চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১৪ জুন ২০১৬। ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৩। ৮ রমজান ১৪৩৭
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৪-সূরা নূর

৬৪ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মাদানি’

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৬। এবং যাহারা নিজেদের স্ত্রীর প্রতি অপবাদ আরোপ করে অথচ নিজেরা ব্যতীত তাহাদের কোনো সাক্ষী নাই, তাহাদের প্রত্যেকের সাক্ষ্য এই হইবে যে, সে আল্লাহর নামে চারিবার শপথ করিয়া বলিবে যে, সে অবশ্যই সত্যবাদী।  

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


নামে মানুষকে বড় করে না, মানুষই নামকে জাকাইয়া তোলে।  

-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।


যে কোনো ব্যক্তি অনুপস্থিত ব্যক্তির জন্যে দোয়া করলে তা অতি সত্বর কবুল হয়।

-হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরে বিদ্যুতের মহাবিপর্যয়
এএইচএম আহসান উল্লাহ
১৪ জুন, ২০১৬ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

চাঁদপুর শহরে বিদ্যুতের মহাবিপর্যয় দেখা দিয়েছে। শনিবার রাতের বজ্রপাতে চাঁদপুর পিডিবির যে ভয়াবহ ক্ষতি হয়েছে, তার ভোগান্তি এখনো পোহাতে হচ্ছে। গতকাল সোমবার রাত প্রায় ৮টার দিকে বিদ্যুৎ চলে যায়। সে বিদ্যুৎ সারারাত আসে নি। সে সমস্যা বা বিপর্যয় ঘটেছে তা স্থানীয়ভাবে সারানোর কোনো ব্যবস্থা নেই। টঙ্গী থেকে সে যন্ত্রপাতি এনে মেরামত করে আজ দিন লেগে যেতে পারে বিদ্যুৎ সঞ্চালন স্বাভাবিক করতে। জানালেন চাঁদপুর বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ) নির্বাহী প্রকৌশলী আফম মোস্তাফিজুর রহমান।

গত ১১ জুন শনিবার মধ্যরাত থেকে চাঁদপুরে স্মরণাতীতকালের ভয়াবহ বজ্রপাত হয়। এ বজ্রপাতে চাঁদপুর পিডিবির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। মহামূল্যবান যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যায়। যে কারণে শনিবার রাত ১২টা থেকে পরদিন রোববার দুপুর ১টা পর্যন্ত চাঁদপুর পিডিবির আওতাধীন কোথাও বিদ্যুৎ ছিলো না। জানা গেছে, বজ্রপাতে চাঁদপুর পাওয়ার গ্রীড স্টেশনের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিদ্যুৎ সাপ্লাই দেয়ার যে যন্ত্রপাতি যেমন ব্রেকার, সার্কিট, ডিভাইজ ইত্যাদি নষ্ট হয়ে গেছে। রোববার দুপুর ১টার পর বিকল্প পন্থায় বিদ্যুৎ সরবরাহ দেয়া হয়। গতকাল সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বিদ্যুৎ ছিলো চাঁদপুর শহরে। রাত প্রায় ৮টার দিকে বিদ্যুৎ চলে যায়। দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুৎ না আসায় রাত সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর পিডিবির নির্বাহী প্রকৌশলী আফম মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগযোগ করা হলে তিনি জানান, শনিবার রাতের বজ্রপাতে চাঁদপুর পাওয়ার স্টেশনের ২টি ডিভাইজের মধ্যে একটি নষ্ট হয়ে যায়। অপরটি দিয়ে কোনোরকমভাবে রোববার দুপুরে বিদ্যুৎ চালু করা হয়। আজ (গতকাল) সন্ধ্যায় সেটিও নষ্ট হয়ে যায়। তাই আজ কোনো পথ রইলো না পিডিবির কাছে চাঁদপুর শহরে বিদ্যুৎ দেয়ার। এখন সকল নিয়ম-প্রক্রিয়া বাদ দিয়ে জরুরি ভিত্তিতে টঙ্গী থেকে মালামাল আনা হচ্ছে। আজ ভোর নাগাদ হয়তো চাঁদপুর এসে পেঁৗছবে। এরপর সারাদিন কাজ করে আজকে দিনের শেষভাগে হয়তো বিদ্যুৎ দেয়া যেতে পারে।

এদিকে গতকাল চাঁদপুর কণ্ঠ পত্রিকার পেস্টিংসহ সকল কাজ শেষ করা হলেও রাতে বিদ্যুৎ আর না আসায় পত্রিকা ছাপানো সম্ভব হয়নি।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৩৩৮৪০
পুরোন সংখ্যা