চাঁদপুর। মঙ্গলবার ৮ মার্চ ২০১৬। ২৫ ফাল্গুন ১৪২২। ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৭
ckdf

সর্বশেষ খবর :

  • ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় মোড়া, চাঁদপুরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২২-সূরা : হাজ্জ

৭৮ আয়াত, ১০ রুকু, মাদানী

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।



৬২। এইজন্য ও যে, আল্লাহ্, তিনিই সত্য এবং উহারা তাঁহার পরিবর্তে যাহাকে ডাকে উহা তো অসত্য এবং আল্লাহ্, তিনিই তো সমুচ্চ, মহান।   

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


আমি আমার নিজের প্রশংসা নিজে করি না বলে লোকে আমাকে সম্মান দেয় বেশি।                      


                                                     -ক্যালডিরন।


দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত জ্ঞান চর্চায় নিজেকে উৎসর্গ করো।

                 -হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


শিক্ষার্থী সাক্ষাৎকার : ইয়াকুব ইসলাম রুবেল
আদর্শ শিক্ষক হতে চাই
০৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল। পড়াশোনা করছেন চঁ.স.ক. রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে। তার সাথে কলেজ জীবনের নানা বিষয় নিয়ে কথা হয় ক্যাম্পাস বিভাগের। তার সাক্ষাৎকারটি আজ প্রকাশিত হলো_

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : চাঁদপুর সরকারি কলেজে পড়তে কেমন লাগছে?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : এক সময় যখন চাঁদপুর সরকারি কলজের পাশ দিয়ে হেঁটে যেতাম, কলেজের ভবনগুলোর দিকে হাঁ করে তাঁকিয়ে থাকতাম। আর ভাবতাম, কোনোদিন এই কলেজে পড়তে পারবো কি না? নিজেকে একজন শিক্ষার্থী হিসেবে সফল মনে করতে পেরেছি যখন চাঁদপুর সরকারি কলেজে একজন শিক্ষার্থী হিসেবে পদার্পণ করেছি। সুতরাং বলা চলে যে, চাঁদপুর সরকারি কলেজে পড়তে পারাটা আমার একটা স্বপ্ন পূরণ।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : কলেজের যে বিষয়টি আপনার খুব ভালো লাগে_

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : কলেজের অনেক দিকই ভালো লাগে। তবে যখন কোনো শিক্ষক আমার নাম ধরে ডাকেন তখন খুব ভালো লাগে। কলেজের অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে আমার নামটা মনে রাখার ব্যাপারটা রীতিমত অবাক লাগে।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : আপনি কলেজের কোন দিকটার পরিবর্তন চান?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : কলেজ লাইব্রেরির আয়তন আরো বৃদ্ধি করা প্রয়োজন বলে আমি মনে করি। লাইব্রেরিতে টেবিলের সংখ্যা আরো অনেক বাড়ানো দরকার আছে।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : কলেজের কোন কোন সমস্যা আপনাকে নাড়া দেয়?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : প্রতিবছর সেশন ফি, ফরম পূরণ ও অন্যান্য ব্যয়ের আগ্রাসন দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য কষ্টদায়ক হয়ে পড়ে। বিষয়টি আপেক্ষিক হলেও এ সম্পর্কে ভাবা যেতে পারে।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : এবার আপনার প্রিয় শিক্ষকের কথা বলুন।

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : আমার বিভাগে আমার প্রিয় শিক্ষক দু'জন। একজন হলেন শ্রদ্ধেয় রুহুল আমিন স্যার এবং অন্যজন আমাদের লোকমান স্যার। তাদেরকে আমার অনেক ভালো লাগে। এখন দুজনই এ কলেজে নেই। একজন মহিলা কলেজে কর্মরত আছেন। অন্যজন অবসর নিয়েছেন।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : কলেজ লাইব্রেরির সমস্যার কথা আগেই বলেছেন। তারপরও কলেজে লাইব্রেরি

সম্পর্কে আপনার মূল্যায়ন কি ?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : অ খরনৎধৎু রং ধ ংঃড়ৎব যড়ঁংব ড়ভ শহড়ষিবফমব. তবে কলেজের লাইব্রেরিটা নিঃসন্দেহে আমার একটি প্রিয় জায়গা। লাইব্রেরিতে গেলে নিজেকে কখনো একা মনে হয় না। কারণ সাথে তো বই আছেই!!

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : আপনার বন্ধুদের সম্পর্কে কিছু বলুন।

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : বন্ধু ছাড়া দুনিয়া অচল। আমার বেশ কিছু প্রিয় বন্ধু আছে। তাদের নিয়ে আমার পথচলা। আমার প্রাণপ্রিয় ও ছায়া সঙ্গী তরুণ কবি রফিকুজ্জামান রণি, হাবিবুর রহমান, রুহুল আমিন, মাসুদ, রিয়াজ, আবু বকর, তাফাজ্জল, জহির, মোবারক, মাহবুব, শফিউল প্রমুখ।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : কলেজের খেলাধুলায় আপনি কি অংশগ্রহণ করেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : খেলাধুলায় অংশগ্রহণ তেমন একটা না থাকলেও কলেজ মাঠে বন্ধুদের সাথে দাঁড়িয়ে খেলা দেখতে আমার ভালোই লাগে।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : পড়াশোনার বাইরে আর কি কি করেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : তেমন কিছু নয়, তবে পরিবারের সদস্যদের একটু সময় দেয়ার চেষ্টা করি।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : আপনার জীবনের লক্ষ্য কি?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : পড়শোনা শেষ করে একজন আদর্শ শিক্ষক হতে চাই।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : সামাজিক দায়বোধক কীভাবে মূল্যায়ন করবেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : সামাজিক দায়বোধ না থাকলে মানুষকে মানুষ বলা কঠিন।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : আমি শিক্ষকদের অনুরোধ করবো, আপনাদের সহানুভূতিশীল, সহযোগিতামূলক ও সমপ্রীতিমূলক আচরণ প্রদর্শন করুন। কেননা আপনাদের আচরণের উপর ভিত্তি করেই আমরা শিক্ষকতাকে একটি মহৎ পেশা হিসেবে বেছে নেব।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : অবসর সময় কি করেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : অবসর সময়ে লেখালেখি করার চেষ্টা করি। গান শুনি, বই পড়ি।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : আমাদের কোনো একটি কবিতার কথা বলুন_

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : কবিতার কথা বললে আবু জাফর ওবায়দুল্লার 'আমি কিংবদন্তীর কথা বলছি' কবিতার কথাই বলবো।

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : কলেজের কোনো স্মৃতি সর্ম্পকে বলেন_

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : কলেজের ১ম বর্ষ ফরম পূরণের দিন শিক্ষার্থীদের অভিভাবক নিয়ে আসার কথা বলা হয়। তখন আমি অফিসে ঢুকলে স্যার আমাকেই 'অভিভাবক' ভেবে বলে বসেন। আমি বললাম স্যার আমি আপনার ছাত্র!

চাঁ.স.ক ক্যাম্পাস : সবশেষে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে কি বলবেন?

মোহাম্মদ ইয়াকুব ইসলাম রুবেল : সকল শিক্ষার্থীদের সর্বাত্মক মঙ্গল কামনা করি। তারা ভালো করবে আমি এই প্রত্যাশা সবসময়ই করুক। আমি যাতে ভালো করতে পারি সেই দোয়াও চাইছি।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৬২৪৩৮৮
পুরোন সংখ্যা