চাঁদপুর। শুক্রবার ২১ এপ্রিল ২০১৭। ৮ বৈশাখ ১৪২৪। ২৩ রজব ১৪৩৮
ckdf

সর্বশেষ খবর :

  • ঘূর্ণিঝড় মোরা লঘু চাপে পরিনত হয়েছে।।এর প্রভাবে চাঁদপুরে ঘুরিঘুরি বুষ্টি ||  এখনও পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় মোড়া চাঁদপুরে আঘাত হাননি।। ঘুরিঘুরি বৃষ্টিরও ধমকা হাওয়া বইছে ||  এখনও পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় মোড়া চাঁদপুরে আঘাত হাননি।। ঘুরিঘুরি বৃষ্টিরও ধমকা হাওয়া বইছে
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৯২। আমি আরও আদিষ্ট হইয়াছি, কুরআন তিলাওয়াত করিতে; অতএব যে ব্যক্তি সৎপথ অনুসরণ করে, সে সৎপথ অনুসুরণ করে নিজেরই কল্যাণের জন্যে। আর কেহ ভ্রান্ত পথ অবলম্বন করিলে তুমি বলিও, ‘আমি তো কেবল সতর্ককারীদের মধ্যে একজন।   


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 

একজন ভালো প্রশাসকই একজন ভালো রাজা হতে পারে।                      -মিচেল জিন। 


ধন দৌলত ফিরিয়া আসে এবং একটি শুধু কর্মই সঙ্গে থাকে।  


'চাঁদপুর সদরে এমন জমজমাট বিতর্ক আমি আর দেখিনি'
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
২১ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ভোরটায় যে এমন সোনালি রোদ্দুর হবে কেউ তা কল্পনাও করে নি। কারণ, যেখানে আগের দিন সন্ধ্যা নামার পর পরই বৃষ্টি শুরু হয়ে সুবহি সাদিকের আগ পর্যন্ত অনবরত বৃষ্টি হয়েছে ৮/৯ ঘণ্টা একটানা_ কখনো মুষলধারে, কখনো মাঝারি, আবার কখনো গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি। এমন একটি রাত পেরিয়ে সকালটা যে এতোটা রৌদ্রোজ্জ্বল হবে তা না ভাবারই কথা। আগের রাতে তো মহাচিন্তায় বিতর্কের আয়োজক ও সংগঠকরা। ভোরের আলো ছড়ানোর সাথে সাথেই তো বিতর্ক দলগুলোকে চাঁদপুর প্রেসক্লাবের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিতে হবে। রাত আড়াইটা-তিনটায়ও বৃষ্টির যে অবস্থা দেখা গেছে, থামার কোনো লক্ষণ ছিল না। তাহলে রাত পোহালেই যে ৯ম পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্ক প্রতিযোগিতার সদর উপজেলার প্রান্তিক পর্ব চাঁদপুর প্রেসক্লাব ও পৌর পাঠাগার ভেন্যুতে, তা কি করা সম্ভব হবে? বিতর্ক দলগুলো যদি না-ই আসতে পারে, তাহলে আর কীভাবে এ পর্বটি হবে। এমন দুশ্চিন্তা নিয়েই বিতর্ক শ্রমিক, সংগঠক তথা আয়োজকরা ঘুমাতে গেলেন। কিন্তু ঘুম তো আসে না। কখন ভোর হবে, আবহাওয়ার অবস্থা দেখবে-এ চিন্তাই শুধু মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল। এমন অবস্থায় যখন দেখা গেলো ভোরের আকাশটা স্বচ্ছ-পরিষ্কার, সূর্য তেজোদ্দীপ্ত ভাব নিয়ে উদয় হচ্ছে, তখন সব দুশ্চিন্তাই যেনো দূরীভূত হয়ে গেলো। বেলা বাড়ার সাথে সাথে সূর্যের কিরণ ছড়িয়ে পড়তে লাগলো। প্রকৃতি যেনো একথা জানান দিলো, আজ আমার সন্তানদের বুদ্ধির লড়াই, যুক্তির লড়াই। তাই আজ তাদের সাথে বৈরী আচরণ করা যাবে না। আয়োজকরা এবার খুশি মনে প্রস্তুতি নিতে লাগলেন বিতর্ক ভেন্যুর দিকে আসার। বিতর্ক শুরু হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। কিন্তু কী অবাক কা-! এই বিতর্কের আয়োজক সিকেডিএফ'র সাধারণ সম্পাদক রাজন চন্দ্র দে প্রেসক্লাব ভবনে এসে দেখেন মোট ২৮টি দলের মধ্যে ২৪টি দলই সাড়ে ৮টার মধ্যে উপস্থিত। অর্থাৎ সাড়ে ৮টার আগেই দলগুলো আসা শুরু করেছে। মাত্র ২টি দল সাড়ে ৮টার কিছুটা পরে এসেছে। আর ২টি দল একেবারে আসেই নি।



এই পুরো ঘটনাটি গতকাল ২০ এপ্রিল চাঁদপুর প্রেসক্লাব ও পৌর পাঠাগারে অনুষ্ঠিত ৯ম পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্ক প্রতিযোগিতার সদর উপজেলার প্রান্তিক পর্ব নিয়ে। বিতর্কের প্রতি শিক্ষার্থীদের এতোটা আসক্তি দেখে আয়োজক ও সংগঠকরা অনুপ্রাণিত হয়েছেন, তাঁদের শ্রমের সার্থকতা খুঁজে পেয়েছেন। একটানা বেলা ১২টা পর্যন্ত দু'টি ভেন্যুতে বেশ জমজমাট এবং উপভোগ্য বিতর্ক হয়েছে। তাই তো চাঁদপুরে এই বিতর্ক আন্দোলনের পুরোধা, সিকেডিএফ'র সভাপতি ও চাঁদপুর কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাতের উচ্ছ্বসিত উক্তি 'চাঁদপুর সদরে এমন জমজমাট বিতর্ক আমি আর দেখিনি।'



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫২৭৮২৮
পুরোন সংখ্যা