চাঁদপুর। সোমবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ৯ আশ্বিন ১৪২৫। ১৩ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের দেবপুর বড়হুজুরের বাড়িতে ২ শিশুসন্তানসহ একই পরিবারের ৪জন মারা গেছেন। || চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের দেবপুর বড়হুজুরের বাড়িতে ২ শিশুসন্তানসহ একই পরিবারের ৪জন মারা গেছেন। || চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের দেবপুর বড়হুজুরের বাড়িতে ২ শিশুসন্তানসহ একই পরিবারের ৪জন মারা গেছেন। || চাঁদপুর সদর উপজেলার ৫ নং রামপুর ইউনিয়নের দেবপুর বড়হুজুরের বাড়িতে ২ শিশুসন্তানসহ একই পরিবারের ৪জন মারা গেছেন।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪৯। মানুষ কল্যাণ (ধন-সম্পদ) প্রার্থনায় কোন ক্লান্তিবোধ করে না; কিন্তু যখন তাকে দুঃখ-কষ্ট স্পর্শ করে তখন সে অত্যন্ত নিরাশ ও হতাশ হয়ে পড়ে।

৫০। দুঃখ-কষ্ট স্পর্শ করবার পর যদি তাকে আমি অনুগ্রহের আস্বাদ দিই তখন সে বলেই থাকে : এটা আমার প্রাপ্য এবং আমি মনে করি না যে, কিয়ামত সংঘটিত হবে, আর আমি যদি আমার প্রতিপালকের নিকট প্রত্যাবর্তিত হইও তবে তাঁর নিকট তো আমার জন্যে কল্যাণই থাকবে। আমি কাফিরদেরকে তাদের কৃতকর্ম সম্বন্ধে অবশ্যই অবহিত করবো এবং তাদেরকে আস্বাদান করাবো কঠোর শাস্তি।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন



 


যে মানুষ রাস্তায় থাকে সে আকাশের তারার খোঁজ রাখে না।                    


-ইমারসন।


যারা সংসার থেকে চলে গেছে তাদের দোষ কীর্তন করো না।



 


ফটো গ্যালারি
হাজীগঞ্জে শোহাদায়ে কারবালা ও শহীদ নুরুল ইসলাম ফারুকী (রহঃ)'র স্মরণসভা ও নাতে রাসূল (সাঃ) মাহফিল
চাঁদপুর-৫ আসনে ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী মাওঃ আবু সুফিয়ান
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


গত ২২ সেপ্টেম্বর শনিবার হাজীগঞ্জ উপজেলার মধ্যবাজার বালুরমাঠে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট হাজীগঞ্জ উপজেলা শাখার আয়োজনে 'শোহাদায়ে কারবালা ও শহীদ আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকী (রহঃ)'র স্মরণে এক বিশাল স্মরণ সভা ও নাতে রাসূল (সাঃ) মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল ৫টা ১৫ মিনিট থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এ স্মরণসভা চলে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট হাজীগঞ্জ উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি মুফতি মাওঃ ফজলুল কাদের বাগাদাদী। এ স্মরণসভা এক পর্যায়ে বিশাল নির্বাচনী জনসভায় পরিণত হয়। হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে চাঁদপুর-৫ আসনে ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী হিসেবে মাওঃ আবু সুফিয়ান খান আল কাদেরীর নাম ঘোষণা করা হয়।



অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত জাতীয় জোটের শীর্ষ নেতা ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব আল্লামা এম এ মতিন। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী একমাত্র ইসলামী রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট। আর এ দলটির প্রতীক হচ্ছে মোমবাতি। সে দলের অন্যতম প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকীকে নির্মমভাবে শহীদ করা হলো এবং আজকে ৪টি বছর অতিবাহিত হয়ে গেলো। অথচ আজও আমরা তাঁর হত্যার বিচার পেলাম না। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, প্রতিবছর ১৫ আগস্ট আপনি এবং বাঙালি জাতি যেমন আপনার স্বজন হারানোর বেদনায় কাঁদে, এ দেশের প্রত্যেকটি সরলমনা মুসলমানও ২৭ আগস্ট আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকীর জন্যে কাঁদেন। অনতিবিলম্বে শহীদ নূরুল ইসলাম ফারুকীর হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবি জানিয়ে তিনি সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরেও যদি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচার হতে পারে, তাহলে আপনারা বিচার না করলেও আগামী ৫০ বছর পর হলেও ইসলামী ফ্রন্ট ক্ষমতায় গিয়ে একদিন বাংলার মাটিতে ফারুকী হত্যার বিচার করবে। তিনি তাঁর বক্তব্যে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চাঁদপুর-৫ আসনে (হাজিগঞ্জ-শাহরাস্তি) বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী আল্লামা আবু সুফিয়ান খান আবেদী আল কাদেরীর নাম ঘোষণা করে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, আজ দেশের সকল সুফি-দরবেশ, পীর-মাশায়েখ ও আলেম সমাজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। আর ঘুমিয়ে থাকার সময় নেই। এখনি সময় সুখী-সমৃদ্ধ ও শান্তির দেশ গড়ে তোলার। তাই ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা মোমবাতি মার্কায় ভোট দিবেন এবং আপনাদের অধিকারগুলো আপনাদের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার সুযোগ দিবেন। তিনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা আর বিলম্ব না করে আগামীকাল থেকেই মাঠে ময়দানে কাজ শুরু করুন এবং হাজিগঞ্জ -শাহরাস্তির শান্তিপ্রিয় জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে মোমবাতির পক্ষে সকল স্তরের মানুষের কাছে ভোট দেয়ার আহ্বান নিয়ে হাজির হন।



অনুষ্ঠানে ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা, ছাত্রসেনার জেলা ও বিভিন্ন উপজেলার নেতা-কর্মী এবং হাজীগঞ্জের সর্বস্তরের সুন্নী জনতা উপস্থিত হন। দুপুর ৩টার পর থেকে সভাস্থলে মানুষ আসতে থাকে এবং আস্তে আস্তে হাজার হাজার মানুষের ঢলে মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে জনসমুদ্রে পরিণত হয়।



অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা আবু সুফিয়ান খান আবেদী আল কাদেরী (মা.জি.আ.)। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঘনিয়া ছাইদিয়া দরবার শরীফের পীর সাহেব আল্লামা হাফেজ জুনায়েদুল হক নকশেবন্দী মোজাদ্দেদী (মা.জি.আ), যুগ্ম-মহাসচিব ও চাঁদপুর জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ মাওঃ আবু জাফর মোঃ মাঈনুদ্দিন, কেন্দ্র্রীয় সিনিয়র যুগ্ম-সাংগঠনিক সচিব সৈয়দ মুজাফফর আহমদ মুজাদ্দেদী, চান্দ্রা দরবার শরীফের পীর সাহেব হযরতুল আল্লামা হুজ্জাতুল্লাহ নকশেবন্দী (মা.জি.আ), কুমিল্লার শাহপুর দরবার শরীফের পীর সাহেব আলহাজ্ব গোলাম আব্দুল কাদের কাওকাব (মা.জি.আ), সাদ্রা দরবার শরীফের পীর সাহেব অধ্যক্ষ আল্লামা জাকারিয়া মাদানী (মা.জি.আ), হযরত মাদ্দাহ খাঁ (রহঃ) কমপ্লেঙ্রে মুতাওয়াল্লী কাজী খাইরুল আলম পারভেজ এবং জেলা গাউছিয়া কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ শাহ জামাল তালুকদার।



অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাংগঠনিক সচিব আল্লামা আ.ন.ম মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী। বিশেষ বক্তা ছিলেন ইসলামী ফ্রন্টের জেলা সাধারণ সম্পাদক এএইচএম আহসান উল্লাহ, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ নূরুল আলম মজুমদার, অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হুমায়ুন কবির, যুবসেনা কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ মোঃ আবু আজম, ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সাবেক সভাপতি মোঃ ছাদেকুর রহমান খান এবং বর্তমান কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম শহীদুল্লাহ।



এছাড়াও বক্তব্য রাখেন যুবসেনার জেলা সভাপতি পীরজাদা মাওঃ খাজা মোঃ জোবায়ের, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ বিল্লাল হোসেন, ছাত্রসেনার জেলা সভাপতি মুহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাদরুদ্দোজাসহ জেলা ও বিভিন্ন উপজেলার নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে অনতিবিলম্বে আল্লামা শায়খ নূরুল ইসলাম ফারুকী হত্যার বিচার ও আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মোমবাতির পক্ষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান।



স্মরণ সভা শেষে নাতে রাসূল (সাঃ) মাহফিল এবং মিলাদ ও মুনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৯২৫১৯৪
পুরোন সংখ্যা