চাঁদপুর, শনবিার ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬, ২৮ জমাদউিল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬২-সূরা জুমু 'আ


১১ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৫। যাহাদিগকে তাওরাতের দায়িত্বভার অর্পন করা হইয়াছিল, কিন্তু তাহারা উহা বহন করে নাই, তাহাদের দৃষ্টান্ত পুস্তক বহনকারী গর্দভ। কত নিকৃষ্ট সে সম্প্রদায়ের দৃষ্টান্ত যাহারা আল্লাহর আয়াতসমূহকে অস্বীকার করে। আল্লাহ যালিম সম্প্রদায়কে সৎপথে পরিচালিত করেন না।


 


 


মানুষের মধ্যে ঈশ্বরের উপস্থিতিটাই হল বিবেক। -সুইডেন বোর্গ।


 


 


নফস্কে দমন করাই সর্বপ্রথম জেহাদ।


ফটো গ্যালারি
সহ-পাঠক্রমিক কার্যক্রমে এমন সাফল্য বিরল
২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে দেশ মাতৃকার স্বাধীনতার জন্যে যে সকল মুক্তি সেনানী বীরত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন তাঁদের মধ্য থেকে বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন জনকে বীরশ্রেষ্ঠ, বীর উত্তম, বীর বিক্রম ও বীর প্রতীক উপাধিতে ভূষিত করেন। বীর প্রতীক হচ্ছে চতুর্থ সর্বোচ্চ উপাধি। মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ৪২৬জন এই উপাধিতে ভূষিত হবার বিরল গৌরব অর্জন করেন। চাঁদপুরে যে ক'জন এই উপাধিটি পেয়েছেন তাঁদের মধ্যে সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নের মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী নামটি অনন্য মর্যাদায় সকল মহলে উচ্চারিত। তিনি মুক্তিযুদ্ধকালীন গণবাহিনী (সেক্টর-২)-এর আওতাধীন একজন আত্মঘাতী নৌকমান্ডো ছিলেন। স্বাধীনতোত্তরকালে তিনি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। একাধিক জেলায় পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্বপালন করতে গিয়ে তিনি যে দেশপ্রেম, সততা ও নিষ্ঠার পরিচয় দিয়েছেন তা তাঁর বাহিনীতে গৌরবোজ্জল অধ্যায় সংযোজন করেছে। তিনি কুচক্রীদের রোষানল ও ষড়যন্ত্র কবলিত হয়ে চাকুরি জীবনে নির্বিঘ্নে ছিলেন না। সেজন্যে তাঁকে আইনী লড়াই করতে হয়। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালনের সুযোগ পান। আইনী লড়াইয়ে জয়লাভ করে সরকারের সচিব পদমর্যাদায় অবসরগ্রহণ করেন এবং আনুষঙ্গিক সুযোগ-সুবিধাও পান। তিনি চাকুরি জীবনে ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ায় সফল উদ্যোক্তার পরিচয় দেন এবং অবসর জীবনে নিজ গ্রামে স্বনামে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ায় মনোযোগী হন। এ প্রতিষ্ঠানটির নাম বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমি।



চাঁদপুর শহরের প্রাণকেন্দ্র থেকে অন্তত ছয় কিলোমিটার দূরে ছায়াঘেরা গ্রামীণ পরিবেশে একাডেমিটির অবস্থান। প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে জনাব মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী জানান, ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে উন্নত ও আধুনিক শিক্ষাদানের পাশাপাশি আমরা সহ-পাঠক্রমিক কার্যক্রমকে গুরুত্ব সহকারে দেখছি। শিক্ষার্থীদের ক্রীড়া ও সংস্কৃতিমনস্ক করতে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। সে অনুযায়ী আশাব্যঞ্জক সাফল্যও অর্জিত হচ্ছে। এবার ৪৯তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন ইভেন্টে আমাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মোট ২২বার চ্যাম্পিয়ন-রানার্সআপ হবার কৃতিত্ব প্রদর্শন করেছে। একাডেমির ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ এমদাদুল হক বলেন, আমরা পড়াশোনার পাশাপাশি সবসময় খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চাকে গুরুত্ব দিয়ে আসছি। সেজন্যে শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনে পর্যাপ্ত ক্রীড়া উপকরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্রীড়া ও সঙ্গীত শিক্ষক এই একাডেমিতে শিক্ষার্থীদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকেন। শিক্ষার্থীরাও আগ্রহী হয়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে এবং প্রতিষ্ঠানের জন্যে সাফল্য বয়ে আনছে।



সত্যি কথা বলতে কি, চাঁদপুর জেলায় স্মরণকালে কোনো গ্রামীণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহপাঠক্রমিক কার্যক্রমকে এতোটা গুরুত্ব দেয়ার বিষয় কারোই চোখে পড়েনি, যেমনটি বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমিতে দৃশ্যমান। এবার ৪৯তম জাতীয় শীতকালীন ক্রীড়ায় এই একাডেমির শিক্ষার্থীদের সাফল্য আশাব্যঞ্জক শুধু নয়, শহর ও গ্রাম মিলিয়ে চাঁদপুর জেলার কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্যে অবশ্যই বিরল ঘটনা। আমরা এমন সাফল্যে বীর প্রতীক মমিন উল্লাহ পাটোয়ারী একাডেমির নিবেদিতপ্রাণ প্রতিষ্ঠাতা, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও সুযোগ্য শিক্ষকম-লীসহ সকল শিক্ষার্থীদেরকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই এবং এই সাফল্যের ধারা অব্যাহত রেখে শুধু চাঁদপুর জেলায় নয়, পুরো বাংলাদেশে একাডেমিটি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করুক এই প্রত্যাশা হার্দিকভাবেই করছি।


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫২০৩৪৭
পুরোন সংখ্যা