চাঁদপুর । বৃহস্পতিবার ০২ অাগস্ট ২০১৮ । ১৮ শ্রাবণ ১৪২৫ । ১৯ জিলকদ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু’মিন

৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৫। তিনিই সুউচ্চ মর্যাদার অধিকারী, আরশের মালিক, তাঁর বান্দাদের মধ্যে যার প্রতি ইচ্ছা তত্ত্বপূর্ণ বিষয়াদি নাযিল করেন, যাতে সে সাক্ষাতের দিন সম্পর্কে সকলকে সতর্ক করে।

১৬। যেদিন তারা বের হয়ে পড়বে, আল্লাহর কাছে তাদের কিছুই গোপন থাকবে না। আজ রাজস্ব কার? এক প্রবল পরাক্রান্ত আল্লাহর।

১৭। আজ প্রত্যেকেই তার কৃতকর্মের প্রতিদান পাবে। আজ যুলুম নেই। নিশ্চয় আল্লাহ দ্রুত হিসাব গ্রহণকারী।  

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

 


যে দীর্ঘ সময় ঘুমাতে পারে, সেই সবচেয়ে সুখী।

 -এ.ই. হাউসম্যান।     


পরিচ্ছন্নতার উপর ইসলামের ভিত্তি স্থাপিত হইয়াছে।  

                    


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরে মৎস্য মেলায় বিশেষ আকর্ষণ ছিলো তেলাপিয়া ফ্রাই
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
০২ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


সারাদেশের ন্যায় প্রথম বারের মতো চাঁদপুরেও ৩ দিনব্যাপী মৎস্য মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ মেলা গত ২০ জুলাই থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত চাঁদপুর স্টেডিয়াম প্যাভিলিয়ন সংলগ্ন মাঠে অনুষ্ঠিত হয়।



সরজমিনে দেখা যায়, মাছ চাষের নানা বিষয়ে দর্শনার্থীরা তথ্য সংগ্রহ করছেন। প্রতিটি স্টল সাজানো হয়েছে মাছের নানা বিষয়ের ওপরে। প্রতিটি স্টলের পক্ষ থেকে দেয়া হচ্ছে তথ্যমূলক লিফলেট। মৎস্য অধিদফতরের পক্ষ থেকে নেয়া বিভিন্ন প্রকল্পের সুফলসহ নানা আঙ্গিকে সাজানো হয় স্টল। স্টলগুলোর পক্ষ থেকে তুলে ধরা হয় তাদের সেবার নানা দিক। মেলার মূল ফটক সংলগ্ন ছিলো তথ্য বুথ। বিপরীত পাশে ছিলো দর্শনার্থীদের বসার জায়গা।



মেলায় ১২টি স্টল দেয়া হয়। প্রতিটি উপজেলা মৎস্য অফিস ভিন্ন ভিন্ন আইটেমসহ মাছের নানা দিক নিয়ে স্টল সাজায়। যা মেলায় আগত দর্শনার্থীদের নজর কাড়তো এবং মৎস্য বিষয়ে অনেক তথ্য জানার ছিলো। এছাড়া জেলা মৎস্য অফিস তেলাপিয়া মাছ মানুষের মাঝে অধিক জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে তেলাপিয়া ফ্রাই, কফি ও সফ্ট ড্রিংকসের স্টল দিয়েছে। প্রতিদিনই মেলায় তেলাপিয়া ফ্রাই খাওয়ার জন্য দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।



মূলত মাছ চাষের বিজ্ঞানসম্মত ও আধুনিক কলাকৌশল, নতুন নতুন উদ্ভাবিত প্রযুক্তি, বাজারজাতকরণসহ মৎস্য খাত সংশ্লিষ্ট সব ধরনের সেবা মিলেছে এ মৎস্য মেলায়। এ মৎস্য মেলায় তাজা মাছও কেনা গেছে। মৎস্য খাতের সব তথ্য এমন এক ছাদের নিচে পেয়ে দর্শনার্থীরা খুব খুশি হন।



মেলায় চাঁদপুর সরকারি কলেজ থেকে আসা রিয়াজ মাহমুদ কৃষিকণ্ঠকে জানান, খুব ভালো লাগছে এক ছাদের নিচে মৎস্য খাতের সব কিছু মিলেছে। এ রকম সাধারণত সব সময় পাওয়া যায় না। খুবই ভালো উদ্যোগ। মাছ চাষের পাশাপাশি আরও অন্যান্য দিক যেমন পুকুর পাড়ে সবজি চাষসহ নানা দিক ছিলো মেলায়। এটি খুবই শিক্ষণীয় বিষয়। নতুন নতুন প্রযুক্তিগুলো নিয়ে ধারণা পাওয়া গেলো। সাবরিনা ইশরাত জানান, আমি কখনো খাঁচায় মাছ চাষ দেখি না। মেলায় এসে এই প্রথম দেখলাম। তবে মেলা সপ্তাহব্যাপী হলে ভালো হতো বলে সে জানায়।



মেলা শুভ উদ্বোধন করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা মৎস্য অফিসার মোঃ আসাদুল বাকী, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা প্রমুখ।



এ ব্যাপারে কথা হয় চাঁদপুর সদর উপজেলা সহকারী মৎস্য অফিসার ফিরোজ আহমেদ মৃধার সাথে। তিনি জানান, প্রতিদিনই মেলা পরিদর্শন করতে অনেক দর্শনার্থী এসেছেন। তাদের জানার কিছু থাকলে তা তারা জেনেছেন। মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্য উৎপাদনকারী ১২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় তাদের স্টল স্থাপন করেছেন এবং প্রতিটি স্টলের পক্ষ থেকে দর্শনার্থীকে দেয়া হচ্ছে তথ্যমূলক লিফলেট। মেলায় বিশেষ চমক ছিলো আমাদের আসাদুল বাকী স্যারের নির্দেশনায় তেলাপিয়া মাছ মানুষের মাঝে অধিক জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে তেলাপিয়া ফ্রাই, কফি ও সফ্ট ড্রিংকের স্টল।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৪৬৩২৩
পুরোন সংখ্যা