ঢাকা। শনিবার ১২ জানুয়ারি ২০১৯। ২৯ পৌষ ১৪২৫। ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডাঃ দীপু মনি শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন || চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য দীপু মনি শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন || *
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৫-সূরা জাছিয়া :

৩৭ আয়াত, ৪ রুকু, মক্কী

২৮। এবং প্রত্যেক সম্প্রদায়কে দেখিবে ভয়ে নতজানু, প্রত্যেক সম্প্রদায়কে তাহার আমলনামার প্রতি আহ্বান করা হইবে ও বলা হইবে, আজ তোমাদিগকে তাহারই প্রতিফল দেওয়া হইবে যাহা তোমরা করিতে।

 


assets/data_files/web

অসৎ আনন্দের চেয়ে পবিত্র বেদনা মহৎ।

-হোমার


দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত জ্ঞান চর্চায় নিজেকে উৎসর্গ করো।

 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের রেলপথ ও রেলওয়ে এলাকা পরিদর্শন
অবৈধ দখলদারদের তালিকা করে উচ্ছেদ করা হবে
রেলওয়ের বিভাগীয় ব্যবস্থাপক মোঃ বোরহান উদ্দিন
বিশেষ প্রতিনিধি
১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

চাঁদপুরে রেলওয়ের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ রেলপথ, রেলওয়ের রি-মডেলিং স্টেশন ভবন, চাঁদপুরস্থ রেলওয়ে এলাকা ও আধুনিক পদ্ধতির ওয়াশফিট পরিদর্শন করেছে। গত বুধবার সকালে লাকসাম থেকে রেলওয়ের চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রতিনিধি দল যাত্রা শুরু করে বিকেলে এসে এর কার্যক্রম শেষ করেন। বাংলাদেশ রেলওয়ের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) মোঃ বোরহান উদ্দিনের নেতৃত্বে বিভাগীয় সংকেত প্রকৌশলী মোঃ তন্ময়, সহকারী বাণিজ্যিক প্রকৌশলী রতন কুমার, বিভাগীয় প্রকৌশলী (ডিইএন)-১, বিভাগীয় টেলিকম প্রকৌশলী, নিরাপত্তা কমান্ডেন্ট, সহকারী প্রকৌশলী আবরার হোসেন, এসএসএই টেলিকম মহসিন মলি্লক, টিআইটি মোঃ আবু তাহের, এসএসএই (পথ) মোঃ লিয়াকত আলী মজুমদার, এসএসএই (কার্য) মোঃ আতিকুর রহমান আকনসহ একটি বিশেষ টিম এই পরিদর্শনে আসেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যবস্থাপক পদে নূতন কর্মকর্তা যোগদান করায় এ পথের সকল দিক পরিদর্শনে তারা আসেন।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যবস্থাপক মোঃ বোরহান উদ্দিন চাঁদপুর-লাকসাম রেলপথ পরিদর্শনকালে চিতোষী রোড স্টেশন, মেহের, হাজীগঞ্জ ও চাঁদপুর স্টেশন এলাকার ভবনগুলোর রি-মডেলিং কাজের বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখেন। বিকেলে চাঁদপুর পেঁৗছে চাঁদপুরে নতুন করে নির্মাণাধীন আধুনিক ওয়াশফিট কাজ পরিদর্শন করেন এবং রেলওয়ে এলাকা পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি স্থানীয় কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন অবৈধভাবে কোয়ার্টার দখলকারী ও অবৈধভাবে নির্মাণ করা শত শত স্থাপনার তালিকা প্রণয়ন করার জন্যে। তালিকা অনুযায়ী রেলওয়ের পোষ্য ছাড়া সকল অবৈধ দখলদারকে পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ করা হবে বলে জানান। এছাড়া চাঁদপুরে রেলওয়ে কর্মচারীদের সুস্থতা ও যাত্রীদের নিরাপদ পানি পান করার জন্যে একটি গভীর নলকূপ স্থাপন করে দেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন। চাঁদপুরে রেলওয়ে কর্মচারীরা চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হওয়ার কথা শুনে বিভাগীয় ব্যবস্থাপক চাঁদপুরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা রেলওয়ে হাসপাতালটি পুনরায় নতুন ব্যবস্থাপনায় পরিচালনা করা হবে বলে উপস্থিত কর্মচারীদেরকে আশ্বস্ত করেন। পরে প্রতিনিধি দল বড় স্টেশন মোলহেড পরিদর্শন করন এবং শেষ বিকেলে শহরের ডাকাতিয়া নদী ও মেঘনা নদীতে কিছুক্ষণ ভ্রমণ শেষে সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে চাঁদপুর ত্যাগ করেন। পরিদর্শনকালে স্থানীয়দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্টেশন মাস্টার মোঃ জাফর আলম, সহকারী স্টেশন মাস্টার শোহেব শিকদার, হেডবুকিং অ্যাসিস্টেন্ট মোঃ আবদুল ছালাম সরকার, রেল নিরাপত্তা বাহিনীর মোঃ খোরশেদ আলম, এসএই আবুল কালাম আজাদ, মোঃ ছোলেমান ভঁূইয়া প্রমুখ।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৬২৩২০
পুরোন সংখ্যা