চাঁদপুর। শুক্রবার ১৬ মার্চ ২০১৮। ২ চৈত্র ১৪২৪। ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

বিজ্ঞাপন দিন

jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৬-সূরা ইয়াসিন


৮৩ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩৯। চন্দ্রের জন্যে আমি বিভিন্ন মনযিল নির্ধারিত করেছি। অবশেষে সে পুরাতন খর্জুর শাখার অনুরূপ হয়ে যায়।


৪০। সূর্য নাগাল পেতে পারে না চন্দ্রের এবং রাত্রি অগ্রে চলে না দিনের, প্রত্যেকেই আপন আপন কক্ষপথে সন্তরণ করে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


 


 


অন্যকে বারবার ক্ষমা করো, কিন্তু নিজেকে কখনই ক্ষমা করো না।


-সাইরাস।


 


 


মুসলমান ভাইয়ের সঙ্গে ঝগড়া-ফ্যাসাদ করিও না, ওয়াদা ভঙ্গ করিও না।


 


 


ফটো গ্যালারি
মৎস্যকন্যা
সুমাইয়া নৌমি
১৬ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আমি এক বিড়াল রাজ্যের রাজপ্রাসাদে প্রবেশ করেছি। কী সুন্দর রাজপ্রাসাদ। চারদিকে হীরা-মাণিক্য চিকচিক করছে। কিন্তু কী আণ্ডর্য, প্রাসাদের কোনো প্রজার মুখে হাসি নেই। সবাই যেন গম্ভীর। আমি বিড়াল রাণীর রাজদরবারে প্রবেশ করলাম। কিন্তু একি! এক গামলা ভর্তি পানিতে ডুবানো সিংহাসনে বসে খেলা করছেন রানী। অবাক হয়ে কারণ জিজ্ঞেস করলাম রাণীকে। রাণী তো দিলেন কেঁদে। বললেন, সবই আমার ভাগ্য। দেখছো না সব বিড়ালের মতো আমার পা নেই। পানি ছাড়া যে আমি হাঁটতেই পারি না। দেখলাম সত্যেই তো রাণীর যে পা নেই। মাছের মতো বড় লেজ। ঠিক যেন মৎস্যকন্যা, নানা মৎস্য ম্যাঁও। আমি বললাম তোমার এমন লেজ কেন, তোমার পা কই? রাণী বললেন জন্ম থেকেই এমন, তবে রাজ গণক বলেছেন কোনো মানবসন্তান যদি আমায় তুলে আছাড় মারে, তবেই লেজ অদৃশ্য হয়ে পা বের হবে। কিন্তু বিড়াল রাজ্যে কই পাবো মানুষ? বললাম, আমি যে মানুষ, বিড়াল রাণী আকুতি করে বললেন, তবে আমায় ঠিক করে দাও। আমায় আছাড় মারো। ম্যাঁও...। মা হঠাৎ বললো, কিরে তুই বিড়ালটাকে ওতো জোড়ে আছাড় দিলি কেন? দেখলাম আমার পুষিটা ব্যথায় কাতরাচ্ছে। পুষিটার গায়ে হাত বোলালাম। ইশ ছবিটায় রঙ করতে করতে কোন্ রাজ্যে যে ঢুকে গিয়েছিলাম!



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬২৩৩৯
পুরোন সংখ্যা