চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১৪ জুন ২০১৮। ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫। ২৮ রমজান ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৮-সূরা ছোয়াদ

৮৮ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৭০। যখন আপনার পালনকর্তা ফেরেশতাগণকে বললেন, আমি মাটির মানুষ সৃষ্টি করব।

৭২। যখন আমি তাকে সুষম করব এবং তাতে আমার রূহ ফুঁকে দেব, তখন তোমরা তার সম্মুখে সেজদায় নত হয়ে যেয়ো।

৭৩। অতঃপর সমস্ত ফেরেশতাই একযোগে সেজদায় নত হল,

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

 


একজন কবির ঐশ্বর্য হচ্ছে তাঁর কবিতা সম্ভার।

 -এডমন্ড স্পেনসার।


নম্রতায় মানুষের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায় আর কড়া মেজাজ হলো আয়াসের বস্তু অর্থাৎ বড় দূষণীয়।


ফটো গ্যালারি
সব বয়সী ক্রেতার পছন্দের বস্ত্রবিপণী মিনারা ক্লথ
বাজার কড়চা প্রতিবেদক
১৪ জুন, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অত্যাধুনিক রুচিশীল নিত্যনতুন কাপড়ের নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান মিনারা ক্লথ। ঈদকে সামনে রেখে নতুন আঙ্গিকে সেজেছে এই অভিজাত বন্ত্রবিপণীটি। চাঁদপুর শহরের প্রাণকেন্দ্রে জেএম সেনগুপ্ত রোডস্থ মীর শপিংয়ের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত এই বন্ত্রবিপণীতে দেখা যায় সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ক্রেতাসাধারণের উপচেপড়া ভিড়। এখানে পাওয়া যাচ্ছে মেয়েদের বিভিন্ন ডিজাইনের অত্যাধুনিক থ্রি পিচ এবং হাতের ডিজাইনের বুটিকসের বিভিন্ন পোশাক। এছাড়াও রয়েছে ঈদের নিত্যনতুন কালেকশনের ফ্লোর টাচ্, কটি ডিজাইন, কিরণমালা, দেশীয় বুটিকস ইত্যাদি। যা পাওয়া যাচ্ছে ৫শ' টাকা থেকে শুরু করে ১০ হাজার টাকার মধ্যে। রয়েছে মেয়েদের অত্যন্ত জনপ্রিয় পোশাক ব্যাঙ্গালুর ও বোম্বের স্পেশাল রুচিশীল ড্রেস। যা পাওয়া যাচ্ছে ১২ থেকে ২০ হাজার টাকার মধ্যে। এবার ঈদে সারারা ও বোম্বের রাউন্ড ফ্রক আকর্ষণীয়। মহিলাদের জন্যে রয়েছে জামদানি শাড়ি, সিল্ক, কাতান, জর্জেট, বালুচুড়ি, তাঁত শাড়িসহ নানা ডিজাইনের সুতি কাপড়। ঈদকে কেন্দ্র করে নতুন আঙ্গিকে শোভা পাচ্ছে সীমার জর্জেট, বেনারসি, মসলিন ও কাঞ্চিবরণ। এছাড়াও এখানে পাওয়া যাচ্ছে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা দামের শাড়ি। শাড়ি, থ্রি পিচের পাশাপাশি রয়েছে ছোট-বড় সবার জন্যে বাহারী ডিজাইনের নান্দনিক পোশাক।



কথা হয় দোকানের কর্ণধার লায়ন কামরুল হাসানের সাথে। তিনি জানান, বাণিজ্যিক দৃষ্টিকোণ থেকে নয় আন্তরিকতার সাথে প্রতিটি ক্রেতাকে আপন করতে চেষ্টা করছি। কেননা ক্রেতা সন্তুষ্টিই আমাদের লক্ষ্য। আমরা অধিক মুনাফা নয়, অধিক বিক্রিতে সন্তুষ্ট। তিনি বলেন, ক্রেতা সন্তুষ্টির জন্যে আমরা এবার বিক্রিত মালের উপর ১০% ছাড় দিয়েছি। যাতে সব ধরনের ক্রেতা তাদের পছন্দের কাপড় কিনতে পারে।



তিনি বলেন, গ্রাহক চাহিদার কথা মাথায় রেখেই আমরা এবারের ঈদে নিত্যনতুন, রুচিশীল, টেকসই শাড়ি কাপড়, থ্রি পিচ থেকে শুরু করে সকল ধরনের পোশাকের আমদানি করেছি। বিশেষ করে এবারের ঈদ গরম মৌসুমে হওয়ায় আমরা সুতি কাপড় ও রং-কে প্রাধান্য দিয়েছি বেশি। ঈদ মানেই আনন্দ। আমরা আমাদের পণ্যের মাধ্যমে সকল পরিবারের আনন্দের সাথে শরীক হতে চাই।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯৫০৫
পুরোন সংখ্যা