চাঁদপুর, রোববার ৮ মার্চ ২০২০, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ১২ রজব ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৫-সূরা তালাক


১২ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১১। এক রাসূল, যে তোমার নিকট আল্লাহর সুস্পষ্ট আয়াতসমূহ আবৃত্তি করে, যাহারা মু'মিন ও সৎকর্মপরায়ণ তাহাদিগকে অন্ধকার হইতে আলোতে আনিবার জন্য। যে কেহ আল্লাহে বিশ্বাস করে ও সৎকর্ম করে তিনি তাহাকে দাখিল করিবেন জান্নাতে, যাহার পাদদেশে নদী প্রবাহিত, সেথায় তাহারা চিরস্থায়ী হইবে; আল্লাহ তাহাকে উত্তম রিয্ক দিবেন।


 


প্রতিভাই শক্তি কিন্তু কৌশল হচ্ছে দক্ষতা।


-ডাবিস্নউ পি স্কারজিল।


 


অভ্যাগত অতিথির যথাসাধ্য সম্মান করা প্রত্যেক মুসলমানের অবশ্য কর্তব্য।


ফটো গ্যালারি
নারীর প্রতি বৈষম্য দূর হোক
মারজাহান সেতু
০৮ মার্চ, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আজ ৮ মার্চ রোববার। আন্তর্জাতিক নারী দিবস। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় : 'প্রজন্ম হোক সমতার : সকল নারীর অধিকার'। বছরের তিনশ পয়ষট্টি দিনের মধ্যে এ একটি দিন নারীদের জন্যে স্বীকৃত। এ দিনটি আসলেই আমরা শ্রদ্ধাভরে নারীদের স্মরণ করি। আর বাকি তিনশ চৌষট্টি দিন নারী ঘরে কিংবা অফিসে, রাস্তা কিংবা মহল্লায় নানাভাবে নির্যাতিত হয়। কর্মস্থলেও নারী তার ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়। একজন পুরুষ দিনমজুরের চেয়ে একজন নারী দিনমজুরের মজুরি কম দেয়া হয়। তাদের দুজনের শ্রমের ঘণ্টা কিন্তু সমানই। এই যে বৈষম্য, এই বৈষম্যটি আমাদের ভেঙ্গে দিতে হবে।



ধরুন, আপনি একজন পুরুষ, আপনি যে কোনো কাজ নির্দ্বিধায় করতে পারেন। দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়াতে পারেন, সমাজে এটা মানানসই। নারী সেসব কাজ করতে গেলে সেই আপনিই বাঁকা চোখে তাকাবেন। আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইয়ে দিবেন। তবে তা কেনো? আপনার মতো আমারও সেসব কাজ করার প্রবল ইচ্ছাশক্তি থাকতে পারে। তবে আপনিই পারেন আপনার মা, আপনার অর্ধাঙ্গিণী, আপনার বোন হিসেবে নারীকে সমাজের বাঁকা চোখের কুদৃষ্টি থেকে বাঁচানোর দায়িত্ব নিতে।



 



আসুন, আমরা নারীকে নারী মনে না করে মানুষ মনে করি। সমাজের সকল বৈষম্য ভেঙ্গে দিই।



জয় হোক পৃথিবীর সকল নারীর, জয় হোক মানবতার।



 



মারজাহান সেতু : এমএ, ৪র্থ বর্ষ, বাংলা বিভাগ, চাঁদপুর সরকারি কলেজ।



 



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৩৯,৩৩২ ২,৯২,০১,৬৮৫
সুস্থ ২,৪৩,১৫৫ ২,১০,৩৫,৯২৬
মৃত্যু ৪,৭৫৯ ৯,২৮,৬৮৬
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৮৬৮১৫
পুরোন সংখ্যা