ঢাকা। শুক্রবার ১১ জানুয়ারি ২০১৯। ২৮ পৌষ ১৪২৫। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭ আয়াত, ৪ রুকু, ‘মক্কী

২৭। আকাশম-লী ও পৃথিবীর আধিপত্য আল্লাহরই, যেদিন কিয়ামত সংঘটিত হইবে সেদিন মিথ্যাশ্রয়ীরা হইবে ক্ষতিগ্রস্ত,

 


assets/data_files/web

যে তার দেশকে ভালোবাসতে পারে না, কিছুই সে ভালোবাসতে পারে না। -বায়রন।


 


নিশ্চয় আল্লাহ অত্যাচারীকে শাস্তি প্রদান করেন।...কোন দেশ যখন অত্যাচারী হয়, তোমার প্রভু তাকে শাস্তি প্রদান করেন, তার শাস্তি অতীব ভীষণ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের ১ম বর্ষ শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করলেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
১১ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর জেলাবাসীর কাঙ্ক্ষিত স্বপ্ন 'চাঁদপুর মেডিকেল কলেজে'র পথচলার প্রথমদিন তথা ১ম বর্ষ এমবিবিএস কোর্সের শিক্ষার্থীরা খুবই আনন্দিত। এ শিক্ষাজীবনের প্রথমদিনেই বাংলাদেশের রাজনীতিতে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র সাবেক সফল পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বর্তমানে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি নিজে তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছেন। এটি তাদের মেডিকেল শিক্ষাজীবনে উল্লেখযোগ্য একটি ইতিহাস হয়ে থাকবে।



গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের ১ম বর্ষ এমবিবিএস কোর্সের শিক্ষার্থীদের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। কলেজের অস্থায়ী ক্যাম্পাস আড়াইশ' শয্যাবিশিষ্ট চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি। অনুষ্ঠানের সভাপ্রধান চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ মোঃ জামাল সালেহ উদ্দিন স্বাগত বক্তব্য রাখেন। তাঁর বক্তব্যের পর উপস্থাপক ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া ঘোষণা দেন, 'এখন আজকের অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির পক্ষ থেকে মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ সকল শিক্ষার্থীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেবেন। এ ঘোষণার পর পরই অধ্যক্ষ জামাল সালেহ উদ্দিন রজনীগন্ধার কয়েকটি স্টিক এবং একগুচ্ছ গোলাপ ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করতে দর্শক সারিতে বসা শিক্ষার্থীদের সামনে যান এবং কয়েকজনকে বরণও করে নেন। আর এ মুহূর্তেই অনুষ্ঠান মঞ্চে উপবিষ্ট প্রধান অতিথি শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি নিজেই শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেয়ার ইচ্ছা পোষণ করলেন। যেই ইচ্ছা, সেই কাজ। শিক্ষামন্ত্রী মঞ্চ থেকে নেমে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছে গিয়ে নিজেই প্রত্যেকের হাতে ফুল তুলে দিয়ে তাদেরকে বরণ করে নেন। এতে শিক্ষার্থীরা খুবই আনন্দিত হয়। তাদের অনেকেই শিক্ষামন্ত্রীর সাথে তখন সেলফি তুলে।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫১৪৭৭৩
পুরোন সংখ্যা