চাঁদপুর। মঙ্গলবার ৩০ অক্টোবর ২০১৮। ১৫ কার্তিক ১৪২৫। ১৯ সফর ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৩-সূরা যূখরুফ

৮৯ আয়াত, ৭ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩০। যখন তাদের নিকট সত্য আসলো তখন তারা বললো : এটা তো যাদু এবং আমরা অবশ্যই এর প্রতি কুফরী করি।

৩১। এবং তারা বলে : এই কুরআন কেন অবতীর্ণ করা হলো না দুই জনপদের কোন প্রতিপত্তিশালী ব্যক্তির উপর?

৩২। তারা কি তোমার প্রতিপালকের রহমত বণ্টন করে? আমিই তাদের মধ্যে জীবিকা বণ্টন করি তাদের পার্থিব জীবনে এবং একজনকে অপরের উপর মর্যাদায় উন্নত করি যাতে একে অপরের দ্বারা খেদমত করিয়ে নিতে পারে এবং তারা যা জমা করে তা হতে তোমার প্রতিপালকের রহমত উৎকৃষ্টতর।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


শিক্ষার শেকড় তেতো হলেও এর ফল মিষ্টি।                   

-এরিস্টটল।


বিদ্যার মতো চক্ষু আর নেই, সত্যের চেয়ে বড় তপস্যা আর নেই, আসক্তির চেয়ে বড় দুঃখ আর নেই, ত্যাগের চেয়ে সুখ আর কিছুতেই নেই।



 


ফটো গ্যালারি
ডাঃ দীপু মনি এমপির আন্তরিকতায়
১০ বছরে আমূল বদলে গেছে পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ
শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদক
৩০ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের ১০ বছরে চাঁদপুরের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ব্যাপকভাবে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। এ উন্নয়নের ছোঁয়ায় আমূল বদলে গেছে চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ। এই এক দশকে কলেজের অবকাঠামোগত উন্নয়ন যেমন হয়েছে তেমনি দূর হয়েছে শিক্ষক ও শ্রেণিকক্ষ সঙ্কট। শিক্ষার্থীদের যথাযথ পাঠদানের জন্যে নিশ্চিত করা হয়েছে শিক্ষা পরিবেশ ও শিক্ষা উপকরণ।



 



কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানান, পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজটি আমূল বদলে যাওয়ার কারণ প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদের বর্তমান সভাপতি ডাঃ দীপু মনি এমপি। তাঁর নির্দেশনায় কলেজটিকে বর্তমান অবস্থায় নিয়ে এসেছেন কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার।



 



কলেজ অফিসসূত্রে জানা যায়, গত দশ বছরে প্রতিষ্ঠানটির অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এর মধ্যে আড়াই কোটি টাকা ব্যয়ে আইসিটি ল্যাবসহ চারতলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এ ভবনে অনার্স বিভাগগুলোর শ্রেণি কার্যক্রম চালু রয়েছে। ১৮ লাখ টাকা ব্যয়ে কলেজের গেট ও ৬টি শ্রেণিকক্ষের সংস্কার করা হয়েছে। কলেজের মাঠ ও শহিদ মিনার সংস্কারে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৪ লাখ টাকা। অন্যদিকে ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে ১ কোটি ২ লাখ টাকা ব্যয়ে কলেজের পাশে ১৮ শতাংশ জমি কেনা হয়েছে। ১শ' ৫০ জোড়া ব্যাঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। এছাড়াও আধুনিক অডিটোরিয়াম ও বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ করা হয়েছে।



 



শিক্ষকরা জানান, আধুনিকায়নের ক্ষেত্রে কলেজটির অনেক অগ্রগতি হয়েছে। কলেজে বর্তমানে ডিজিটাল হাজিরা চালু রয়েছে। শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। কলেজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা জন্যে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। ফলে কলেজে বহিরাগতদের উপদ্রব এখন আর নেই। কলেজে ৬টি মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম রয়েছে। যারমধ্যে ডাঃ দীপু মনি এমপি ৩টি মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর দিয়েছেন। শ্রেণিকক্ষে সাউন্ড সিস্টেম যুক্ত করা হয়েছে। সম্প্রতি কলেজটি বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় পরিচালিত কলেজ এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতাভুক্ত হয়েছে।



 



শিক্ষার্থীরা জানান, কলেজটির পরিবেশ গত ক বছরে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। বর্তমানে আমরা মনোরম পরিবেশে পাঠ গ্রহণ করতে পারছি। কলেজ জুড়েই ফুলের বাগান রয়েছে। ক্যাম্পাস সংলগ্ন নদীর পাড় ঘেঁষে নির্মাণ করা হয়েছে 'সাতমার্চ চত্বর'। শহীদ মিনারটিও সংস্কার করে দৃষ্টিনন্দন করা হয়েছে। কলেজে এলে মন জুড়িয়ে যায় বলে শিক্ষার্থীরা জানান।



 



পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হাবিবুর রহমান পাটওয়ারী জানান, কলেজে বর্তমানে ৭টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু রয়েছে। আরো ২টি কোর্স চালুর বিষয় প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্যে সাংস্কৃতিক সংগঠন 'মুক্তির আলো', বিতর্ক সংগঠন 'যুক্তির আলো' প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সাংস্কৃতিক কর্মকা- পরিচালনার জন্যে একজন শিক্ষকও রয়েছেন।



 



পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার বলেন, ডাঃ দীপু মনি এমপি মহোদয়ের পরামর্শ ও নির্দেশনায় কলেজটি এগিয়ে যাচ্ছে। এ অগ্রগতির জন্যে কলেজ গভর্নিং বডির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিমসহ অন্য সকল সদস্য এবং শিক্ষকবৃন্দ কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁদের আন্তরিকতা ও অংশগ্রহণের কারণেই বর্তমানে কলেজের আমূল পরিবর্তন সম্ভব হয়েছে। কলেজে প্রয়োজনীয় শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। শিক্ষকদের বেতন, উৎসব ভাতা বৃদ্ধি করা হয়েছে। মানসম্মত শিক্ষা পরিবেশ নিশ্চিত হওয়ার কারণে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বেড়েছে। কলেজে এসে আমাদের বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী ও আইসিটি প্রতিমন্ত্রী তাঁদের মুগ্ধতার কথা জানিয়েছেন।



 



তিনি বলেন, ডাঃ দীপু মনি এমপি মহোদয় আমাদের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের জন্যে অনুপ্রেরণার নাম। তিনি কলেজের গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানে সবসময় উপস্থিত থাকেন। এটি আমাদের জন্যে অনেক বড় প্রাপ্তি। তাঁর আন্তরিকতায় কলেজটি আরো অনেকদূর এগিয়ে যাবে বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।



 



পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ নিয়ে কথা হয়ে ডাঃ দীপু মনি এমপির সাথে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতায় এ উন্নয়নের ছোঁয়া পুরো চাঁদপুর জেলাতেই দৃশ্যমান হয়েছে।



 



তিনি বলেন, পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজটি এ জেলার অন্যতম দৃষ্টিনন্দন কলেজ। এ কলেজে আমি যতোবার গিয়েছি ততোবারই মুগ্ধ হয়েছি। আমরা কলেজ পরিচালনা পর্ষদ, অধ্যক্ষ, শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ সবাই মিলে কলেজটিকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছি।



 



অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি কলেজের শিক্ষার মান উন্নত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফলের জন্য, তাদের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলবার জন্য অভিভাবকদেরকেও কলেজের উদ্যোগের সাথে সম্পৃক্ত করা হয়েছে।



 



অর্থাৎ শিক্ষার্থীদের শিক্ষার উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করতে আমরা সচেষ্ট। আগামীতেও কলেজের উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯৬২৬৯
পুরোন সংখ্যা