চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৩ অক্টোবর ২০১৬, ২৮ আশ্বিন ১৪২৩, ১১ মহরম ১৪৩৮-----
ckdf

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • হাজীগঞ্জে বসতঘর আগুনে পুড়ে ছাই || স্বাগতিক চাঁদপুরের কাছে ১ গোলে হেরেছে কুমিল্লা জেলা দল || শহরের নাজির পাড়ায় মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতাসহ সাইনবোর্ডে নাম মুছে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা || চাঁদপুর কলেজে অনুমতি ছাড়া ইশা ছাত্র আন্দোলন সম্মেলন ॥ আটক ২
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৬৪। বরং তিনি, যিনি আদিতে সৃষ্টি করেন, অতঃপর উহার পুনরাবৃত্তি করিবেন এবং যিনি তোমাদিগকে আকাশ ও পৃথিবী হইতে জীবনোপকরণ দান করেন। আল্লাহর সহিত অন্য কোন ইলাহ আছে কি? বল, তোমরা যদি সত্যবাদী হও তবে তোমাদের প্রমাণ পেশ কর। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন

assets/data_files/web

বিপদকে বিপদ দিয়েই অতিক্রম করা যায়।


                 -টমাস ফুলার।

মায়ের পদতলে সন্তানের বেহেশত।  


ফটো গ্যালারি
নিউমার্কেটে গেলে মেয়েরা সাবধান!
১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০৪:২৩:৫০
প্রিন্টঅ-অ+


  টুকটাক শপিং করতে আজ শুক্রবার রাজধানীর নিউমার্কেটে গেলাম। শপিং শেষে ফেরার পথে আমার বয়সী এক মেয়েকে দেখলাম ৪০ বছরের কাছাকাছি বয়সী এক নারীর সাথে ঝগড়া করছে। সাধারণত আমি এসব দেখলে এড়িয়ে চলি। কিন্তু দৃশ্যটি একটু অন্যরকম ঠেকল আমার কাছে। তাই অনিচ্ছা স্বত্তেও বিষয়টিতে জড়িয়ে গেলাম।

মেয়েটির অভিযোগ, সে যেই দোকানেই ঢুকছে অভিযুক্ত ওই নারী আরো ৫ জনসহ সেই দোকানেই যাচ্ছে। একসময় তারা তার ব্যাগ কেটে ভেতরের পার্স চুরি করে নিয়ে গেছে। তবে ওই মহিলা মেয়েটির সব অভিযোগ অস্বীকার করে। আমার গোয়েন্দা মন তখন উৎসুখ হয়ে উঠলো। পুরো ঘটনা শুনলাম। মহিলাকে জিজ্ঞেস করলাম, আপনার সাথের বাকি মহিলারা কোথায়?



সে জবাব দিলো- তারা চলে গেছে। তখন একটু ঝাড়ি দিলাম (অর্থাৎ বাড়ি দিলাম)। আপনারা অনেক বেড়ে গেছেন। গত সপ্তাহেও ধরলাম, বলছিলেন আর করবেন না। তখন ছেড়ে দিছিলাম। আজকেও আবার করলেন। তখন সে ঝাড়ি শুনে বলল, ভুল হয়ে গেছে, আর করবো না। মেয়েটি এবার একটু আশ্বাস পেলো। আর আশেপাশের লোকজন যারা এতক্ষণ মজা দেখছিলো, তারা এখন সবাই মহিলাকে মারতে আসলো



আমি বাধা দিয়ে বললাম, আগে চেক করে নেই। তখন ওই মহিলার ব্যাগ চেক করে দেখলাম ভেতরে আরো ২ টা পার্স ও কিছু ব্লেড। দুটো পার্সেই টাকা। কিন্তু কোন আইডি কার্ড নেই। থাকলে যাদের যাদের পার্স চুরি করেছে তাদের ব্যাগ ও বুঝিয়ে দিতাম।



যা-ই হোক, সন্দেহ ভাজন মহিলাকে কে যেন ভীড়ের মধ্যে মেরে বসল। আমি মহিলাকে টেনে ধরে পুলিশের কাছে নিয়ে গেলাম। সাথে সেই মেয়েটিকেও নিয়ে গেলাম। পুলিশের হাতে তুলে দিয়ে তাদেরকে সব ঘটনা বুঝিয়ে বললাম। আশা করি সেই মেয়েটির উপকার হয়েছে।



সাধারণ মানুষরা শুধু মারই দিতে জানে। যখন মেয়েটি অসহায়ের মতো মহিলাকে ধরে চিৎকার করছিল, তখন কেউ এগিয়ে আসেনি।

পুলিশ আশ্বস্ত করলো তারা সেই মেয়ের পার্স উদ্ধারে সহযোগিতা করবে। মেয়েরা একা নিউ মার্কেটে গেলে অবশ্যই সাবধান থাকবেন। সম্ভব হলে কাউকে নিয়ে যাবেন।


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪১৩৮৭৪
পুরোন সংখ্যা