চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর ২০১৮। ২৬ আশ্বিন ১৪২৫। ৩০ মহররম ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • হাজীগঞ্জে আটককৃত বিএনপি'র ১৭ নেতাকর্মীকে জেলহাজতে প্রেরন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪২-সূরা শূরা


৫৪ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩০। তোমাদের যে বিপদ-আপদ ঘটে তা তো তোমাদেরই হাতের কামাইয়ের ফল এবং তোমাদের অনেক অপরাধ তিনি ক্ষমা করে দেন।


৩১। তোমরা পৃথিবীতে (আল্লাহকে) ব্যর্থ করতে পারবে না এবং আল্লাহ ব্যতীত তোমাদের কোনো অভিভাবক নেই, সাহায্যকারীও নেই।


৩২। তাঁর মহা নিদর্শনের অন্তর্ভুক্ত হলো পর্বত সদৃশ সমুদ্রে চলমান নৌযানসমূহ।


৩৩। তিনি ইচ্ছা করলে বায়ুকে স্তব্ধ করে দিতে পারেন; ফলে নৌযানসমূহ অচল হয়ে পড়বে সমুদ্র পৃষ্ঠে। নিশ্চয়ই এতে নিদর্শন রয়েছে ধৈর্যশীল ও কৃতজ্ঞ ব্যক্তির জন্যে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


প্রাচীন মহিলার দেহের গহনা অবশ্যই খাদবিহীন হবে।


-জুভেনাল।


 


 


ধরেন যদি সদ্ব্যবহার করা হয় তবে তা সুখের বিষয় এবং সদুপায়ে ধন বৃদ্ধির জন্য সকলেই বৈধভাবে চেষ্টা করতে পারে।


 


 


 


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
ঘূর্ণিঝড় 'তিতলি'র কারণে চাঁদপুরে সকল রূটের নৌযান চলাচল বন্ধ
জেলা প্রশাসনের জরুরি সভা
মিজানুর রহমান
১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ঘূর্ণিঝড় 'তিতলির' প্রভাবের কারণে বিরূপ আবহাওয়ায় সারাদেশে অভ্যন্তরীণ রূটে নৌযান চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডবিস্নউটিএ)। এই নির্দেশনা পেয়ে চাঁদপুর থেকেও পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত সকল রূটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে স্থানীয় নৌ-বন্দর কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চাঁদপুর সদর নৌ-থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম ভূঁইয়া পিপিএম। তিনি জানান, বুধবার বিকেল ৪টার পর থেকে চাঁদপুর নৌ টার্মিনাল থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। আবহাওয়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আবার লঞ্চ চলাচল শুরু হবে।



এদিকে ঘূর্ণিঝড় 'তিতলি' আঘাত হানতে পারে এই আশঙ্কা থেকে চাঁদপুরের জেলা প্রশাসন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় জরুরি সভা করেছে। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে বারোটায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দুর্যোগ মোকাবেলায় এই প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান হাইমচরসহ নদী তীরবর্তী এলাকা, চরাঞ্চল ও জেলার অন্যান্য এলাকার জনগণকে ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাপারে প্রয়োজনে নিরাপদ স্থানে অবস্থান এবং সতর্ক থাকার আহ্বান জানান।



আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড?টি ভারতের উড়িষ্যা ও অন্ধ্র উপকূলের দিকে যাচ্ছে। বুধবার সকাল থেকে এর প্রভাবে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি ও বাতাস বইছে। এজন্যে সমুদ্র বন্দরের জন্যে ৪ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত এবং চাঁদপুরের জন্যে ২ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের সিগন্যাল চলায় নৌ-নিরাপত্তা এবং নৌ-ট্রাফিক বিভাগ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত অভ্যন্তরীণ রূটে নৌযান চলাচল বন্ধ থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। আবহাওয়া অফিসের এক বুলেটিনে জানানো হয়েছে, বুধবার সকাল ৬টায় ঘূর্ণিঝড়টি চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দর থেকে ৯৪৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, কঙ্বাজার সমুদ্র বন্দর থেকে ৯০০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮১৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ৮১৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।



 



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৭১২০৪
পুরোন সংখ্যা