চাঁদপুর। শুক্রবার ১৩ অক্টোবর ২০১৭। ২৮ আশ্বিন ১৪২৪। ২২ মহররম ১৪৩৯
kzai
muslim-boys

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩০-সূরা রূম


৬০ আয়াত, ৬ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২৮। আল্লাহ তোমাদের জন্য তোমাদের নিজেদের মধ্যে একটি দৃষ্টান্ত পেশ করিতেছেন : তোমাদেরকে আমি যে রিযিক  দিয়াছি, তোমাদের অধিকারভুক্ত দাস-দাসিগণের কেহ কি তাহাতে অংশীদার? ফলে তোমরা কি এই ব্যাপারে সমান? তোমরা কি উহাদেরকে  সেইরূপ ভয় কর যেইরূপ তোমরা পরস্পর পরস্পরকে ভয় কর?  এইভাবেই আমি বোধশক্তিসম্পন্ন লোকদের নিকট নির্দশনাবলী বিবৃত করি।


২৯। বরং সীমালংঘনকরীরা অজ্ঞতাবশত তাহাদের খেয়াল-খুশির অনুসরণ করে, সুতরাং আল্লাহ যাহাকে পথভ্রষ্ট করিয়াছেন, কে তাহাকে সৎপথে পরিচালিত করিবে?  আর তাহাদের কোন সাহায্যকারী নাই।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


প্রেমহীন দাম্পত্য জীবন ব্যভিচারের নামান্তর। 


           -রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

যা ইচ্ছা আহার করতে পারো, যা ইচ্ছা পরিধান করতে পারো, যদি তোমাদেরকে অপব্যয় ও গর্ব স্পর্শ না করে।


ফটো গ্যালারি
ভুক্তভোগীরা বিক্ষুব্ধ হবার আগেই সড়কগুলোর সংস্কার করুন
১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ১৯:৫৬:৫৪
প্রিন্টঅ-অ+
এবারকার অতি বৃষ্টিতে এবং বন্যার ছোবলে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলোই যেনো বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান সমস্যায় রূপান্তরিত হয়েছে। বর্ধিত মূল্যে চাল কিনতে কিনতে মানুষ যতোটা না কষ্ট পেয়েছে, তারচে’ বেশি কষ্ট পাচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলোতে চলতে গিয়ে। ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়ক সহ কিছু মহাসড়ক ব্যতীত প্রায় সকল আঞ্চলিক মহাসড়কে চলাচল এখন সকল বয়সী যাত্রীদের জন্যে বিপজ্জনক, অস্বস্তিকর এবং ভীষণ যন্ত্রণাদায়ক। শরণার্থী হিসেবে আমাদের দেশে ছুটে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলমানদের প্রতি সংবেদনশীলতা এবং উদ্ভূত সঙ্কট নিয়ে উদ্বেগের কারণে সড়ক-সমস্যা নিয়ে ভুক্তভোগীরা বিক্ষোভ প্রকাশ ও সংগঠিত হবার মানসিকতায় পৌঁছতে পারছে না বলে মনে হচ্ছে। সেজন্যেই হয়তো বা সরকার সড়ক সংস্কারের কাজে দ্রুত হাত দেয়ার তাগিদ অনুভব করছে না বলে অনেকে ধারণা করছেন। তবে সড়ক সংস্কার ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে জুলাই, আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে ফাইল চালাচালি এবং অক্টোবরের শুরু থেকে কাজে হাত দেয়ার একটা নিয়ম সরকার পালন করে বলে জানা যায়। 

উদ্বেগের বিষয় হলো, অক্টোবর শুরু হয়ে ইতঃমধ্যে ১১ দিন অতিক্রান্ত হয়ে গেলো, চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের ১৭শ’ মিটারে মেরামত কাজ শুরু ছাড়া পুরো সড়কটিতে ব্যাপক সংস্কার ও মেরামত কাজের কোনো আলামত টের পাওয়া যাচ্ছে না। সড়কটি মোটামুটি ভালো থাকাবস্থায় আগে যাত্রীরা যেখানে চাঁদপুর-কুমিল্লা রূট দেড়-দুঘন্টায় পাড়ি দিতে পারতো, তা পাড়ি দিতে এখন তিন থেকে সাড়ে তিন ঘন্টা সময় লাগছে। যানবাহনগুলো ধীর গতি ছাড়া উক্ত সড়কে স্বাভাবিক চলাচলের কোনো সুযোগ পাচ্ছে না। ভুক্তভোগীরা তাদের কষ্টকর চলাচলকে এখন পত্র-পত্রিকা, টিভি তথা গণমাধ্যমের রিপোর্টে ব্যক্ত করে চলছেন। তাই প্রতিদিন বাংলাদেশের জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকাসহ সকল পত্রিকায় চোখ বুলালেই সড়কে যাত্রী ভোগান্তির চিত্র খুঁজে পাওয়া যায়। যেমন : চাঁদপুর কণ্ঠে গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার অর্থাৎ পর পর দুদিন দুটি শীর্ষ সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে সড়ক-চিত্র নিয়ে। এগুলোর শিরোনাম হয়েছে যথাক্রমে ‘ফরিদগঞ্জে দুটি আঞ্চলিক 

 

মহাসড়কের ২৯ কিলোমিটার জুড়ে ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক ও সেতু ॥ জনদুর্ভোগ চরমে’ এবং ‘ফরিদগঞ্জ-রূপসা-খাজুরিয়া সড়কের দুরবস্থা’। 

আমাদের পর্যবেক্ষণে মনে হচ্ছে, সড়কে-মহাসড়কে যাত্রী ভোগান্তি রিপোর্টের আওতায় থাকার সময় দ্রুত ফুরিয়ে যাচ্ছে। সরকার অবিলম্বে ব্যাপকভাবে সড়ক সংস্কার ও মেরামতের কাজে হাত না দিলে যে কোনো সময়ে যাত্রীদের বিক্ষোভের উৎকট বহিঃপ্রকাশ ঘটতে পারে। কাজেই সময় মতো সরকারের আশু পদক্ষেপগ্রহণ বাঞ্ছনীয় বলে আমরা মনে করি। 

 

এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২৯৪
পুরোন সংখ্যা