চাঁদপুর, রোববার ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৯-সূরা হুজুরাত


১৮ আয়াত, ২ রুকু, 'মাদানী


৩। যাহারা আল্লাহর রাসূলের সম্মুখে নিজেদের কণ্ঠস্বর নীচু করে, আল্লাহ তাহাদের অন্তরকে তাকওয়ার জন্য পরীক্ষা করিয়া লইয়াছেন। তাহাদের জন্য রহিয়াছে ক্ষমা ও মহাপুরস্কার।


 


 


 


assets/data_files/web

প্রতিভাবান ব্যক্তিরাই ধৈর্য ধারণ করতে পারে। -ই. সি. স্টেডম্যান।


যে শিক্ষিত ব্যক্তিকে সম্মান করে, সে আমাকে সম্মান করে।


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুরে জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তাগণ
একজন ভালো মানুষই পারেন ভালো চিকিৎসক হতে, স্বাস্থ্য সেবা পেতে হলে সচেতন হতে হবে
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


'স্বাস্থ্য সেবা অধিকার শেখ হাসিনার অঙ্গীকার' এ শ্লোগানে এবার সারাদেশে একযোগে জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ পালিত হয়েছে গত ১৬ থেকে ৩০ এপ্রিল। চাঁদপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের আয়োজনে চাঁদপুরে জাতীয় স্বাস্থ্য সপ্তাহ সেবার সমাপনী অনুষ্ঠান গতকাল ২০ এপ্রিল শনিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়। চাঁদপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত এ সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান।



সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডাঃ গোলাম কাউছার হিমেলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপ্রধানের বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, সত্যিকার অর্থে যারা চিকিৎসক তারা সবসময়ই সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। বিপুল সংখ্যক রোগীকে তারা দিনরাত সেবা দিচ্ছেন। কিন্তু এই সেবা দেয়া এবং নেয়ার মাঝে কিছু অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটে যায়, সে ব্যাপারে সবাইকে সহনশীল হতে হবে।



তিনি আরো বলেন, আমি বহির্বিশ্বে দেখেছি সেখানে হাসপাতাল বা ক্লিনিকের সংখ্যা অনেক কম, আবার সেখানে রোগীর সংখ্যাও কম। তার কারণ, তারা স্বাস্থ্য সেবা থেকে শুরু করে সবদিক দিয়ে উন্নত। আজকে আমরাও সবদিক দিয়ে উন্নত হওয়ার পথে চলছি। তিনি বলেন, সেবাকে যেভাবে মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেয়া যায়, আমাদের সেভাবেই সকলকে কাজ করতে হবে। অন্যান্য বক্তা বলেন, 'স্বাস্থ্য সেবা অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গীকার' এ প্রতিপাদ্যকে নিয়ে এবারই প্রথমবারের মতো জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ পালিত হলো। বাংলাদেশের ৬ হাজার জনসংখ্যার জন্যে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে উঠেছে। স্বাধীনতার পর গত একদশকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। ডাঃ দীপু মনির মাধ্যমে চাঁদপুরে মেডিকেল কলেজ হয়েছে। এর সুফল চাঁদপুরবাসী ভোগ করবে। চাঁদপুরে অনেক উন্নয়ন কর্মকা- হয়েছে যা প্রচারণায় আসেনি। এক সময় স্বাস্থ্য খাতে নাই নাই শব্দ ছিল। বর্তমানে সেই নাই শব্দটি এখন আর বলতে হয় না। তবে হাসপাতালে চিকিৎসক সঙ্কট রয়েছে। পাশাপাশি পানি সঙ্কট রয়েছে এবং অগি্ননির্বাপক যন্ত্র নেই। চাঁদপুরের হাসপাতালগুলোতে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির মাধ্যমে চিকিৎসক সঙ্কট দূরীকরণ ও অগি্ননির্বাপক যন্ত্র স্থাপন করা হবে। বক্তারা আরো বলেন, চাঁদপুরে স্বাস্থ্যসেবার উন্নত হয়েছে। তার প্রমাণ চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের বহির্বিভাগে সকাল থেকে রোগীর ভিড় দেখেই বোঝা যায়। হাসপাতালে পানির সুব্যবস্থা নেই। যেই টিউবওয়েলগুলো রয়েছে, তার পানি ব্যবহারের অনুপযোগী। তারা বলেন, প্রতিদিন স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাচ্ছে চিকিৎসকগণ। জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ হলো জনগণকে স্বাস্থ্য সেবায় সচেতন করা। বাংলাদেশ থেকে অনেক রোগী বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গিয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করছে। আমাদের দেশেও অনেক উন্নত ধরনের চিকিৎসা হয়ে থাকে। ডাক্তার ও রোগীর আইন থাকা উচিত। ডাক্তার রোগী মারে, রোগীও ডাক্তারদের মারে। ডাক্তারদের জন্যে কোনো নির্ধারিত সময় নেই। তারা দিবারাত্রি রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। একজন ভালো মানুষই ভালো চিকিৎসক হতে পারেন। আমরা নিজেরা সচেতন না হলে স্বাস্থ্যসেবা পাব কীভাবে?



চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেন, চাঁদপুরে যে জনসংখ্যা তার চেয়ে বেশি মানুষ চাঁদপুর পৌরসভার সাপ্লাইয়ের পানি খেতে পারবে। আমরা প্রতি সপ্তাহে এই পানি পরীক্ষা করে থাকি। ওয়াটার সেপ্টি প্ল্যান অনেক ভালো। সরকারি জেনারেল হাসপাতালে পানির রিজার্ভ ট্যাঙ্কি না থাকার কারণে সাপ্লাইয়ের পানি দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। চাঁদপুর পৌরসভা থেকে ৬ জন পরিচ্ছন্নকর্মী হাসপাতালে কাজ করছে।



বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির বিপিএম পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডাঃ জে আর ওয়াজেদ টিপু, ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ একেএম মাহবুবুর রহমান, চাঁদপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ জামাল সালেহ উদ্দিন, চাঁদপুর সরকারি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আনোয়ারুল আজিম, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর জেলা পরিবার পরিকল্পনার উপ-পরিচালক ডাঃ ইলিয়াছ মিয়া, বিএমএ সভাপতি ডাঃ নূরুল হুদা, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মাহমুদুন নবী মাসুম, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শহীদ পাটোয়ারী প্রমুখ।



অনুষ্ঠানের পূর্বে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওঃ মোঃ হাবিব উল্লাহ ও গীতা পাঠ করেন সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক অনিতা নন্দী।



উল্লেখ্য, গত ১৬ এপ্রিল আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র থেকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে একযোগে এই জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন করেন।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৯০৯৭১
পুরোন সংখ্যা