চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭। ৬ আশ্বিন ১৪২৪। ২৯ জ‌িলহজ ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সরকারি কলেজের অনার্স পড়ুয়া দুই ছাত্রীসহ তিন জনকে আটক করেছে ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ। হাজীগঞ্জে দুই কিশোর শিক্ষার্থীর উত্যক্তের কারণে হালিমা আক্তার (১৫) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। || হাজীগঞ্জে দুই কিশোর শিক্ষার্থীর উত্যক্তের কারণে হালিমা আক্তার (১৫) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৯-সূরা আনকাবূত


৬৯ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৬৪। এই পার্থিব জীবন তো ক্রীড়া-কৌতুক ব্যতীত কিছুই নহে। পারলৌকিক জীবনই তো প্রকৃত জীবন, যদি উহারা জানিত। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


তুমি যদি মৃত্যুহীন হতে চাও তবে সে জন্যে তোমাকে সৎ কাজ করতে হবে।


                         -জিকে হল্যান্ড।

অভ্যাগত অতিথির যথাসাধ্য সম্মান করা প্রত্যেক মুসলমানের অবশ্য কর্তব্য।


ইছাপুরা হাই স্কুলে হঠাৎ অর্ধশত শিক্ষার্থী অসুস্থ হাসপাতালে ভর্তি
মোঃ মঈনুল ইসলাম কাজল ও মোঃ মাহবুব আলম
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শাহরাস্তির ইছাপুরা উচ্চ বিদ্যালয়ের অর্ধশত শিক্ষার্থী আকস্মিকভাবে অজ্ঞাত রোগে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় এ ঘটনা ঘটে।



হাসপাতাল, বিদ্যালয় ও অসুস্থ শিক্ষার্থীর অভিভাবক সূত্রে জানা যায়, ওইদিন সকালে রূপা আক্তার নামে ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রী আকস্মিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে। ওই সময় কর্তব্যরত শিক্ষক সফিউল আলম বাদল ও সহপাঠী শিক্ষার্থীরা তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। এরপরই একের পর এক শিক্ষার্থী অসুস্থ হতে শুরু করে। ওই সময় অসুস্থ শিক্ষার্থীদের প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকরা প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দিতে শুরু করে। অসুস্থ শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় পুরো বিদ্যালয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা বিদ্যালয়ে ভিড় জমায়। শিক্ষক, অভিভাবক ও স্থানীয়রা তাৎক্ষণিক শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে বিভিন্ন স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি করার ব্যবস্থা করেন। অসুস্থ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১২জন শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েভর্তি হয়। তারা হলেন-৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী তানিয়া, ফাতেমা, তানজিনা সুলতানা, তানজিনা, রাবেয়া, উম্মে হানি, সাবেকুন্নাহার, সাবিনা ইয়াসমিন, আফসানা মিমি, পিয়ংকা রাণী, মাহমুদা। বাকি শিক্ষার্থীদের হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ ও স্থানীয় উয়ারুক মেডিল্যাব হসপিটালে ভর্তি করা হয়।



বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী সামিয়া আক্তার জানায়, ক্লাস শুরুর আগে রূপা আক্তার নামের ওই শিক্ষার্থী হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে রূপা বমি করতে শুরু করে। তার ওই অবস্থা দেখে পর্যায়ক্রমে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। হাসপাতালে উপস্থিত বিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, আমরা সকাল ৬টায় প্রাইভেটের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা হই। প্রাইভেট শেষে সাড়ে ৭টায় বিদ্যালয়ের কোচিং করতে হয়। কোচিং শেষে নিয়মিত ক্লাসে উপস্থিত হই। অধিকাংশ শিক্ষার্থী সকালে খালি পেটে বাড়ি থেকে বের হয়ে প্রাইভেট, কোচিং ও নিয়মিত ক্লাস করছে। এতে করে অনেক শিক্ষার্থীই না খেয়ে পুরো দিন স্কুল শেষে বিকেলে বাড়িতে ফিরে। ওই শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার ওই ঘটনা দেখে যারা না খেয়ে রয়েছে তাদেরও একই অবস্থার মুখোমুখি হতে হয়েছে।



বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া পাটোয়ারী জানান, বিদ্যালয়ের ক্লাস রুমে ৮ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে দেখে অন্য শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি।



শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্রে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ অচিন্ত্য কুমার চক্রবর্তী জানান, অসুস্থ শিক্ষার্থীদের শরীরে কোন উপসর্গ পাওয়া যায়নি। তারা সবাই গণমনোস্তাত্তি্বক রোগে আক্রান্ত। বর্তমানে সবাই আশঙ্কামুক্ত রয়েছে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে অসুস্থ শিক্ষার্থীদের দেখতে আসেন, টামটা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক দর্জি।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২৯
পুরোন সংখ্যা