চাঁদপুর, বুধবার ৯ অক্টোবর ২০১৯, ২৪ আশ্বিন ১৪২৬, ৯ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮। অতএব তোমরা আল্লাহ, তাঁহার রাসূল ও যে জ্যোতি আমি অবতীর্ণ করিয়াছি তাহাতে বিশ্বাস স্থাপন কর। তোমাদের কৃতকর্ম সম্পর্কে আল্লাহ সবিশেষ অবহিত।


 


assets/data_files/web

গণমানুষকে জাগিয়ে তোলার জন্য কবিতা অস্ত্রস্বরূপ।


-কাজী নজরুল ইসলাম।


 


 


প্রত্যেক কওমের জন্য একটি পরীক্ষা আছে এবং আমার উম্মতদের পরীক্ষা তাদের ধন-দৌলত।


 


ফটো গ্যালারি
টিউশন ফি পাবে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা
০৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


দেশের মাধ্যমিক-পর্যায়ের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থীর টিউশন ফি দেবে সরকার। তবে, প্রথম দফায় আগামী বছরের (২০২০) জানুয়ারি থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সপ্তম, অষ্টম, নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদেরও টিউশন ফি দেবে সরকার। সবার জন্যে শিক্ষা নিশ্চিত করাসহ শিক্ষার মানোন্নয়নের পদক্ষেপের অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন বলেন, 'বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। কত টাকা লাগবে, কত প্রতিষ্ঠান ও কত শিক্ষার্থী রয়েছে তার হিসাব করা হচ্ছে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।' প্রথম দফায়ই দশম শ্রেণি পর্যন্ত টিউশন ফি দেয়া হবে কি না_জানতে চাইলে মোঃ সোহরাব হোসেন বলেন, 'একবারে এত টাকা অর্থ বিভাগ দিতে চাইবে না। পর্যায়ক্রমে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।' এই প্রসঙ্গে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান বলেন, 'আগামী জানুয়ারি থেকে ষষ্ট শ্রেণির সব শিক্ষার্থীর টিউশন ফি সরকার দেবে। সেই পরিকল্পনা নিয়ে কাজ চলছে। শিক্ষার্থীদের ব্যয়ের হিসাব মিলিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিষয়টি চূড়ান্ত হলে ষষ্ট শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাসিক বেতন দেওয়া শুরু হবে। তবে, অন্যান্য ফি শিক্ষার্থীদেরই দিতে হবে।' ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি জানুয়ারিতে দেয়া শুরু করা যাবে কিনা_জানতে চাইলে অধ্যাপক মান্নান বলেন, 'জানুয়ারি থেকে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। তবে, বিষয়টি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। চূড়ান্ত করতে সময় লাগবে।' খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জানুয়ারিতে শুরু করা না গেলেও ২০২০ সালের মধ্যেই শুরু করবে সরকার। এর আগেও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি মাধ্যমিক পর্যায়ের বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থীর টিউশন ফি দেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থীর উপস্থিতি ও গুণগত মানোন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ইতোমধ্যে বাস্তবায়ন করা হয়েছে। মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দেয়ার কর্মসূচি হাতে নেয়া হয় অনেক আগেই। সর্বশেষ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম টাকায় দুপুরের খাবার কর্মসূচি চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়। এর ধারাবাহিকতায় ২৯ সেপ্টেম্বর রোববার সিলেটের ১৪টি বিদ্যালয়ে মিড-ডে মিল কর্মসূচির উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। পর্যায়ক্রমে সারাদেশে এই কর্মসূচি চালু করতে শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এসব কর্মসূচি বাস্তবায়নকালেই বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থীর টিউশন ফি দেওয়ার পরিকল্পনা হাতে নেয় সরকার। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান বলেন, 'গ্রামের অনেক মানুষ রয়েছেন, যারা টিউশন ফি বেশির কারণে তাদের পছন্দের স্কুলে সন্তানকে পড়াতে পারেন না।' টিউশন ফি দেওয়ার দরকার না হলে শিক্ষার্থীরা পছন্দমতো বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করতে পারবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪০৭৬২২
পুরোন সংখ্যা