চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১৭ এপ্রিল ২০১৮। ৪ বৈশাখ ১৪২৫। ২৯ রজব ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • হাজীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই ভাইয়ের মৃত্যু
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭- সূরা আস-সাফফাত


১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩২। আমরা তোমাদেরকে পথভ্রষ্ট করেছিলাম। কারণ আমরা নিজেরাই পথভ্রষ্ট ছিলাম।


৩৩। তারা সবাই সেদিন শান্তিতে শরীক হবে।


৩৪। অপরাধীদের সাথে আমি এমনি ব্যবহার করে থাকি।


৩৫। তাদের যখন বলা হত, আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই, তখন তারা ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করত।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


উৎকৃষ্ট বীজ থেকেই উত্তম বৃক্ষ জন্ম নেয়।


-জনগে।


 


 


 


 


পিতার আনন্দে খোদার আনন্দ এবং পিতার অসন্তুষ্টিতে খোদার অসন্তুষ্টি


 


 


ফটো গ্যালারি
নিয়োগ পরীক্ষা অর্ধেক নেয়া শেষে পরীক্ষা স্থগিত!
কামরুজ্জামান টুটুল
১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


নিয়োগ পরীক্ষায় আবেদনকারীদের অর্ধেকের পরীক্ষা শেষ হতেই দিনের মাঝপথে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে পরীক্ষা স্থগিত করেছে নিয়োগ কমিটি। গতকাল সোমবার এমনটি ঘটে হাজীগঞ্জে। এতে করে পরীক্ষা দেয়া ও পরীক্ষা দিতে আসা পরীক্ষার্থীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়াসহ ক্ষোভ দেখা গেছে। তবে এ ঘটনায় উপজেলার শত শত গর্ভবতী মায়েরা ক্ষতির সম্মুখীন হবে বলে অনেকেই মত প্রকাশ করেছেন। ঠিক কবে নাগাদ এই পদে ফের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তা বলতে পারছে না কর্তৃপক্ষ। নিয়োগ পেলে উপযুক্তরা উপজেলার সকল গর্ভবতী মায়ের স্বাস্থ্যগত সমস্যার সমাধানসহ নারী স্বাস্থ্য সমস্যা নিয়ে কাজ করতেন।



খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সরকারের একটি প্রকল্পের মাধ্যমে ২০২২ সাল পর্যন্ত এ ৪ বছর মেয়াদ 'কাজ নেই, ভাতা নেই' (দৈনিক হাজিরা শেষে দৈনিক বেতন) এমন শর্তে নিয়োগ পরীক্ষার জন্য আবেদন গ্রহণ করে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়। দৈনিক পত্রিকার বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ক্লিনিক্যাল কন্ট্রাসেপশন সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রোগ্রাম (সিসিএসডিপি) অপারেশন প্ল্যানের আওতায় (কাজ নেই ভাতা নেই) জনবল (ঢ়ধরফ ঢ়ববৎ াড়ষঁহঃববৎং) নিয়োগ পরীক্ষার আবেদন চাওয়া হয়। সেই আবেদনের সূত্রে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষায় উপস্থিত হয় আবেদনকারীগণ। গত ১৫ এপ্রিল থেকে ১৭ এপ্রিল (৩ দিন) ২শ' ৩৪ জন প্রার্থীর নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হয়। এতে পরীক্ষার ১ম দিন (১৫ এপ্রিল) ৭৩ জনের পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়। ২য় দিন (১৬ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ১ পর্যন্ত পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে পরীক্ষা স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ।



উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, উক্ত নিয়োগ প্রক্রিয়া অনুষ্ঠিত হয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ২০১৭/১২/৩৬ নং স্মারকে। এই স্মারকটির আদেশ দেয়া হয় চলিত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি। ঐ স্মারকের সূত্রে জানা যায়, উক্ত নিয়োগ পরীক্ষার সভাপতি পদে থাকবেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। বাকিরা হলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, একজন চিকিৎসকসহ অপর একজন। উক্ত স্মারকের নিয়মে পরীক্ষা চলাকালীন সময় গতকাল সোমবার দুপুরে মন্ত্রণালয় থেকে ফের আরেকটি স্মারকের চিঠি পায় উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়। যার স্মারক নং ২০১৭/৫২, তারিখ-৪/৪/১৮ খ্রিঃ। এই স্মারকে উল্লেখ করা হয়েছে, নিয়োগ কমিটিতে পূর্বের নিয়োগকর্তাগণকে ঠিক রেখে স্থানীয় সংসদ সদস্যকে উপদেষ্টা , ইউএনওকে সহ-সভাপতি ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে সদস্য করে নিয়োগ পরীক্ষা রাখার বিধান দেয়া হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের যুগ্ম সচিব মোঃ নুরুল আমিনের স্বাক্ষরিত পত্র আসার পর পর নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করা হয়।



এদিকে নিয়োগ পরীক্ষা হঠাৎ করে স্থগিত করার বিষয়ে আবেদনকারী ও পরীক্ষার্থীদের মাঝে চরম ক্ষোভ দেখা গেছে। বেশ কয়েকজন আবেদনকারী নাম প্রকাশ না করার শর্তে চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, আমাদের এই নিয়োগের সর্বশেষ স্মারকে সচিবের স্বাক্ষর হয় চলিত মাসের ৪ তারিখে, আর আমরা পরীক্ষা দিতে আসলাম আজ ১৬ তারিখ। এতে বুঝা যায় তারা দায়িত্ববান বা দায়িত্বশীল নন। এ সময় পরীক্ষার্থীরা আরো বলেন, ঠিক এই পরীক্ষাটি ফের কবে কোন্ নিয়মে কীভাবে অনুষ্ঠিত হবে, আদৌ এই পরীক্ষাটি হবে কিনা আমাদেরকে এ বিষয়ে কিছুই নির্দেশনা দেয়া হয়নি।



এ বিষয়ে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা গোলাম মোস্তফা চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, মন্ত্রণালয়ের আদেশ কপি মেইলে পাওয়ার সাথে সাথে আমরা পরীক্ষা স্থগিত করেছি। পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য আমরা যোগাযোগ করে জানাবো।



নিয়োগ কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন : সভাপতি হিসেবে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, সদস্য হিসেবে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও সদস্য সচিব মেডিকেল অফিসার (এমসিএইচ-এফপি)।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬১৯৬৫৪
পুরোন সংখ্যা