চাঁদপুর । শনিবার ২১ জুলাই ২০১৮ । ৬ শ্রাবণ ১৪২৫ । ৭ জিলকদ ১৪৩৯
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৯-সূরা আয্-যুমার

৭৫ আয়াত, ৮ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৬১। আর যারা শিরক থেকে বেঁচে থাকতে, আল্লাহ তাদেরকে সাফল্যের সাথে মুক্তি দেবেন, তাদেরকে অনিষ্ট স্পর্শ করবে না এবং তারা চিন্তিতও হবে না।

৬২। আল্লাহ সর্বকিছুর স্রষ্টা এবং তিনি সবকিছুর দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

৬৩। আসমান ও জমিনের চাবি তাঁরই নিকট। যারা আল্লাহর আয়াতসমূহকে অস্বীকার করে, তারাই ক্ষতিগ্রস্ত।

৬৪। বলুন, হে মূর্খরা, তোমরা কি আমাকে আল্লাহ ব্যতীত অন্যের এবাদত করতে আদেশ করছ?

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন







                              





 


প্রকৃতি তার গোপন কথা একদিন বলবেই।

 -এমিলি ডিকের্ন্স।


যার হাত এবং জবান থেকে মানবজাতি নিরাপদ, তিনি খাঁটি মুসলমান।



 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক
দেশনেত্রীকে মুক্তি দেয়া না হলে অচিরেই দুর্বার আন্দোলন
মিজানুর রহমান
২১ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার, নিঃশর্ত মুক্তি এবং তাঁর সুচিকিৎসার দাবিতে চাঁদপুর জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে গতকাল ২০ জুলাই শুক্রবার সকালে  দলীয় কার্যালয়ে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপ্রধানের বক্তব্য রাখেন বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির প্রবাসীকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ও  চাঁদপুর জেলা আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক।     তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। যদি মুক্তি দেয়া না হয় তবে অচিরেই দুর্বার আন্দোলন ঘোষণা হবে। খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে কার্যকর ভূমিকা পালন করার জন্যে চাঁদপুর জেলা বিএনপি প্রস্তুত রয়েছে। পৌর যুবদল নেতা রাজ্জাক হাওলাদার, জাহাঙ্গীর মুন্সী ও খালেক মিথ্যা মামলায় কারাগারে আছেন। তাদেরসহ জাতীয়তাবাদী দলের সকল নেতা-কর্মীর মুক্তি দাবি করে শেখ মানিক বলেন, আমাদের নেতা তারেক রহমানের পরামর্শে আমরা যুবদল ও ছাত্রদলকে পুনঃগঠন করেছি। আগামীতে অন্যান্য অঙ্গ-সংগঠনগুলোতেও পরিবর্তন আনা হবে। তিনি আরো বলেন, জনগণের পয়সায় পুলিশ বেতন নেয়, অথচ বিএনপি যখন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নামে তখন পুলিশ বিএনপির ওপর আক্রমণাত্মক ভাব দেখায়। তিনি বিএনপির প্রতি পুলিশবাহিনীর এই আক্রমণ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ধৈর্যের বাঁধ ভেঙ্গে গেলে বিএনপিকে কেউ দাবিয়ে রাখতে পারবে না। সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডঃ সলিম উল্যাহ সেলিম, মাহাবুব আনোয়ার বাবলু, সেলিমুস সালাম, আক্তার হোসেন মাঝি, ফেরদৌস আলম বাবু, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ হারুনুর রশিদ। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মুনির চৌধুরী।     উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ শামসুল ইসলাম মন্টু, পৌর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আঃ কাদের বেপারী, সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফ উদ্দিন পলাশ, অর্থ সম্পাদক কাইয়ুম খান, বিএনপি নেতা মিজান পাটওয়ারী, সদর উপজেলা বিএনপির যুুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী খান, সাবেক কমিশনার আলী আহাম্মদ সরকার, জেলা আইনজীবী ফোরামের সভাপতি অ্যাডঃ কামাল উদ্দিন আহমেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক অ্যাডঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, সদস্য সচিব হযরত আলী ঢালী, জেলা মহিলা দলের সভানেত্রী অ্যাডঃ মনিরা বেগম চৌধুরী, শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান ভঁূইয়া, জেলা যুবদলের সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন চান্দু, সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন খান আকাশ, সহ-সভাপতি মানিকুর রহমান মানিক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ বাহার, জেলা কৃষক দলের সভাপতি এনায়েত উল্লাহ খোকন, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, শাহরাস্তি উপজেলা যুবদলের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন মিলন, সদর উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি শাহিনা আক্তার সানু, সাধারণ সম্পাদক নাসরিন আক্তার, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক সোলায়মান ঢালী, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক মেরাজ চোকদার, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ইমান হোসেন গাজী, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন পাটওয়ারী, জেলা যুবদল নেতা সরোয়ার গাজীসহ নেতৃবৃন্দ। এদিন বিক্ষোভ সমাবেশকে সফল করার জন্যে খ- খ- মিছিল নিয়ে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা জেলা বিএনপি কার্যালয়ে জড়ো হয়। সমাবেশের শেষদিকে পুরাণবাজার থেকে ওয়ার্ড যুবদলের দুটি পৃথক মিছিল দলীয় কার্যালয়ের দিকে আসতে চাইলে পুলিশে তাদের ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।  ৮বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় এইচএসসি প্রোগ্রাম ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের পরিচিতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ২০ জুলাই শুক্রবার সকাল ১১টায় চাঁদপুর পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজ স্টাডি সেন্টার (৭০০) চাঁদপুর সদরের আয়োজনে কলেজ মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানের দায়িত্ব পালন করেন কলেজের অধ্যক্ষ ও সমন্বয়কারী অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর উপ-আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ ইব্রাহিম খলিল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ আহম্মদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন স্টাডি সেন্টার সমাজকর্ম বিভাগীয় প্রধান মোঃ ইমান হোসেন। বক্তাগণ বলেন, যে সকল শিক্ষার্থী বিভিন্ন কারণে সরকারি-বেসরকারি কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পায় না বা প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত সময়ে ক্লাস করতে পারে না, সে সকল শিক্ষার্থীর লেখাপড়ার সুযোগ সৃষ্টি করার জন্যই বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সৃষ্টি হয়েছে। এই বিশ্ববিদ্যালয় হতে যারা উত্তীর্ণ হবে তারা অন্যান্য কলেজ, বিশ্ববিদ্যলয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মতই সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবে। তোমরা ছাত্র- ছাত্রীরা যদি ভালোভাবে পড়ালেখা শিখে ভালো ফলাফল অর্জন করতে পারো, তাহলে তোমাদের অগ্রযাত্রাকে কেউ বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না। শিক্ষা অর্জনের ক্ষেত্রে তোমাদের সামনে অনেক সুযোগ-সুুবিধা রয়েছে। তোমরা যদি এ সকল সুযোগ-সুুবিধা কাজে লাগাতে পারো, তাহলে জীবনের সর্বক্ষেত্রে তোমরা সফলতা লাভ করতে পারবে। এজন্যে তোমাদের চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। সভায় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের উপাধ্যক্ষ মোঃ আনোয়ার উল্লাহ, স্টাডি সেন্টারের শিক্ষক সুজয় দাস, একেএম ফজলুর রব, মোঃ হাবিব উল্যাহ, শিরিন আক্তার, হাফিজা মজিব, নূপুর বিশ্বাস, শামীম সুলতান, শাহানারা বেগম প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ১ম বর্ষের ছাত্রী আকলিমা আক্তার ও পবিত্র গীতা পাঠ করেন ১ম বর্ষের ছাত্রী শিবানী রাণী। অনুষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীরা মনোজ্ঞ সংগীত পরিবেশন করে। উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সালে চাঁদপুর পুরাণবাজার ডিগ্রি কলেজে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩১০জন আর ২য় বর্ষের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২৪০ জন। ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক এ ২টি গ্রুপে প্রতি শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় এ ক্যাম্পাসে নিয়মিত ক্লাস হয়।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১২০১৬৬
পুরোন সংখ্যা