট পাল্টে যায়।



এ ভাষা শহীদদের বিষয়ে এবং শহীদ মিনারের পবিত্রতার বিষয়ে শিক্ষার্থীদের অজানা নয়। জেলার সর্বোচ্চ নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির ছোটখাটো একটি নয়, দুটি মাঠ। প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের হোস্টেল মাঠের এক কর্নারে রয়েছে ভাষা শহীদের স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনার। শহীদ মিনারটির চারদিকে রয়েছে শ্রেণীকক্ষ এবং শিক্ষকদের পদচারণা। ভাষা শহীদদের স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনারে এ প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীরা জুতা পায়ে উঠে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আড্ডা দিয়ে তারা শহীদ মিনারটির পবিত্রতা কতটুকু রক্ষা করছেন-এমন প্রশ্ন এ চিত্র স্বচক্ষে দেখা সচেতন নাগরিকদের। ছবি ও প্রতিবেদন : গোলাম মোস্তফা।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪৮২১৪
পুরোন সংখ্যা