চাঁদপুর। শুক্রবার ১০ আগস্ট ২০১৮। ২৬ শ্রাবণ ১৪২৫। ২৭ জিলকদ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু’মিন

৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩৪। ইতিপূর্বে তোমাদের কাছে ইউসুফ সুস্পষ্ট প্রমাণাদিসহ আগমন করেছিলো, অতঃপর তোমরা তার আনীত বিষয়ে সন্দেহই পোষণ করতে। অবশেষে যখন সে মারা গেলো, তখন তোমরা বলতে শুরু করলে, আল্লাহ ইউসুফের পরে আর কাউকে রসূলরূপে পাঠাবেন না। এমনিভাবে আল্লাহ সীমালঙ্গনকারী, সংশয়ী ব্যক্তিকে পথভ্রষ্ট করেন।

৩৫। যারা নিজেদের কাছে আগত কোনো দলিল ছাড়াই আল্লাহর আয়াত সম্পর্কে বিতর্ক করে, তাদের একজন আল্লাহ ও মুমিনদের কাছে খুবই অসন্তোষজনক। এমনিভাবে আল্লাহ প্রত্যেক অহঙ্কারী-স্বৈরাচারী ব্যক্তির অন্তরে মোহর এঁটে দেন।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


উপন্যাস মানুষকে জীবন সম্পর্কে সচেতন করে তোলে।

 -রবার্ট হেনরিক।


কাউকে অভিশাপ দেওয়া সত্যপরায়ণ ব্যক্তির উচিত নয়।



 


চতুরঙ্গের ১০ম ইলিশ উৎসবের প্রস্তুতি সভা
স্টাফ রিপোর্টার
১০ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


'জেগে উঠো মাটির টানে' এই সস্নোগানকে নিয়ে দশমবারের মতো চতুরঙ্গ আয়োজন করতে যাচ্ছে প্রাণ ফ্রুটিকস ইলিশ উৎসব। সপ্তাহব্যাপী ইলিশ উৎসব উদ্যাপনকল্পে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। চতুরঙ্গের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ বিনয় ভূষণ মজুমদারের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব হারুন আল রশীদের পরিচালনায় বক্তারা বলেন, ১০ম ইলিশ উৎসব যেন আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে উদ্যাপন করে সমাপ্ত করতে পারি। চতুরঙ্গ সাংস্কৃতিক সংগঠন ৩৬ বছরে পদার্পণ করেছে। চাঁদপুরের সাংবাদিকরা চতুরঙ্গের আয়োজনে ইলিশ উৎসবকে তাদের লেখনিতে প্রকাশ করেছে বলেই আমরা ১০ম বারের মতো ইলিশ উৎসব করতে যাচ্ছি। তাই চাঁদপুরের সাংবাদিকদেরকে ধন্যবাদ জানাই। ইলিশের বাড়ি চাঁদপুর, আর এই ইলিশের বাড়ি হয়েছে ইলিশ উৎসবের কারণেই।



এ বছর ১৯টি সাংস্কৃতিক সংগঠন সপ্তাহব্যাপী ইলিশ উৎসবে অংশগ্রহণ করবে। বাংলাদেশের বাইরের একটি ও দেশের বিভিন্ন জেলার আরও ৫টি এবং চাঁদপুরের ১৩টি সংগঠনসহ মোট ১৯টি সংগঠন অংশগ্রহণ করবে। প্রথম যখন ইলিশ উৎসব করা হয় তখন ৩ দিন করা হয়েছিল। দেখতে দেখতে আজ ১০ বছরে এসে দাঁড়িয়েছে। প্রতি বছর ইলিশ উৎসবে যে পরিমাণে প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে তাতে মনে হয় ইলিশ উৎসব সুদূর প্রসারিত হয়েছে। সভায় বক্তব্য রাখেন ইলিশ উৎসবের আহ্বায়ক চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমির মহাপরিচালক রোটাঃ কাজী শাহাদাত, চতুরঙ্গের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা অজিত সাহা, সম্মিলিত সাংষ্কৃতিক জোট চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি তপন সরকার, সাংস্কৃতিক চর্চাকেন্দ্রের সদস্য সচিব ইয়াহিয়া কিরন, বঙ্গবন্ধু আবৃত্তি পরিষদ চাঁদপুর জেলা শাখার সভাপতি পীযূষ কান্তি রায় চৌধুরী, জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন রাসেল, টিআইবির রাজন চন্দ্র দে, মৎস্যজীবী নেতা মালেক বেপারী, তছলিম বেপারী, কান্ট্রি ফিশিং বোট মালিক সমিতির সভাপতি শাহআলম মলি্লক, হাইমচরের মৎস্যজীবী নেতা মানিক দেওয়ান, কণ্ঠশিল্পী কৃষ্ণা সাহা, ইতু চক্রবর্তী, অনিতা নন্দী, সাংবাদিক কেএম মাসুদ, লেখক রফিকুজজ্জামান রনি, কণ্ঠশিল্পী সুভ্র রক্ষিত, অনলাইন সাংবাদিক সুমন পাটওয়ারী প্রমুখ।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮০৯৫৬
পুরোন সংখ্যা