চাঁদপুর, শনিবার ৬ এপ্রিল ২০১৯, ২৩ চৈত্র ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৮-সূরা ফাত্হ্

২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী

১৫। তোমরা যখন যুদ্ধলব্ধ সম্পদ সংগ্রহের জন্য যাইবে তখন যাহারা পশ্চাতে রহিয়া গিয়াছিল, তাহারা বলিবে, ‘আমাদিগকে তোমাদের সঙ্গে যাইতে দাও।’ উহারা আল্লাহর প্রতিশ্রুতি পরিবর্তন করিতে চায়। বল, ‘তোমরা কিছুতেই আমাদের সংগী হইতে পারিবে না। আল্লাহ পূর্বেই এইরূপ ঘোষণা করিয়াছেন।’ উহারা অবশ্যই বলিবে, ‘তোমরা তো আমাদের প্রতি বিদ্বেষ পোষণ করিতেছ।’ বস্তুত উহাদের বোধশক্তি সামান্য।


assets/data_files/web

বাণিজ্যই হলো বিভিন্ন জাতির সাম্য সংস্থাপক। -গ্লাডস্টোন।


 


 


যখন কোনো দলের ইমামতি কর, তখন তাদের নামাজকে সহজ কর।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
সেরা দলপ্রধানের ছোট্ট সাক্ষাৎকার
মানুষের মতো মানুষ হয়ে ব্যক্তিজীবনে যুক্তির বন্ধনটুকু হৃদয়ে লালন করবো
বাঁধন চন্দ্র শীল
০৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বাঁধন চন্দ্র শীল ফরিদগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সরকারি কলেজ বিতর্ক দলের সুযোগ্য দলপ্রধান। বিতর্কে তার দক্ষতা ও নেতৃত্বগুণে তার দল ফরিদগঞ্জ উপজেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। কোয়ার্টার ফাইনালে অংশ নিয়ে তার দল সেমি-ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়েছে। 'বিতর্কায়ন'কে সে তাৎক্ষণিক জবাবে সন্তুষ্ট করেছে। সুন্দর হস্তাক্ষরে তুলে ধরেছে তার বিতর্ক ভাবনা-



বিতর্কায়ন : পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্ক নিয়ে তোমার অনুভূতি কী?



বাঁধন চন্দ্র শীল : সত্যিকার অর্থে ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়! এতবড় একটি বিতর্কের মঞ্চ আমাদের চাঁদপুরে! তা নিয়ে আমি অনেক গর্বিত। সবচেয়ে বড় গর্বের বিষয়, আমিও সেই বিতর্কের মঞ্চেই বিতর্ক করছি।



বিতর্কায়ন : জিতলেই কেবল বিতর্ক করবে, আর হেরে গেলে করবে না-এমন মানসিকতাই কি পোষণ করছো?



বাঁধন চন্দ্র শীল : চাঁদপুরের গুণীজনরা বলেন, যারা বিতর্ক করে তারা কখনো হারে না। হয় জিতে, না হয় শিখে। এখানে হয় শিখবো না হয় জিতবো। তাই বিতর্ক না করার মানসিকতা আমার মধ্যে নেই।



বিতর্কায়ন : বিতর্কের পথচলায় কী কী প্রতিবন্ধকতা অনুভব করো?



বাঁধন চন্দ্র শীল : আমার বিতর্ক জগতে কোনো প্রকার প্রতিবন্ধকতা নেই। বাবা-মায়ের আশীর্বাদ, ভালোবাসা আর সৃষ্টিকর্তার কৃপায় এগিয়ে যাচ্ছি। সাথে আপনাদেরও আশীর্বাদ কামনা করছি।



বিতর্কায়ন : পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্কের আয়োজনে আরো কী কী যোগ করলে তোমার ভালো লাগবে?



বাঁধন চন্দ্র শীল : সব মিলিয়ে আপনাদের আয়োজন অসাধারণ। যোগ করার মতো কিছুই নেই। তবে আমার দলের দ্বিতীয় বক্তা বলেছে, যদি সকল বক্তার অনুভূতি নেয়া হয়, তবে তারাও অনুভূতি ব্যক্ত করতো পারতো।



বিতর্কায়ন : উপরোক্ত প্রশ্নমালার বাইরে তোমার কোনো বক্তব্য থাকলে কিংবা তোমার জীবনের লক্ষ্য নিয়ে বলতে পারো।



বাঁধন চন্দ্র শীল : আমার জীবনের লক্ষ্য-বিতর্ক জগতে একদিন জাতীয় পর্যায়ে বিতর্ক করবো। মানুষের মতো মানুষ হয়ে ব্যক্তি জীবনে যুক্তির বন্ধনটুকু হৃদয়ে লালন করবো।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২৩১৮৬৩
পুরোন সংখ্যা