চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১৭ এপ্রিল ২০১৮। ৪ বৈশাখ ১৪২৫। ২৯ রজব ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭- সূরা আস-সাফফাত


১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩২। আমরা তোমাদেরকে পথভ্রষ্ট করেছিলাম। কারণ আমরা নিজেরাই পথভ্রষ্ট ছিলাম।


৩৩। তারা সবাই সেদিন শান্তিতে শরীক হবে।


৩৪। অপরাধীদের সাথে আমি এমনি ব্যবহার করে থাকি।


৩৫। তাদের যখন বলা হত, আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই, তখন তারা ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করত।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


উৎকৃষ্ট বীজ থেকেই উত্তম বৃক্ষ জন্ম নেয়।


-জনগে।


 


 


 


 


পিতার আনন্দে খোদার আনন্দ এবং পিতার অসন্তুষ্টিতে খোদার অসন্তুষ্টি


 


 


ফটো গ্যালারি
মাদ্রাসাটির প্রতি শিক্ষা কর্তৃপক্ষ সদয় হোন
১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


প্রতিষ্ঠাকাল বিবেচনায় প্রাচ্যের অঙ্ফোর্ড নামে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমসাময়িক একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হচ্ছে হর্ণি দুর্গাপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা। এটি চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলাধীন ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নে অবস্থিত। ১৯২৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান বয়স হচ্ছে ৯৫ বছর। বয়সের ভারে নূ্যব্জ হয়ে মানুষ বার্ধক্য বা জরাগ্রস্ততায় ভোগে, কিন্তু কোনো প্রতিষ্ঠান সাধারণত সেটাতে ভোগে না। তারপরওে মানুষের মতোই যেনো বার্ধক্যে ভুগে উক্ত প্রতিষ্ঠানটি জরাজীর্ণতায় ধুঁকছে। অবকাঠামোগত সমস্যা প্রতিষ্ঠানটিকে ক্রমশ পিছিয়ে দিচ্ছে। শ্রেণিকক্ষ সঙ্কটে দিন দিন শিক্ষার্থী হ্রাস পাচ্ছে।



চাঁদপুর কণ্ঠের ফরিদগঞ্জ ব্যুরো ইনচার্জ প্রবীর চক্রবর্তী গত শুক্রবার হণি দুর্গাপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা নিয়ে সরেজমিন অভিজ্ঞতার আলোকে সচিত্র সংবাদ পরিবেশন করেছেন। তিনি তার সংবাদে লিখেছেন, দীর্ঘদিনেও প্রতিষ্ঠানটিতে কোনো ভবন নির্মিত না হওয়ায় শিক্ষার্থীদেরকে জরাজীর্ণ পরিবেশেই পড়ালেখা করতে হচ্ছে। বর্ষা আসলেই টিনের ভাঙ্গা চাল দিয়ে পানি পড়ে। নেই স্যানিটেশন ব্যবস্থা। সাম্প্রতিক ঝড়ে মাদ্রাসাটির একটি ভবনের টিনের চাল উড়ে যায়। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বলেন, ৪৩০ জন শিক্ষার্থীর এ মাদ্রাসা গভর্নিং বডির সভাপতি হিসেবে স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভঁূইয়া দায়িত্বগ্রহণের পর থেকে শিক্ষার মানোন্নয়ন ঘটছে। আশা করছি তাঁর উদ্যোগে মাদ্রাসাটির অবকাঠামোগত উন্নয়নে ব্যাপক পরিবর্তন হবে।



আমরাও হর্ণি দুর্গাপুর ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের অনুরূপ আশা করছি। কেননা, একটি এলাকার কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত সহ সকল উন্নয়নের জন্যে স্থানীয় সাংসদের অনেক বড় ভূমিকা রয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, একজন বিদ্যোৎসাহী ব্যক্তি হিসেবে ড. শামছুল হক ভঁূইয়া এমপি মাদ্রাসাটির জন্যে তাঁর ন্যায্য ভূমিকা নিশ্চিত করবেন। সাথে সাথে শিক্ষা কর্তৃপক্ষও প্রাচীন এই মাদ্রাসাটির প্রতি সদয় হবে-আমরা সে দাবিতে মাদ্রাসাটির জন্যে কল্যাণকর সকল কিছুই প্রত্যাশা করছি।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৫৪২৭৮
পুরোন সংখ্যা