চাঁদপুর, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্

৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৮। আল্লাহ বলিবেন, ‘আমার সম্মুখে বাগ্-বিত-া করিও না; তোমাদিগকে আমি তো পূর্বেই সতর্ক করিয়াছি’।

২৯। ‘আমার কথার রদবদল হয় না এবং আমি আমার বান্দাদের প্রতি কোনো অবিচার করি না।’

৩০। সেই দিন আমি জাহান্নামকে জিজ্ঞাসা করিব, ‘তুমি কি পূর্ণ হইয়া গিয়াছ? জাহান্নাম বলিবে, ‘আরও আছে কি?’


assets/data_files/web

খাদ্য খাওয়া ও খাওয়ানোর চেয়ে খাদ্য উৎপাদনই মহত্তর কাজ।


-তাবিব।


 


 


যার দ্বারা মানবতা উপকৃত হয়, মানুষের মধ্যে তিনি উত্তম পুরুষ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
মতলব উত্তরে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ
শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম দেশের শিক্ষা সম্প্রসারণের ক্ষেত্রে যুগোপযোগী ভূমিকা পালন করে আসছে
অ্যাডঃ নুরুল আমিন রুহুল এমপি
মাহবুব আলম লাভলু
১৯ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর-২ আসনের এমপি অ্যাডঃ নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্প ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি বৃহৎ প্রকল্প। আর্থসামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকা- ও শিক্ষা বিস্তারের কাজে মসজিদের ইমাম সাহেবদের সমপৃক্ত করার লক্ষ্যে সরকার ১৯৯৩ সালে মসজিদভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রমের আওতায় প্রাক-প্রাথমিক এবং ঝরে পড়া (ড্রপ-আউট) কিশোর-কিশোরী ও অক্ষরজ্ঞানহীন বয়স্কদের জন্য মসজিদভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করে। প্রকল্পটির আকার পর্যায়ক্রমে বৃদ্ধি পাওয়ায় বর্তমানে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম দেশের শিক্ষা সমপ্রসারণের ক্ষেত্রে যুগোপযোগী ভূমিকা পালন করে আসছে। এ প্রকল্পে মসজিদের ইমামগণ মসজিদ কেন্দ্রে শিশু ও বয়স্ক শিক্ষার্থীদেরকে বাংলা, অংক, ইংরেজি, আরবি, নৈতিকতা ও মূল্যবোধসহ বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা দান করছেন। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সুবিধাবঞ্চিত স্থানে এ প্রকল্পের মাধ্যমে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তার ও কোর্স সম্পন্নকারীদের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তির হার বৃদ্ধির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জিত হচ্ছে। এ প্রকল্পের সুবিধাভোগী অধিকাংশই সমাজের অবহেলিত, দরিদ্র ও নিরক্ষর জনগোষ্ঠী। মতলব উত্তর উপজেলায় মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষার শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার হিসেবে কোরআন শরীফ বিতরণী সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন।



তিনি আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে এ প্রতিষ্ঠানকে জনকল্যাণমুখী করে তুলছেন। এ প্রতিষ্ঠানের সাথে যারা জড়িত তাদের নিষ্ঠার সাথে কাজ করতে হবে।



শনিবার দুপুরে মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তারের সভাপতিত্বে এবং প্রকল্পের ফিল্ড তদারকি কর্মকর্তা রাজিবুল হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিতরণী সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস।



অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মতলব উত্তর থানার ওসি (তদন্ত) মোরশেদ আলম, উপজেলা আ'লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডঃ শহীদ উল্যাহ প্রধান, যুগ্ম সম্পাদক আইয়ুব আলী গাজী, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী শরীফ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক অ্যাডঃ মহসীন মিয়া মানিক, ফিল্ড সুপারভাইজার শরীফুল ইসলাম প্রমুখ।



অনুষ্ঠানে উপজেলার ১২৮ টি কেন্দ্রের আড়াই হাজার জনকে পবিত্র কোরআন শরীফ পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয়।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫১১৮২৯
পুরোন সংখ্যা