চাঁদপুর । বৃহস্পতিবার ০২ অাগস্ট ২০১৮ । ১৮ শ্রাবণ ১৪২৫ । ১৯ জিলকদ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • ফরিদগঞ্জের চান্দ্রার খাড়খাদিয়ায় ট্রাক চাপায় সাইফুল ইসলাম (১২) নামের ৭ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী ও সদর উপজেলার দাসাদি এলাকায় পিকআপ ভ্যান চাপায় কৃষক ফেরদৌস খান নিহত,বিল্লাল নামে অপর এক কৃষক আহত হয়েছে।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু’মিন

৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৫। তিনিই সুউচ্চ মর্যাদার অধিকারী, আরশের মালিক, তাঁর বান্দাদের মধ্যে যার প্রতি ইচ্ছা তত্ত্বপূর্ণ বিষয়াদি নাযিল করেন, যাতে সে সাক্ষাতের দিন সম্পর্কে সকলকে সতর্ক করে।

১৬। যেদিন তারা বের হয়ে পড়বে, আল্লাহর কাছে তাদের কিছুই গোপন থাকবে না। আজ রাজস্ব কার? এক প্রবল পরাক্রান্ত আল্লাহর।

১৭। আজ প্রত্যেকেই তার কৃতকর্মের প্রতিদান পাবে। আজ যুলুম নেই। নিশ্চয় আল্লাহ দ্রুত হিসাব গ্রহণকারী।  

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

 


যে দীর্ঘ সময় ঘুমাতে পারে, সেই সবচেয়ে সুখী।

 -এ.ই. হাউসম্যান।     


পরিচ্ছন্নতার উপর ইসলামের ভিত্তি স্থাপিত হইয়াছে।  

                    


ফটো গ্যালারি
বৃক্ষমেলায় বৃক্ষপ্রেমীদের উপচেপড়া ভীড়
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
০২ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বৃক্ষপ্রেমীদের জন্য নানা সুখবর নিয়ে ৩০ জুলাই সোমবার চাঁদপুর হাসান আলী হাই স্কুল মাঠে শুরু হয়েছে বৃক্ষমেলা ২০১৮। হরেক রকমের প্রজাতির গাছের সমাহার রয়েছে এই মেলায়।



১ আগস্ট বুধবার তৃতীয় দিনের মেলাতে বৃক্ষপ্রেমীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। মেলার উদ্বোধনের দিন থেকেই আনাগোনা শুরু হয়েছে বৃক্ষপ্রেমীদের। সপ্তাহব্যাপী মেলাটি চলবে আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত।



কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, মেলায় সর্বমোট স্টলের সংখ্যা ১১টি। এর মধ্যে কৃষি অধিদপ্তরের ১টি এবং ব্যক্তি মালিকানাধীন এবং বেসরকারি সংস্থার ১০টি স্টল রয়েছে। স্টলগুলোতে টবে বা আকর্ষণীয় করে সাজানো নানা গাছের চারা ছাড়াও মাঠজুড়ে রয়েছে বাহারি ফলদ-বনজ চারা। রয়েছে দেশি-বিদেশি নানা অপরিচিত গাছের চারাও।



মেলায় আগতদের অনেককেই উন্নত জাতের চারা কিনতে দেখা গেছে। আবার অনেকে আসছেন তার বাসার বারান্দা বা ছাদটিকে সবুজায়নের জন্য গাছ নিতে। বিষ্ণুদী থেকে মেলায় এসেছেন শারমিন। বারান্দাকে সবুজ করতে গাছ কিনবেন তিনি। কিনি কৃষিকণ্ঠকে বলেন, আমি একজন গৃহিণী। আমি আমার পরিবারকে সবসময় সুস্থ দেখতে চাই। এজন্যে আমার বারান্দাটা সবুজ করে রাখতে চাই। সেজন্য মেলা থেকে কয়েকটি গাছ কিনতে এসেছি।



মেলায় বিভিন্ন স্টল ঘুরে ঝুড়িভর্তি বিভিন্ন জাতের চারা কিনেছেন চাঁদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আফছার। কৃষিকণ্ঠকে তিনি বলেন, বৃক্ষমেলা শুরু হয়েছে জেনেই আমার বাবা সকালে আমাকে একটা লিস্ট ধরিয়ে দিয়েছেন গাছ কেনার জন্যে। এগুলো আমাদের নতুন বাড়িতে লাগানো হবে। এই মেলায় যে গাছ পাওয়া যাবে তা অন্য নার্সারিতে সচরাচর পাওয়া যায় না। কেননা এই মেলায় অংশগ্রহণ করে সারাদেশ থেকে আগত গাছ ব্যবসায়ী ও চাষী। তবে বাবা যে দামের লিস্ট দিয়েছিলেন তার সঙ্গে মেলায় দামের কোনো মিল নেই। এখানে দাম অনেকটা বেশি।



ওয়াপদা গেইট থেকে আসা চৌধুরী নার্সারীর স্বত্বাধিকারী সাহাদাত হোসেন জানান, ময়মনসিংহ থেকে গাছ নিয়ে আসতে রাস্তায় খরচ অনেক বেশি। তাই দাম বাড়ছে। এখানে থাকতে ও খেতে খরচ বেশি হচ্ছে। এসব কারণেই দামটা একটু বেশি। দাম বেশি হলেও ভালো মানের গাছ পাওয়া যাচ্ছে এমন স্বীকারোক্তি পাওয়া গেছে প্রায় প্রত্যেক ক্রেতার কাছ থেকে।



মেলার বিষয়ে কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারী কৃষিবিদ আবদুল মান্নান জানান, চাঁদপুরে জেলা প্রশাসন, কৃষি সমপ্রসারণ অধিদপ্তর ও সামাজিক বন বিভাগের যৌথ আয়োজনে এ বৃক্ষমেলা। প্রথমদিনে মেলায় প্রায় ১ লাখ টাকার বেশি গাছ বিক্রি হয়েছে। আজও হচ্ছে। ক্রেতারা আসছেন। সামনের দিনগুলোতে তা আরো বাড়বে বলেই আশা করছি।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৩৩৫৮৭
পুরোন সংখ্যা