চাঁদপুর। শনিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৮। ৭ মাঘ ১৪২৪। ২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
kzai
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরে মাসুদ রানা হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদন্ড ,, জেলা বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মো. শফিকুর রহমান ভুঁইয়া, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক কাজী গোলাম মোস্তফাকে আটক করেছে পুলিশ || বিক্ষোভ চলাকালে বিএনপি নেতা শফিকুর রহমান ভূঁইয়াসহ আটক ৫
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৪-সূরা সাবা

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মাক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৬। অতঃপর তারা অবাধ্যতা করল, ফলে আমি তাদের উপর প্রেরণ করলাম প্রবল বন্যা! আর তাদের উদ্যানদ্বয়কে পরিবর্তন করে দিলাম এমন দুই উদ্যানে, যাতে উদগত হয় বিস্বাদ ফলমূল, ঝাউ গাছ এবং সামান্য কুলবৃক্ষ।

১৭। এটা ছিল কুফরের কারণে তাদের প্রতি আমার শাস্তি। আমি অকৃতজ্ঞ ব্যতীত কাউকে শাস্তি দেই না।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


অভিজ্ঞতা হচ্ছে সুন্দর ও মজবুত দালান তৈরির উপকরণের মতো।

-ম্যানিলিয়াস।


নামাজে তোমাদের কাতার সোজা কর, নচেৎ আল্লাহ তোমাদের অন্তরে মতভেদ ঢালিয়া দিবেন।


ফটো গ্যালারি
বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ডাঃ বদরুন্নাহার চৌধুরীর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান
২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


 



১০ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী। গতকাল ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চাঁদপুর শহরের স্টেডিয়াম রোডস্থ নিজ বাসায় তিনি শতাধিক রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। এ বিষয়ে ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী বলেন, ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর আমাদের বিজয় দিবস হলেও মূলত ১০ জানুয়ারি বিজয়ী বাঙালি জাতি বিজয়ের আনন্দ উপভোগ করে। কারণ, ওইদিন বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে পা রাখেন। তাই দিনটিকে স্মরণ করে আমি গরিব-অসহায় মানুষদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছি।



তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে হয়তো আমরা স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ পেতাম না। তাঁর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ফলে ৯ মাসের সংগ্রাম আর বহু ত্যাগের বিনিময়ে আমরা বিশ্ব মানচিত্রে একটি স্বাধীন ভূখ- পেয়েছি। আজকে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আজকে যারা এখানে সেবা নিয়েছেন আমি তাদের অনুরোধ করেছি যাতে তারা বঙ্গবন্ধুর ও তার পরিবারসহ স্বাধীনতা সংগ্রামে নিহত সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করেন। পাশাপাশি তারা যেনো জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্যও দোয়া করেন। আমার বিশ্বাস, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ তার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পেঁৗছবেই।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৪৫৭০৩
পুরোন সংখ্যা