চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫, ১৮ রজব ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৮-সূরা ফাত্হ্

২৯ আয়াত, ৪ রুকু, ‘মাদানী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪। তিনিই মু’মিনদের অন্তরে প্রশান্তি দান করেন যেন তাহারা তাহাদের ঈমানের সহিত ঈমান দৃঢ় করিয়া লয়, আকাশম-লী ও পৃথিবীর বাহিনীসমূহ আল্লাহরই এবং আল্লাহ সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাময়।







 


সৌভাগ্যবান হওয়ার চেয়ে জ্ঞানী হওয়া ভালো।        


-ডাবলিউ জি বেনহাম।


স্বভাবে নম্রতা অর্জন কর।



 


ফটো গ্যালারি
রেলওয়ে কিন্ডারগার্টেন, চাঁদপুর-এর বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা
নৈতিক শিক্ষার মধ্য দিয়ে সুশিক্ষিত হিসেবে আগামী প্রজন্মকে গড়তে হবে
মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ
গোলাম মোস্তফা
২৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, জাতি গঠনে আগামী প্রজন্মকে শুধু শিক্ষিত করে তুললেই চলবে না, নৈতিক শিক্ষার মধ্য দিয়ে সুশিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তাহলেই আগামী প্রজন্মকে একটি সুন্দর দেশ ও জাতি উপহার দিতে পারবো। আর এই কাজটি করার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনে দায়িত্ববান হিসেবে শুধু আপনারা যারা প্রাথমিক শিক্ষার সাথে জড়িত রয়েছেন তারাই।



তিনি আরো বলেন, এই কোমলমতি শিশুরা হচ্ছে কাদা মাটির মতো। তাদেরকে যেভাবে গড়ে তোলা হবে তারা সেভাবেই গড়ে উঠবে। বর্তমানে নৈতিক অবক্ষয়ের কারণে সমাজে যে ধরনের অপকর্মগুলো ঘটছে, এগুলোকে পরিহার করতে সর্বপ্রথম নৈতিক শিক্ষার মধ্য দিয়ে সুশিক্ষিত হিসেবে আগামী প্রজন্মকে গড়তে হবে। তাহলে তারা সমাজের সচেতন মানুষ হিসেবে ভূমিকা পালন করবে। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আধুনিক ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে পরিকল্পনা নিয়েছেন সেখানে প্রাথমিক শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। তাই বর্তমান সরকারের একজন কর্মী হিসেবে প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে এবং এ বিদ্যালয়টির অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ যে কোনো সমস্যা সমাধানে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পাশে থাকার আশ্বাস প্রদান করছি।



মেয়র আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ গতকাল ২৫ মার্চ সকালে চাঁদপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী রেলওয়ে কিন্ডারগার্টেনের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিরতণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব অ্যাডঃ ইকবাল-বিন-বাশারের সভাপ্রধানে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলার সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মানছুর আহমেদ, চাঁদপুর পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর শাহনাজ আলমগীর। অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিদেরকে স্বাগত জানিয়ে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কমিটির সহ-সভাপতি, সাহিত্য একাডেমীর মহাপরিচালক ও দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক রোটাঃ কাজী শাহাদাত। এই পর্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০১৯-এর আহ্বায়ক মোঃ মাহবুবুর রহমান। এই অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্র মোঃ আল-আমিন, গীতা পাঠ করেন তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র রাজ কর দীপ। এরপর অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম ও উপাধ্যক্ষ রুবিনা মরিয়মের নেতৃত্বে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকল অতিথিকে ফুলেল শুভেচ্ছা প্রদান করেন ও ব্যাজ পরিয়ে দেন। প্রধান অতিথি জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন এবং বিদ্যালয়ের কুচকাওয়াজ দলের সালাম গ্রহণ করেন।



পরবর্তীতে ২য় পর্বে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সহ-সভাপতি রোটাঃ কাজী শাহাদাতের উপস্থাপনায় প্রাক্তন কৃতী ছাত্রদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে উক্ত বিদ্যালয়ের প্রাক্তন কৃতী ছাত্র চাঁদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রূপক রায় ও পূবালী ব্যাংক লিঃ, নতুনবাজার শাখার ব্যবস্থাপক মাসরুর হাসান ভূঁইয়াকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। সংবর্ধনা শেষে উভয় সংবর্ধিত অতিথি প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। রূপক রায় বলেন, আমি যখন বিদ্যালয়টিতে একজন ছাত্র হিসেবে ভর্তি হয়েছি, তখন এই বিদ্যায়টি সবেমাত্র যাত্রা শুরু করেছিল। সেই সময়ে আমার কিছু বন্ধু আমাকে বলতেন, তারা বিল্ডিংয়ে পড়ালেখা করে আর আমি মুলির বেড়ার বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করি। এ কথাটির মধ্য দিয়ে আমাকে লজ্জা দিতো। কিন্তু এই বিদ্যালয়টির তৎকালীন শিক্ষক/শিক্ষিকাবৃন্দ আমাকে মুলির বেড়ার ছাত্র হিসেবে নয়, নৈতিক শিক্ষার মধ্য দিয়ে মেধাবী যোগ্য ছাত্র হিসেবে গড়ে তোলার কারণেই আমি আজ অধ্যাপক রূপক হয়েছি। তিনি বলেন, তাই কোনো প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো সমস্যা কোনো সমস্যা নয়, সেই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী হিসেবে তাকে আগামী প্রজন্মের কেমন নাগরিক হিসেবে গড়ে তুললো সেটি হলো বড় কথা । একইভাবে সংবর্ধিত অতিথি পূবালী ব্যাংক লিঃ, নতুনবাজার শাখার ব্যবস্থাপক মাসরুর হাসান ভূঁইয়া তার প্রতিক্রিয়ায় বিদ্যালয়টি তৎকালীন সময়ের অবকাঠামোর জরাজীর্ণতা তুলে ধরেন। কিন্তু বিদ্যালয়ের তৎকালীন শিক্ষক/শিক্ষিকাদের পাঠদানের সঠিক বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, প্রাথমিক শিক্ষার শিক্ষকগণ যদি সঠিকভাবে ভূমিকা পালন করেন তাহলেই আগামী প্রজন্মকে সুশিক্ষিত হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব হবে। উভয় সংবর্ধিত অতিথি বিদ্যালয়টির যে কোনো সমস্যা সমাধানের বিষয়ে পাশে থাকার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। সংবর্ধিত অতিথিদেরকে বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম ও সাবেক উপাধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন। এরপর বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংবর্ধিত অতিথিদেরকে ক্রেস্ট প্রদান করেন। সংবর্ধিত অতিথিদ্বয়কে বিশিষ্ট কবি ও লেখক ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া তার লেখা বই উপহার প্রদান করেন।



সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি মেয়র মোঃ নাছির উদ্দিন আহমেদসহ অন্যান্য অতিথি বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে মেধা পুরস্কার বিতরণ করেন।



বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোরশেদ আলম খান জয়ের পরিচালনায় ছাত্র-ছাত্রীদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও যেমন খুশি তেমন সাজো অনুষ্ঠান শেষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এ সকল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পিপি অ্যাডঃ দেবাশীষ কর মধু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগৈর যুগ্ম আহ্বায়ক এমএ হাসান লিটন, শহর যুবলীগের আহ্বায়ক সফিকুল ইসলাম, রেল শ্রমিক লীগ নেতা আঃ হান্নান, বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সাংবাদিক শওকত আলী ও সেলিম রেজা।



ক্রীড়া প্রতিযোগিতার সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মাহমুদা খানম, উপাধ্যক্ষ রুবিনা মরিয়ম, শিক্ষক রাবেয়া আক্তার, নাজমা বেগম, লক্ষ্মী রাণী মজুমদার, আয়েশা আক্তার, মোঃ নির্জন হোসাইন আরিফ, ফাতেমাতুজ জোহরা, দেলোয়ার হোসেন ও মোর্শেদ আলম জয়।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১০১৯১৬০
পুরোন সংখ্যা