চাঁদপুর, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্

৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৮। আল্লাহ বলিবেন, ‘আমার সম্মুখে বাগ্-বিত-া করিও না; তোমাদিগকে আমি তো পূর্বেই সতর্ক করিয়াছি’।

২৯। ‘আমার কথার রদবদল হয় না এবং আমি আমার বান্দাদের প্রতি কোনো অবিচার করি না।’

৩০। সেই দিন আমি জাহান্নামকে জিজ্ঞাসা করিব, ‘তুমি কি পূর্ণ হইয়া গিয়াছ? জাহান্নাম বলিবে, ‘আরও আছে কি?’


assets/data_files/web

খ্যাতিমান লোকের ভালোবাসা অনেক ক্ষেত্রে গোপন থাকে। -বেন জনসন।


 


 


যার দ্বারা মানবতা উপকৃত হয়, মানুষের মধ্যে তিনি উত্তম পুরুষ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
গৃহবধূ দীপিকা হত্যার আসামীরা রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে
কামরুজ্জামান টুটুল
১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


হাজীগঞ্জের গৃহবধূ দীপিকা আচার্য মনি (২৪) হত্যা মামলার আসামী স্বামী বিপুল আচার্য ও ভাসুর স্বজন আচার্যের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। রিমান্ডে এনে আসামীদের থেকে এসব জানা গেছে। তবে জেলহাজতে থাকা দীপিকার শাশুড়িকে রিমান্ডে আনা হয়নি। এ মামলায় অপর আসামী দীপিকার জা এখনো পলাতক রয়েছে।



গত ৩০ এপ্রিল রাতে হাজীগঞ্জ বাজারস্থ দীপিকার স্বামীর বাড়িতে মারাত্মক অগি্নদগ্ধ হন গৃহবধু দীপিকা আচার্য মনি (২৬)। এতে দীপিকার শরীরের ৮০ ভাগ পুড়ে যায়। এ ঘটনার পর তিনদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ৩ মে শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেলে মারা যান দীপিকা। এদিকে অগি্নদগ্ধ হওয়ার পর হাজীগঞ্জ থানায় মামলা করেন দীপিকার ভাই অরবিন্দ আচার্য্য। মামলায় দীপিকার স্বামী, শাশুড়িসহ চারজনকে আসামী করা হয়। দীপিকাদের বাড়ি নরসিংদীর মানবদী এলাকায়।



থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দীপিকা হত্যা মামলায় মূল আসামী করা হয়েছে ৪ জনকে। মামলা করার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ দীপিকার স্বামী, ভাসুর এবং শাশুড়িকে আটক করে জেলহাজতে পাঠায়। আসামীরা আটক থাকাবস্থায় দীপিকা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। এদিকে দীপিকা হত্যাকা-ের ঘটনায় পুলিশ আটককৃত আসামীদের রিমান্ড চাইলে আদালত ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। জানা গেছে, রিমান্ডে থাকা দীপিকার স্বামী পূর্ব থেকে মাদকাসক্ত হওয়ার কারণে পুলিশকে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিলেও পুলিশ তার নিজস্ব কৌশল অবলম্বন করে আসামীদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদ্ধার সক্ষম হয়েছে।



হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসেন রনি চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, রিমান্ডে আনা দীপিকার স্বামী আর ভাসুরের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উদ্ঘাটন করা সম্ভব হয়েছে। তবে মামলার তদন্তের স্বার্থে পুরোটা বলা সম্ভব হচ্ছে না।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৪৩৭১২
পুরোন সংখ্যা