চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০
jibon dip
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৯-সূরা হুজুরাত


১৮ আয়াত, ২ রুকু, 'মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৪। যাহারা ঘরের বাহির হইতে তোমাকে উচ্চস্বরে ডাকে, তাহাদের অধিকাংশই নির্বোধ,


৫। তুমি বাহির হইয়া উহাদের নিকট আসা পর্যন্ত যদি উহারা ধৈর্য ধারণ করিত, তাহাই উহাদের জন্য উত্তম হইত। আল্লাহ ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।


 


 


কোনো বড় কাজই উৎসাহ ছাড়া লাভ হয়নি। -ইমারসন।


 


 


 


নিঃসন্দেহে তিন প্রকার লোকের দোয়া কবুল হয়-পিতার দোয়া, মোসাফিরের দোয়া এবং অত্যাচারিত ব্যক্তির দোয়া।


 


 


ফটো গ্যালারি
সাত উপজেলায় সাড়ে ৩ হাজার আর্সেনিকমুক্ত নলকূপ স্থাপনের উদ্যোগ
শওকত আলী
২৩ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর জেলার ৭টি উপজেলায় সাড়ে ৩ হাজার আর্সেনিকমুক্ত নলকূপ স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকারের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ, চাঁদপুর-এর নির্বাহী প্রকৌশলী মাহমুদুল কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।



সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী আর্সেনিকমুক্ত নিরাপদ পানি সরবরাহ প্রকল্পের অধীনে চাঁদপুরে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ চাঁদপুর জেলার ৮টির মধ্যে ৭ উপজেলায় এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। শুধু মতলব দক্ষিণ ব্যতীত অন্যসব উপজেলার ইউনিয়নে পর্যায়ক্রমে চলতি অর্থবছর থেকে নতুনভাবে নলকূপ বসানো হবে। যা আগামী ২০২০-২১ অর্থবছর পর্যন্ত চলমান থাকবে।



নির্বাহী প্রকৌশলী মাহমুদুল কবির জানান, চাঁদপুরের ৭ উপজেলার ইউনিয়নসমূহে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণের তালিকা অনুযায়ী ৭ হাজার টাকার নির্ধারিত সরকারি ট্রেজারী চালান যারা জমা দিয়েছেন তাদের বাড়িতেই গ্রামীণ মানুষের নিরাপদ পানি সরবরাহের প্রয়োজনে আর্সেনিকমুক্ত নলকূপ বসানো হবে। বর্তমানে সকলের জন্যে নিরাপদ পানি সরবরাহের জন্যে সরকার ৩ বছর মেয়াদী এ প্রকল্পটি গ্রহণ করেছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানায়। চাঁদপুরে ৭টি উপজেলায় এ সব নলকূপ স্থাপন করা হলে নিরাপদ পানির সমস্যা সমাধান হয়ে উপজেলাবাসী আর্সেনিকমুক্ত পানি পান করতে পারবে এবং বিশুদ্ধ পানি পান করে উপকৃত হবে।



 



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৫৯৩৬৮
পুরোন সংখ্যা