চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ২৯ ভাদ্র ১৪২৫। ২ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুরের নতুন জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগ দেবেন মোঃ কামরুজ্জামান। তিনি বর্তমানে এলজিইডি মন্ত্রণালয়ে উপ-সচিব হিসেবে কর্মরত আছেন।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৩। তোমাদের প্রতিপালক সম্বন্ধে তোমাদের এই ধারণাই তোমাদের ধ্বংস এনেছে। ফলে তোমরা হয়েছো ক্ষতিগ্রস্ত।

২৪। এখন তারা ধৈর্যধারণ করলেও জাহান্নামই হবে তাদের আবাস এবং তারা অনুগ্রহ চাইলেও তারা অনুগ্রহ প্রাপ্ত হবে না।

২৫। আমি তাদের জন্যে নির্ধারণ করে দিয়েছিলাম সহচর যারা তাদের সম্মুখ ও পশ্চাতে যা আছে তা তাদের দৃষ্টিতে শোভন করে দেখিয়েছিল এবং তাদের ব্যাপারেও তাদের পূর্ববর্তী জি¦ন ও মানবদের ন্যায় শাস্তির কথা বাস্তব হয়েছে। তারা তো ছিল ক্ষতিগ্রস্ত।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


সব সমস্যার প্রতিকার হচ্ছে ধৈর্য ও চেষ্টা।

-প্লুটাস।


ন্যায়পরায়ণ বিজ্ঞ নরপতি আল্লাহ’র শ্রেষ্ঠ দান এবং অসৎ মূর্খ নরপতি তার নিকৃষ্ট দান।



 


ফটো গ্যালারি
গরিব ও অসহায়দের মাঝে ১০ টাকা কেজির চাল বিক্রি শুরু
স্টাফ রিপোর্টার
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


'ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ' শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও গরিব ও অসহায়দের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি শুরু করেছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক হতদরিদ্রদের মাঝে এ চাল বিক্রি করা হচ্ছে। চাঁদপুরে বিভিন্ন পৌরসভা, উপজেলা এবং ইউনিয়নে ডিলারদের মাধ্যমে কার্ডধারী গরিব ও অসহায় পরিবারের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি করে চাল বিক্রি চলছে।



গতকাল ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার চাঁদপুর সদর উপজেলার ১০নং লক্ষ্মীপুর, ৯নং বালিয়া, ৮নং বাগাদী ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে একাধিক ডিলারের মাধ্যমে এ চাল বিতরণ করা হয়। তবে কোথাও কোথাও ৩০ কেজি চাল বিক্রির কথা থাকলেও উল্লেখিত পরিমাণের চেয়ে দু-এক কেজি কম করে বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।



এ বিষয়ে ডিলারদের বক্তব্য হলো, চাল বিক্রির ক্ষেত্রে পরিবহন এবং শ্রমিকসহ নানা খাতে অনেক খরচ রয়েছে। তাছাড়া গোডাউন থেকেও তাদের চাল ওজনে কম দেয়া হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে অনেকেই ৩০ কেজির পরিবর্তে দু-এক কেজি করে কম বিক্রি করছে। তবে অনেক ডিলারই বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তাদের দাবি, অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে প্রতি কার্ডধারীর নিকট ৩০ কেজি করে চাল বিক্রি করা হচ্ছে।



১০নং লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের বেপারী বাজারে ডিলার মোঃ ইউনুছ গাজীর মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে চাল বিক্রি করা হয়। ওই এলকায় কার্ডধারীর সংখ্যা ৫শ' ৪৮জন। সেখানে ট্যাগ অফিসার নূরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা নাজমুল গাজী, ডিলার প্রতিনিধি ইকবাল হোসেন ও জাহাঙ্গীরসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। একই ইউনিয়নের বহরিয়া বাজারের ডিলার হোসেন গাজীর মাধ্যমে ১০ টাকা কেজি দরে ৪শ' ৮৬ জন কার্ডধারীর মাঝে চাল বিক্রি করা হয়। চাল বিক্রি পরিচালনা করেন ডিলার হোসেন গাজী, প্রতিনিধি ফিরোজ বেপারী ও দেলোয়ার বেপারীসহ অন্যরা।



এর আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর চাঁদপুর সদরের বাগাদী ইউনিয়নে সুশৃঙ্খলভাবে চাল বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বেলায়েত হোসেন গাজী বিল্লাল। একই দিনে বালিয়া ইউনিয়নের ডাইনেগো বাড়ি এলাকায় ডিলার মোঃ হারুনের মাধ্যমে চাল বিতরণ উদ্বোধন করেন ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ তাজুল ইসলাম মিজি।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪৬৩৫
পুরোন সংখ্যা