চাঁদপুর, সোমবার ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ১১ শাবান ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর ৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচিত এলাকার সাবেক সাংসদ এম এ মতিন (৮৫) মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহে....রাজিউন)।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৯-সূরা হাক্কা :


৫২ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


১৬। এবং আকাশ বিদীর্ণ হইয়া যাইবে আর সেই দিন উহা বিশ্লিষ্ট হইয়া পরিবে।


১৭। ফিরিশ্তাগণ আকাশের প্রান্তদেশে থাকিবে এবং সেই দিন আটজন ফিরিশ্তা তোমার প্রতিপালকের আরশকে ধারণ করিবে তাহাদের ঊধর্ে্ব।


 


assets/data_files/web

বেদনা হচ্ছে পাপের শাস্তি।


-বুদ্ধদেব।


 


 


স্বভাবে নম্রতা অর্জন কর।


 


মাছের চেয়ে মানুষ বড়, আর সেই সুযোগে
০৬ এপ্রিল, ২০২০ ১৫:৪১:২০
প্রিন্টঅ-অ+


মার্চ ও এপ্রিল দু’মাস চাঁদপুরের মেঘনা ও পদ্মা নদীতে জাটকা রক্ষায় চলে অভয়াশ্রম। কিন্তু এবার এই অভয়াশ্রম শুরুর এক সপ্তাহের মাথায় অর্থাৎ ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর সরকারের সকল প্রশাসন যন্ত্র বৈশি^ক মহামারী কোভিড-১৯ থেকে দেশের মানুষকে রক্ষায় যাবতীয় কর্মসূচি গ্রহণের প্রয়োজনে নড়েচড়ে বসে। ফলে মানুষ রক্ষা ছাড়া প্রশাসনের কাছে অন্য সকল কর্মসূচি বস্তুত গৌণ হয়ে পড়ে। জাটকা রক্ষায় নদীতে অভিযান পরিচালনায় মধ্য মার্চ পর্যন্ত জেলা মৎস্য বিভাগ, জেলা ও উপজেলা টাক্সফোর্স এবং কোস্টগার্ডকে অনেক বেশি সক্রিয় মনে হয়। তারা বেশ ক’টি সফল অভিযানও পরিচালনা করে। মধ্য মার্চের পর করোনার সংক্রমণ বাড়ার সাথে সাথে উপরোক্তদের অভিযানে শৈথিল্য আসে। এ সময় নৌ পুলিশের ব্যাপক সক্রিয় হবার সুযোগ আসে। কিন্তু এ সুযোগ কাজে লাগানোর দৃশ্যমান কিছুই চোখে পড়েনি কারোই। জাটকা রক্ষায় নৌ পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো প্রেস বিজ্ঞপ্তি ও প্রেস ব্রিফিং কিছুই গণমাধ্যমগুলোতে পরিলক্ষিত হয়নি। সে আলোকে বলা যায়, নৌ পুলিশ নিষ্ক্রিয় ছিলো। যার ফলে মেঘনা-পদ্মায় অভয়াশ্রম জাটকা রক্ষায় আনুকূল্য পায়নি। আনুকূল্য পেয়েছে তারা, যারা অবৈধভাবে জাটকা ও ইলিশসহ নদীর অন্যান্য মাছ আহরণে সুযোগের অপেক্ষায় ওঁৎ পেতে ছিলো। এই দুর্বৃত্ত চক্রটি অসাধু জেলেদের দিয়ে পূর্বের বছরগুলোর তুলনায় অনেক বেশি নির্বিঘেœ জাটকা, ইলিশসহ অন্যান্য মাছ ধরেছে এবং মাওয়াসহ বিভিন্ন স্থানে স্পীড বোট, লঞ্চ ও ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে সেগুলো পাচার করেছে। এমন পাচার করতে গিয়ে দুটি স্পীড বোটের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন পাচারকারীর মর্মান্তিক প্রাণহানিও ঘটেছে। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে ঘটে এই ঘটনা। এ ঘটনা সংক্রান্ত সংবাদ গতকালকের দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠে ফলাও করে ছাপা হয়েছে।

    এ সংবাদে লিখা হয়েছে, চাঁদপুর সদর উপজেলাধীন রাজরাজেশ^র ইউনিয়নের জাহাজমারা ও ল¹িমারা চর এলাকার দুটি মাছ ঘাটের চিহ্নিত ক’টি আড়তের বিপুল পরিমাণ জাটকা ও ইলিশ মাছ রাতের অন্ধকারে পাচারের উদ্দেশ্যে একটি স্পীডবোট মাওয়া যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা আরেকটি স্পীড বোটের ধাক্কায় দুজন চালক আহত হয় এবং দু আরোহী মর্মান্তিকভাবে প্রাণ হারায়। ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার রাতে আনুমানিক সাড়ে ৯টায় শরীয়তপুর জেলার নৌ-সীমানায় কাচিকাটা এলাকায়। আর ওই রাতভর রাজরাজেশ^র এলাকার নদীতে নৌপুলিশ অভিযান চালায় এবং ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা ও তিন জেলেকে আটক করে। জাটকা ও ইলিশ পাচারকালে এতো বড় দুর্ঘটনার পর নৌপুলিশ এমন অভিযান নিজেদের সক্রিয়তার প্রমাণ এবং দোষ সারানোর জন্যে করেছে কিনা সেটা নিয়ে সচেতন মহলে প্রশ্ন উঠেছে।

    চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার সংলগ্ন হরিসভা ও রণাগোয়াল এলাকায় এবং চাঁদপুর-শরীয়তপুর ফেরিঘাটের নিকটস্থ নরসিংহপুর ও আলুরবাজার এলাকায় শক্তিশালী চক্র অভয়াশ্রম চলাকালে অবৈধভাবে ইলিশের পোনা জাটকা, আস্ত ইলিশ ও অন্যান্য মাছ যে নৌ পুলিশের নাকের ডগায় ধরে চলছে সে ব্যাপারে চাঁদপুর কণ্ঠে গত কিছুদিন ধরে বার বার লিখা হচ্ছিল। করোনা পরিস্থিতিতে মাছের চেয়ে অনেক বেশি মূল্যবান মানুষকে বাঁচানোর লড়াইয়ে স্থানীয় প্রশাসন ব্যস্ত থাকার সুযোগে উক্ত চক্রটি যে সক্রিয় সেটি উক্ত লেখাগুলোতে উল্লেখ করা হয়। শেষ পর্যন্ত দৈবক্রমেই যেনো জাটকা ও ইলিশ পাচারকালে এমন দুর্ঘটনা ঘটলো, যা টনক নাড়িয়ে দিয়েছে অনেকের। দেখা যাক, এতে জাতীয় মাছ ইলিশের পোনা জাটকা রক্ষায় নৌ পুলিশের কাক্সিক্ষত অভিযান কঠোর হয় কিনা। এই অভিযান কঠোর না হলে এবার ইলিশের উৎপাদন যে মারাত্মকভাবে ব্যাহত হবে সেটা খুব সহজেই আগাম অনুমান করা যায়।


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৭৫৬৪৭০
পুরোন সংখ্যা