চাঁদপুর । শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮ । ৬ শ্রাবণ ১৪২৫ । ৭ জিলকদ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৯-সূরা আয্-যুমার

৭৫ আয়াত, ৮ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৬১। আর যারা শিরক থেকে বেঁচে থাকতে, আল্লাহ তাদেরকে সাফল্যের সাথে মুক্তি দেবেন, তাদেরকে অনিষ্ট স্পর্শ করবে না এবং তারা চিন্তিতও হবে না।

৬২। আল্লাহ সর্বকিছুর স্রষ্টা এবং তিনি সবকিছুর দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

৬৩। আসমান ও জমিনের চাবি তাঁরই নিকট। যারা আল্লাহর আয়াতসমূহকে অস্বীকার করে, তারাই ক্ষতিগ্রস্ত।

৬৪। বলুন, হে মূর্খরা, তোমরা কি আমাকে আল্লাহ ব্যতীত অন্যের এবাদত করতে আদেশ করছ?

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন







                              





 


প্রকৃতি তার গোপন কথা একদিন বলবেই।

 -এমিলি ডিকের্ন্স।


যার হাত এবং জবান থেকে মানবজাতি নিরাপদ, তিনি খাঁটি মুসলমান।



 


ফটো গ্যালারি
ফরিদগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালের পুরস্কার বিতরণ
শেখ হাসিনার সরকারের সময়ে খেলাধুলাসহ সকল কিছুরই উন্নয়ন হয়
ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া এমপি
প্রবীর চক্রবর্তী
২১ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


‘সৃজনে উন্নয়নে বাংলাদেশ’ এ শ্লোগানকে ধারণ করে চাঁদপুরে দুই দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে এই সাংস্কৃতিক উৎসব উপলক্ষে চাঁদপুর শিল্পকলা একাডেমীর সামনে থেকে বর্ণাঢ্য উদ্বোধনী আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সামনে এসে শেষ হয়। পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনাতয়নে সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান।     তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে তার জ¦লন্ত প্রমাণ সরকার নিজস্ব অর্থায়নে দেশের ৬৪ জেলায় এই সাংস্কৃতিক উৎসব একযোগে শুরু করেছে। যেসব শিল্পী হারিয়ে যাচ্ছে, তাদের তুলে আনার চেষ্টা করছে সরকার। সরকারের ভিশন বাস্তবায়নে এটি একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ। সুন্দর ও আনন্দে ভরে উঠুক আমাদের মাঝে। দেশেপ্রেমের সাথে সম্পৃক্ত থেকে আমরা সরকারের উন্নয়ন কাজ করে যাবো।     তিনি আরো বলেন, আমরা এই সাংস্কৃতিক উৎসবের মধ্য দিয়ে চাঁদপুরকে উপস্থাপনা করার চেষ্টা করছি। আমরা এই জেলার শিকড়ের সন্ধানে রয়েছি। আমাদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত করতে হবে। শিল্প-সংস্কৃতিকে ঘিরে চাঁদপুরকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।      অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোহাম্মদ মঈনুল হাসানের সভাপ্রধানে বক্তব্য রাখেন জেলা স্কাউটস্ কমিশনার ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাবেক সাধারণ সম্পাদক অজয় কুমার ভৌমিক। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওয়ালী উল্লাহ অলি। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি তপন সরকার। স্বরলিপি নাট্যদলের সভাপতি এমআর ইসলাম বাবুর সমন্বয়ে আবৃত্তিকার দ্বিপান্বিতা দাস ও এহসানুল ফেরদৌসের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।      উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, এনএসআই-এর উপ-পরিচালক এবিএম ফারুক, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর নির্বাহী সদস্য শহীদ পাটোয়ারী, রূপালী চম্পক, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তাফা বাবুসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তাগণ। উৎসবের প্রথমদিন সাং¯ৃ‹তিক অনুষ্ঠান ও সংগীত পরিবেশ করেন হরেকৃষ্ণ ঘোষ ও তার দল, চাঁদপুর সরকারি মহিলা কলেজে ছাত্রীবৃন্দ, আনন্দধ্বনি সংগীত শিক্ষায়তন, সপ্তরূপা নৃত্য শিক্ষালয়, সপ্তসুর সংগীত একাডেমী, সরকারি শিশু পরিবার, চাঁদপুর হিজড়া সম্প্রদায়, অনন্যা নাট্যগোষ্ঠী ও চাঁদপুর ড্রামা, রূপালী চম্পক, চম্পক সাহা, দীপান্বিতা দাস, সামীম খান, তাহমিনা হারুন, মৃণাল সরকার।


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৪৭৯২৮
পুরোন সংখ্যা