চাঁদপুর। শনিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। ৬ ফাল্গুন ১৪২৩। ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • শুক্রবার সকালে হাজীগঞ্জের সৈয়দপুর সর্দার বাড়ির পুকুর থেকে শাহিদা আক্তার মুক্তা নামের এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ॥ স্বামী হাছান সর্দার পলাতক || হাজীগঞ্জের সৈয়দপুর সর্দার বাড়ির পুকুর থেকে শাহিদা আক্তার মুক্তা নামের এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ॥ স্বামী হাছান সর্দার পলাতক
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২০। সুলায়মান বিহংগদলের সন্ধান লইল এবং বলিল, ‘ব্যাপার কি, হুদ্হুদ্কে দেখিতেছি না যে! সে অনুপস্থিত না কি? 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


বিপ্লব হল সভ্যতার লালা স্বরূপ।


                                 -ভিক্টর হুগো।


বিনয় ও সৌজন্য ঈমানের দুই শাখা এবং বৃথা বাক্যলাপ ও জাঁকজমক কপটতা মুনাফেকির দুই শাখা।  


 

ফটো গ্যালারি
মতলব উত্তরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে পিঠা উৎসব
মাহবুব আলম লাভলু
১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


'পিঠার গন্ধে পাগল হয়ে ঘুরছি চুলার পাশে, কা- দেখে মা আমার মুখ লুকিয়ে হাসে' এ প্রবাদটি কালের আবর্তে এবং সংস্কৃতি থেকে হারিয়ে যাচ্ছে। কালের আবর্তে এবং সংস্কৃতি থেকে যাতে হারিয়ে না যায় তার জন্য মতলব উত্তরে ব্যাপক আয়োজনে পালিত হলো পিঠা উৎসব-২০১৭।



হাজী মঈন উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের আয়োজনে গতকাল শুক্রবার বিদ্যালয় মাঠে এ পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। উৎসবের ৬টি স্টলে ছিল অর্ধশতাধিক রকমের পিঠা। ৪টি স্টলে ছিল ফ্রি রং চা, দুধ চা, চিনি ছাড়া চা ও খাবার পানি। সকাল ১০টায় উদ্বোধনের মধ্যমে এ উৎসব শুরু হয়। উৎসবের উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম। উদ্বোধনের পরে চলের পিঠা দিয়ে অতিথি ও ছাত্র-ছাত্রীদের আপ্যায়ন করা হয়। পিঠা উৎসবকে প্রাণবন্ত করতে সারা দিনব্যাপী চলে আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।



ভালো মানুষ ও ভালো সমাজ গঠনের প্রত্যয়ে সামিল হওয়ার এ পিঠা উৎসবের পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সহধর্মিণী জেলা পরিষদের সদস্য ইয়াসমিন আহমদ। ইয়াসমিন আহমদের তত্ত্বাবধানে সারারাত শতাধিক মহিলা এ পিঠা তৈরি করেছেন। যে পিঠাগুলো উৎসবে ছিল চিতল পিঠা, ডালের হালুয়া পিঠা, নারিকেল পিঠা, ফুল পিঠা, দুধ চিতই পিঠা, ডিমের পিঠা, ছিম ফুল পিঠা, কামরাঙ্গা পিঠা, কেক পিঠা, চালতা পিঠা, জামাই বউ পিঠা, সাবু পিঠা, চেলি পিঠা, কুলি পিঠা, মারবেল পিঠা, খাজের পিঠা, হান্দেশ পিঠা, সুন্দরী পাকন পিঠা, বউ পিঠা, সংশা পিঠা, পাটিশাপটা, নারিকেলের নাড়ু পিঠা, চই পিঠা, ডালিয়া ফুল পিঠা, পাতা পিঠা ইত্যাদি।



পিঠা উৎসবের এ অনুষ্ঠান ছিল ব্যতিক্রমধর্মী। উৎসব অনুষ্ঠানে ছিল না সভাপতি কিংবা প্রধান অতিথি। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মফিজুল ইসলাম, চরকালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মনতোষ মজুমদার, হাজী মঈন উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের গোলাম মোস্তফা, শিক্ষক আবুল কালাম, ইব্রাহিম খলিল মিজি, নিজাম প্রধান, মহসিন রেজা, আযম খান, আহসান উল্লা মীর, মামুনুর রশীদ, কামরুজ্জামান শাহীন, নাজমুল হোসেন, নেওয়াজ শরীফ, গোরাম মোস্তফা নোমান, দেলোয়ার হোসেন, ইমান আলী, শামসুল ইসলাম, হাসান মাহমুদ, শাহীন মীর প্রমুখ।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৩১৪৩
পুরোন সংখ্যা