চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর ২০১৮। ২৬ আশ্বিন ১৪২৫। ৩০ মহররম ১৪৪০
jibon dip
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪২-সূরা শূরা


৫৪ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩০। তোমাদের যে বিপদ-আপদ ঘটে তা তো তোমাদেরই হাতের কামাইয়ের ফল এবং তোমাদের অনেক অপরাধ তিনি ক্ষমা করে দেন।


৩১। তোমরা পৃথিবীতে (আল্লাহকে) ব্যর্থ করতে পারবে না এবং আল্লাহ ব্যতীত তোমাদের কোনো অভিভাবক নেই, সাহায্যকারীও নেই।


৩২। তাঁর মহা নিদর্শনের অন্তর্ভুক্ত হলো পর্বত সদৃশ সমুদ্রে চলমান নৌযানসমূহ।


৩৩। তিনি ইচ্ছা করলে বায়ুকে স্তব্ধ করে দিতে পারেন; ফলে নৌযানসমূহ অচল হয়ে পড়বে সমুদ্র পৃষ্ঠে। নিশ্চয়ই এতে নিদর্শন রয়েছে ধৈর্যশীল ও কৃতজ্ঞ ব্যক্তির জন্যে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


প্রাচীন মহিলার দেহের গহনা অবশ্যই খাদবিহীন হবে।


-জুভেনাল।


 


 


ধরেন যদি সদ্ব্যবহার করা হয় তবে তা সুখের বিষয় এবং সদুপায়ে ধন বৃদ্ধির জন্য সকলেই বৈধভাবে চেষ্টা করতে পারে।


 


 


 


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের প্রতিক্রিয়া
ভবিষ্যতে আর কেউ এ ধরনের অপরাধ করার সাহস পাবে না
-----------ডাঃ দীপু মনি এমপি
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


গতকাল ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। তিনি বলেন, ১৪ বছর পর বর্বরোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় হলো। বাবর, পিন্টুসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ড আর তারেক রহমান ও হারিস চৌধুরীসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হলো। রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে, হাওয়া ভবনে গ্রেনেড হামলার ষড়যন্ত্র হয়েছিলো। তাহলে ষড়যন্ত্রের মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমানের কেন মৃত্যুদণ্ড হলো না, এ প্রশ্ন সবারই।



তিনি বলেন, আর তৎকালীন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর মৃত্যুদণ্ড হলেও তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বেগম জিয়ার বিষয়ে কোনো রায় নেই। যদিও তদন্তে ও আসামীদের জবানবন্দীতে এসেছে যে, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বেগম জিয়া হামলা সম্পর্কে জানতেন। তিনি হামলার আলামত নষ্ট করার আদেশ দিয়েছিলেন এবং ডিজিএফআইকে এ হামলা সম্পর্কে তদন্ত করতে নিষেধ করেছিলেন।



ডাঃ দীপু মনি বলেন, আশা করি সকল অপরাধীরই শাস্তি নিশ্চিত হবে। ২১ আগস্টে নিহতদের পরিবার এবং যারা এখনো সে হামলার বীভৎসতার চিহ্ন দেহ ও মনে বয়ে বেড়াচ্ছেন তারা পুরোপুরি সন্তুষ্ট হবেন মূল পরিকল্পনাকারীসহ সকল অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত হলে।



বর্তমান সরকারের সময়ে একে একে সকল হত্যাকা-ের বিচার হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ইনশাল্লাহ ভবিষ্যতে আর কেউ এ ধরনের অপরাধ করার সাহস পাবে না। আর সে কারণেই কখনো যেন আর বিএনপি-জামাত খুনিচক্র রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হতে না পারে সে লক্ষ্যে বাংলাদেশের জনগণ সদা সতর্ক থাকবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩০৩৮৮৯
পুরোন সংখ্যা