চাঁদপুর। বুধবার ৩ আগস্ট ২০১৬। ১৯ শ্রাবণ ১৪২৩। ২৮ শাওয়াল ১৪৩৭
ckdf

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৪-সূরা নূর

৬৪ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মাদানি’

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৫৯। আর তোমাদের সন্তান-সন্ততি বয়ঃপ্রাপ্ত হইলে তাহারাও যে অনুমতি প্রার্থনা করে যেমন অনুমতি প্রার্থনা করিয়া থাকে তাহাদের বয়োজ্যেষ্ঠগণ। এইভাবে আল্লাহ তোমাদের জন্যে তাঁহার নির্দেশ সুস্পষ্টভাবে বিবৃত করেন, আল্লাহ সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাময়।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


আজ হোক কাল হোক সত্য একদিন উদ্ঘাটিত হবেই।      


-টমাস ফুলার।


যে ব্যক্তি সবুর করে আল্লাহ তাকে তার শক্তি দেন, সবুরের শক্তির মতো বড় নেয়ামত আর কিছু নেই।

 - হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


ফটো গ্যালারি
আঙুলের ত্বক ওঠে? যা করতে হবে
০৩ আগস্ট, ২০১৬ ১৬:৫৯:৩৫
প্রিন্টঅ-অ+


আপনার কি আঙুলের ত্বক ওঠে? যদি হয়ে থাকে তবে করণীয় রয়েছে।

একে স্রেফ এড়িয়ে গেলে বিরক্তিকর অবস্থা থেকে মুক্তি পাবেন না। প্রতিদিন লেখালেখি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা, রান্না ধরন ইত্যাদি অনুযায়ী আঙুলের ওপরের দিকের ত্বক উঠতে থাকে। এসব কাজের ফলে যদি ত্বক উঠতেই থাকে তবে জীবনযাপনকে আরেকটু স্বাস্থ্যকর করতে হবে। আঙুলের ত্বক ওঠা অ্যালার্জির কারণে ঘটতে পারে।



উদ্ভিদ, ফুল, সীসা, ধাতব পদার্থ, চামড়া, ডিটারজেন্ট এবং সাবানের কারণে অ্যালার্জি হয়ে ত্বক উঠতে পারে। এগুলো অ্যালার্জি ঘটানোর জন্য বেশ নাম করেছে। অনেক সময় ত্বক উঠে ব্যাপক যন্ত্রণার সৃষ্টি হয়। অন্যান্য পদার্থ লাগলে জ্বলতে থাকে। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কসমেটিক ডার্মাটলজিস্ট মেঘা শাহ দিয়েছেন নানা পরামর্শ।

১. আঙুলের ত্বক ওঠার কারণটি বুঝতে হলে বিস্তারিত ইতিহাস জানতে হবে। অতিরিক্ত শুষ্কতার কারণে যদি এমন হয়ে থাকে, তবে হাতে ময়েশ্চার ব্যবহার করতে হবে। রাতে ঘুমানোর আগে প্যারাফিনসমৃদ্ধ ময়েশ্চার লাগাতে হবে। এ ছাড়া অ্যালো ভেরা ব্যবহারেও উপকার পাবেন।

২. এ ধরনের সমস্যার ৫০ শতাংশের প্রয়োজন হয় থেরাপি-ভিত্তিক চিকিৎসা। সুষ্ঠু পরিচর্যা, সমস্যা বুঝে নেওয়া, সাবান ব্যবহার এড়িয়ে চলা ইত্যাদি মেনে চলতে হয়। এ ছাড়া মানসিক সমস্যাতেও ত্বকে নানা সমস্যা দেখা যেতে পারে। থেরাপির মাধ্যমে এসব থেকে মুক্তি মেলে।

৩. ত্বককে মসৃণতা দেয় এমন ক্রিমও বেশ কার্যকর। ময়েশ্চারহীন ও শুষ্ক হাতে এ ধরনের ক্রিম কাজে দেবে।



৪. ন্যানোফ্র্যাকশনাল রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ক্রমেই এ সমস্যা মুক্তির জনপ্রিয় পন্থা। যন্ত্রণা কমাতে এবং পরবর্তিতে যেন না হয় তার জন্যে এই পদ্ধতি দারুণ কাজের। সারাজীবনের জন্য মুক্তি পেতে এক মাস পর পর টানা ৬ মাস ন্যানোফ্র্যাকশনাল রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি নিতে হয়। চিকিৎসার মাঝে ত্বক মসৃণ করতে আরো নানা কাজ করতে হয় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী।

 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৭৬৭৯১
পুরোন সংখ্যা