চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৭ রমজান ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্

৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩৮। আমি আকাশম-লী ও পৃথিবী এবং উহাদের অন্তর্বর্তী সমস্ত কিছু সৃষ্টি করিয়াছি ছয় দিনে; আমাকে কোন ক্লান্তি স্পর্শ করে নাই।৩৯। অতএব উহারা যাহা বলে তাহাতে তুমি ধৈর্য ধারণ কর এবং তোমরা প্রতিপালকের সপ্রশংস পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা কর সূর্যোদয়ের পূর্বে ও সূর্যাস্তের পূর্বে,


assets/data_files/web

যাকে মান্য করা যায় তার কাছে নত হও। -টেনিসন।


 


 


যারা ধনী কিংবা সবকালয়, তাদের ভিক্ষা করা অনুচিত।


 


 


ফটো গ্যালারি
ফরিদগঞ্জ ঈদ বাজার-১
ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে পোশাক কারিগররা
নূরুল ইসলাম ফরহাদ
২৩ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শপিং মল থেকে যারা তাদের পছন্দের পোশাকটি কিনবেন, তারা অপেক্ষা করছেন নতুন কী পোশাক আসবে। আর যারা নিজের পোশাকটা পছন্দসই কাপড় আর নকশায় বানাতে চান, তারা এখন টেইলার্সে যাওয়া আসার ব্যস্ততায় আছেন। যেহেতু ভালো টেইলার্সগুলোতে রমজানের মাঝামাঝিতে ফরমায়েশ নেয়া বন্ধ হয়ে যায়, তাই পছন্দের পোশাক তৈরিতে উদ্যোগ নিতে হবে এখন থেকেই।



প্রতি বছর ঈদকে সামনে রেখে ফরিদগঞ্জের দর্জিপাড়াগুলো ব্যস্ত হয়ে পড়ে। কাপড় কাটার শব্দ আর মেশিনের অনবরত শব্দে নতুন এক ব্যঞ্জনা তোলে পোশাক কারিগরদের মনে। তবে শেষ মুহূর্তে এ ব্যঞ্জনা রূপ নেয় তিক্ততায় আর বিরক্তিতে। কারণ শেষের দিকে অধিক পরিশ্রমের কারণে শরীর অনেকটাই দুর্বল হয়ে পড়ে। বেশ ক'টি টেইলার্স ১৫ থেকে ১৭ রমজানেই অর্ডার বন্ধ করে দেয়। বেশ ক'জনের সাথে আলাপ করে জানা যায়, রমজানের শুরু থেকে এ পর্যন্ত যে অর্ডার নেয়া হয়েছে তা ডেলিভারী দিতে চাঁদরাত লেগে যাবে। তাছাড়া শেষ মুহূর্তে কারিগররা এতো বেশি দুর্বল থাকে যে কাজ করা সম্ভব হয়ে উঠে না।



প্রতি বছর সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত থাকে ক্লাসিক টেইলার্স। ক্লাসিক টেইলার্সের মালিক স্বপন মজুমদারের সাথে আলাপ করে জানা যায়, তিনি এতো বেশি অর্ডার পেয়েছেন যে, ১৫ রমজানেই অর্ডার বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন।



ফরিদগঞ্জে বেশ ক'টি জনপ্রিয় টেইলার্স রয়েছে। ঈদকে কেন্দ্র করে রমজানের আগেই ফরিদগঞ্জ সদর বাজারে আরো বেশ ক'টি টেইলার্সের নতুন দোকান হয়েছে। বাজার ঘুরে দেখা যায় সবাই কাজে ব্যস্ত। এর মধ্যে রয়েছে আইফা মার্কেটে সেঞ্চুরী টেইলার্স, স্টার, ফ্যাশন, রেড সান, ওকে, সাগরিকা, সানমুন, টফ, মদিনা, ঢাকা ও অপূর্ব টেইলার্স। প্রতিটি মার্কেট ছাড়াও ছড়ানো-ছিটানোভাবে গড়ে ওঠেছে আরো ক'টি দোকান।



এবারের ঈদে মেয়েরা বেশি পরিমাণ থ্রি পিচ সেলাই করছে। এক সময় থ্রি পিচ বলতে মেয়েরা পাখি, কিরণমালা মানে ভারতীয় নাটকের নায়িকাদের নামে ড্রেসের ওপর দুর্বল ছিলো। এ বছর ফরিদগঞ্জের তরুণীদের চিন্তার পরিবর্তন হয়েছে। এ মোহ থেকে বেরিয়ে আসতে পেরেছে মেয়েরা। থ্রি পিচের ধরণ এবং কাপড় অনুযায়ী মজুরি নেয়া হচ্ছে ৩০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত। আর ফ্রকের ক্ষেত্রে ২০০ টাকা থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত মজুরি নেয়া হয়। ছেলেরা বরাবরের মতো এবারও শার্ট আর প্যান্ট সেলাচ্ছেন। প্রতিটি শার্টের মজুরি নেয়া হচ্ছে ৩৫০ টাকা পর্যন্ত। আর প্যান্টের মজুরি ধরা হচ্ছে ৪৫০ টাকা পর্যন্ত।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৯৭০৬৭
পুরোন সংখ্যা