চাঁদপুর। মঙ্গলবার ৩০ মে ২০১৭। ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪। ৩ রমজান ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩০-সূরা রূম


৬০ আয়াত, ৬ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩৮। অতএব আত্মীয়কে দিবে তাহার হক এবং অভাবগ্রস্ত ও মুসাফিরকেও। যাহারা আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনা করে তাহাদের জন্যে ইহা শ্রেয় এবং তাহারই সফলকাম।


৩৯। মানুষের ধনে বৃদ্ধি পাইবে বলিয়া তোমরা যে সুদ দিয়া থাক, আল্লাহর দৃষ্টিতে তাহা ধন-সম্পদ বৃদ্ধি করে না। কিন্তু আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্যে যে যাকাত তোমরা দিয়ে থাক তাহাই বৃদ্ধি পায়; উহারই সমৃদ্ধিশালী।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 

assets/data_files/web

মিষ্টি যেমন সুস্বাদু তেমনি ক্ষতিকর।


                          -রুডিয়ার্ড কিপলি।


ধর্মার্থে প্রাণ উৎসর্গকারী শহীদের রক্ত অপেক্ষা বিদ্বান ব্যক্তির কলমের কালি অধিক পবিত্র।


 

ফটো গ্যালারি
আনোয়ারা ইসলাম দাখিল মাদ্রাসা
শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদক ॥
৩০ মে, ২০১৭ ১৭:৫৫:১৪
প্রিন্টঅ-অ+


 চাঁদপুর শহরের ১১নং ওয়ার্ড দক্ষিণ গুণরাজদীস্থ আনোয়ারা ইসলাম দাখিল মাদ্রাসা সদ্যপ্রকাশিত ২০১৬ সালের দাখিল পরীক্ষার ফলাফলে সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করেছে। এবার এ মাদ্রাসা থেকে ৩২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে ২৭ জন শিক্ষার্থী। পাসের হার ৮৪ ভাগ। ১০ জন এ গ্রেড, ১১ জন এ মাইনাস, ৩ জন বি ও ৩ জন সি পেয়েছে।  



মাদ্রাসা সুপার আলহাজ্ব মাওঃ মুফতি জিয়াউদ্দিন খন্দকার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, সারাদেশে  এবার মাদ্রাসা বোর্ডের পাসের হার কম। মাদ্রাসা বোর্ডে এবার পাসের হার ছিলো শতকরা ৭৬ দশমিক ২০ শতাংশ। সেখানে আমাদের মাদ্রাসার পাসের হার ৮৪ ভাগ। আমাদের শিক্ষার্থীরা সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করেছে। এ ফলাফলে আমরা আনন্দিত। যদিও আমাদের শিক্ষার্থীরা জিপিএ-৫ পায়নি, কিন্তু আমাদের গড় ফলাফল ভালো। সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করার জন্যে আমি শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।



তিনি আরো বলেন, মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষক-শিক্ষাথী ও অভিভাবকদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় প্রতি বছর সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করে আসছে। তবে আমাদের লক্ষ্য আগামীতে আরো ভালো ফলাফল অর্জন করা। আগামীতে পাসের হার আরো বৃদ্ধি করতে জোর চেষ্টা চালাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

 

মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরা জিপিএ-৫ না পেলেও আমাদের গড় ফলাফল ভালো। সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করার জন্যে আমি মাদ্রাসা সুপারসহ সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। আগামীতে মাদ্রাসাটি আরো ভালো ফলাফল অর্জন করবে বলে তিনি বিশ্বাস করেন। তবে তাঁর লক্ষ্য আগামীতে আরো ভালো ফলাফল অর্জন করতে সবাই সম্মিলিতভাবে কাজ করবেন।


আজকের পাঠকসংখ্যা
১২২২১৪
পুরোন সংখ্যা