চাঁদপুর। বুধবার ৩১ অক্টোবর ২০১৮। ১৬ কার্তিক ১৪২৫। ২০ সফর ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৩-সূরা যূখরুফ

৮৯ আয়াত, ৭ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩৩। (সত্য অস্বীকারে) মানুষ যদি এক উম্মতে পরিণত হয়ে পড়বে, এই আশঙ্কা না থাকলে দয়াময় আল্লাহকে যারা অস্বীকার করে, তাদেরকে আমি দিতাম তাদের গৃহের জন্যে রৌপ্য নির্মিত ছাদ ও সিঁড়ি, যাতে তারা আরোহণ করে।

৩৪। এবং তাদের গৃহের জন্যে দিতাম দরজা, (বিশ্রামের জন্যে) পালঙ্ক, যাতে তারা হেলান দিয়ে বসতো।   

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


যে ব্যক্তি প্রথম সালাম দেয়, সে অহঙ্কারমুক্ত।                   

 -আল হাদিস।


দাতার হাত ভিক্ষুকের হাত অপেক্ষা উত্তম। যে ব্যক্তি স্বাবলম্বী ও তৃপ্ত হতে চায়, আল্লাহ তাকে স্বাবলম্বন ও তৃপ্তি দান করেন।



 


ফটো গ্যালারি
পোষ্য প্রাণী হাসপাতালের যাত্রা শুভ হোক
কৃষিকণ্ঠ প্রতিবেদক
৩১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

পোষ্য প্রাণীর প্রতি মানুষের ভালোবাসা অতি প্রাচীন। খ্রিস্টের জন্মের প্রায় আড়াই শত বছর পূর্বে সম্রাট অশোক পশুদের জন্যে চিকিৎসালয়ের ব্যবস্থা করেছিলেন। অনেকের নিকট পোষ্য কেবল খেলার সঙ্গী নয়। পোষ্য যেন জীবনকে ভালোবাসতে শেখায়, দায়িত্ব নিতে শেখায়, ক্ষমা করতে শেখায়, আনুগত্য শেখায়। কেউ পোষ্যের মাধ্যমে নিঃসঙ্গতা কাটাতে চান, কেউ সন্তানের সঙ্গী হিসেবে পোষ্য প্রাণী লালন-পালন করেন, কেউ আবার পোষ্য প্রাণী ছাড়া থাকতেই পারেন না। পোষ্যের প্রতিপালক বাড়িতে ফেরার সঙ্গে সঙ্গে পোষ্যটি সাধারণত যেভাবে ছুটে এসে অভ্যর্থনা জানায়, ভালোবাসার প্রকাশ ঘটায় তা কোনো কিছু দিয়ে নিরূপণ করা সম্ভব নয়। বিশ্বস্ততার জন্যেও অনেকে আস্থা রাখেন পোষা প্রাণীদের ওপর। সুতরাং এহেন পোষ্য প্রাণী অসুস্থ হয়ে পড়লে পোষ্যের মালিকের মনটা অস্থির হয়ে উঠে বটে। অথচ পোষ্য অসুস্থ হলে বাংলাদেশে সহজে এর চিকিৎসা মেলে না।

সমপ্রতি দেশে প্রথমবারের মতো নির্মিত হতে যাচ্ছে পেট হাসপাতাল। চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে ঢাকার পূর্বাচলে ২২ কাঠা জমির ওপর স্থাপিত 'টিচিং অ্যান্ড ট্রেনিং পেট হস্পিটাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার' নামে এই প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। ভেটেরিনারি শিক্ষার্থীদের হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ দিয়ে আন্তর্জাতিক মানের দক্ষ গ্র্যাজুয়েট তৈরির মাধ্যমে বিদেশে দক্ষ জনশক্তি রফতানিতে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের সুযোগ সৃষ্টি করবে ব্যতিক্রমী এই প্রতিষ্ঠান। সুতরাং এখন অসুখে পড়লে এইখানে চিকিৎসা পাবে কুকুর, বিড়াল, খরগোশসহ বিভিন্ন প্রজাতির পাখি। অবস্থা সঙ্কটাপন্ন হলে আইসিইউতে ভর্তির ব্যবস্থাও রয়েছে। এ ছাড়া কোনো প্রাণীর হাড় ভাঙ্গা নির্ণয়ে থাকছে এঙ্-রে, পেটের সমস্যা শনাক্তে আল্ট্রাসনোগ্রাম। বর্তমান অবকাঠামোর পাশাপাশি এইখানে একটি বহুতল ভবন নির্মাণ করা হবে এবং ওই ভবনে পোষা প্রাণীর চিকিৎসাসেবা প্রদানের সব ধরনের অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা থাকবে। এর মধ্যে রয়েছে মেডিসিন ইউনিট, সার্জারি ইউনিট, গাইনি অ্যান্ড অবস্ট্রেটিঙ্ ইউনিট, অর্থোপেডিঙ্ ইউনিট, রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিং ইউনিট, ভ্যাকসিনেশন ইউনিট ইত্যাদি।

বাংলাদেশের পোষ্য-পালকদের নিকট এটি নিঃসন্দেহে অত্যন্ত আনন্দের। একাধিক পোষ্য যারা রাখেন তারা জানেন প্রত্যেকটি প্রাণী আলাদা ব্যক্তিত্বের। তাদের পছন্দ আলাদা, চরিত্র আলাদা। কেউ ভীতু, কেউ অসম সাহসী, কেউ ভীষণ আদুরে। পোষ্যদের সঙ্গ অনেকের জীবনের প্রধান বিনোদন। কেবল চিকিৎসা নয়, পোষ্যের বিউটিফিকেশনের ব্যাপারে অনেকে ভীষণ সচেতন। ঢাকায় বিদেশিদের পোষা প্রাণীগুলো রাখবার জন্য কোনো কেয়ার সেন্টার নেই। আবার দেশের ছয়টি ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাতেকলমে শিক্ষা দেয়ার জন্যে নেই কোনো গবেষণা ইনস্টিটিউট। পালকের নিকট তার পোষ্যটি পরিবারের আর দশজন সদস্যের মতোই। সুতরাং পোষ্যের অসুখ করলে বিচলিত হয়ে পড়েন তার প্রতিপালক। এসব বিবেচনা করে বলা যায় যে, টিচিং অ্যান্ড ট্রেনিং পেট হসপিটাল ও রিসার্চ সেন্টার (পেট হসপিটাল) নির্মাণের উদ্যোগটি দেশের পোষ্যপ্রেমীদের জন্য আনন্দের ঘটনা। এই উদ্যোগের জন্যে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৩৮৮২৮
পুরোন সংখ্যা