ঢাকা। শুক্রবার ১৮ জানুয়ারি ২০১৯। ৫ মাঘ ১৪২৫। ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৯-সূরা হুজুরাত


১৮ আয়াত, ২ রুকু, 'মাদানী


৩। যাহারা আল্লাহর রাসূলের সম্মুখে নিজেদের কণ্ঠস্বর নীচু করে, আল্লাহ তাহাদের অন্তরকে তাকওয়ার জন্য পরীক্ষা করিয়া লইয়াছেন। তাহাদের জন্য রহিয়াছে ক্ষমা ও মহাপুরস্কার।


 


 


 


assets/data_files/web

যে-লোক তার সুযোগ হারায় সে নিজেকে হারায়।      


-জি. মরু।


মানবতাই মানুষের শ্রেষ্ঠতম গুণ।













 


ফটো গ্যালারি
কচুয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু শাশুড়ি আটক
রাকিবুল হাসান
১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়া উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রামে শান্তা আক্তার (২৫) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ শ্বশুর বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে কচুয়া থানা পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে চাঁদপুরে মর্গে পাঠানো হয়। আর এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে নিহত শান্তার শাশুড়ি দেলোয়ারা বেগম (৬০)কে আটক করে পুলিশ। গৃহবধূ শান্তা আক্তারের স্বামী রুবেল হোসেন বাহরাইন থাকেন। এদিকে শান্তা আত্মহত্যা করেছে, নাকি তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে এ নিয়ে এলাকায় নানা গুঞ্জন চলছে।



জানা গেছে, উপজেলার নলুয়া গ্রামের রহমত উল্লার মেয়ে শান্তা আক্তারের সাথে প্রায় ৩ বছর পূর্বে একই উপজেলার ডুমুরিয়া গ্রামের হারুনুর রশিদের পুত্র বাহরাইন প্রবাসী রুবেল হোসেনের বিয়ে হয়। প্রায় ৬ মাস পূর্বে রুবেল ছুটিতে এসে পুনরায় বাহরাইন চলে যান। নিহত শান্তার ভাই হৃদয় জানান, বিয়ের সময় তার ভগি্নপতি রুবেলকে একটি মোটরসাইকেল, স্বর্ণ-গহনা ও বিদেশ যাওয়ার জন্যে ২ লক্ষ টাকা দেয়া হয়। শান্তা ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলো।



এদিকে গৃহবধূ শান্তা আক্তারকে তার ননদী জামাই একই এলাকার কেরামত হোসেন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে তার লাশ ঝুঁলিয়ে রাখে বলে দাবি করেন শান্তার মা খোদেজা বেগম ও ভাই হৃদয়। তারা এ হত্যাকা-ের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। এদিকে ঘটনার পর থেকে ননদী জামাই কেরামত হোসেন এলাকা ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছে।



এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমান ভূঁইয়া বলেন, খবর পেয়ে আমরা নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে চাঁদপুর মর্গে পাঠিয়েছি। ময়না তদন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৯৯৯৮
পুরোন সংখ্যা