চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০১৯, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ৯ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর ডায়াবেটিক হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, কিংবদন্তীতুল্য সমাজসেবক আলহাজ্ব ডাঃ এম এ গফুর আর বেঁচে নেই। আজ ভোর ৪টায় ঢাকার শমরিতা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন।বাদ জুমা পৌর ঈদগাহে জানাজা শেষে বাসস্ট্যান্ড গোর-এ-গরিবা কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৪-সূরা কামার


৫৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


 


 


assets/data_files/web

যাকে মান্য করা যায় তার কাছে নত হও। -টেনিসন।


 


 


যারা ধনী কিংবা সবকালয়, তাদের ভিক্ষা করা অনুচিত।


 


 


ফটো গ্যালারি
অ্যাডঃ দ্বিজেন্দ্র লাল আচার্য্যের স্মরণে শোকসভা ও ফুলকোর্ট রেভারেন্স
আদালত প্রতিবেদক
১৩ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডঃ দ্বিজেন্দ্র লাল আচার্য্যের স্মরণে শোকসভা ও ফুলকোর্ট রেভারেন্স পালিত হয়েছে। জেলা জজ আদালতে ফুলকোর্ট রেভারেন্স পালন করেন জেলা ও দায়রা জজ জুলফিকার আলী খাঁন। এ সময় বিচারকসহ আইনজীবীগণ দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন করেন। উপস্থিত ছিলেন জেলা জজ আদালতের সকল বিচারকসহ আইনজীবীগণ।



গতকাল ১২ জুন বুধবার দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত শোকসভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডঃ শেখ জহিরুল ইসলাম।



জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ শাহাদাত হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ শোকসভায় বক্তব্য রাখেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডঃ ফজলুল হক সরকার, অ্যাডঃ আমানউল্লাহ, অ্যাডঃ নাছির উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডঃ আলহাজ্ব মোবারক হোসেন, অ্যাডঃ সেলিম আকবর, অ্যাডঃ জহিরুল ইসলাম, অ্যাডঃ আব্দুল লতিফ শেখ, অ্যাডঃ আহছান হাবীব, অ্যাডঃ মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, অ্যাডঃ দেবাশীষ কর মধু, অ্যাডঃ কামাল উদ্দিন আহমেদ, অ্যাডঃ রুহুল আমিন সরকার, অ্যাডঃ মোঃ বাবর বেপারী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে গীতা পাঠ করেন অ্যাডঃ বিধু ভূষণ নাথ।



অ্যাডঃ দ্বিজেন্দ্র লাল আচার্য্য চাঁদপুর বারে ১৯৭৭ সালের ১২ মার্চ যোগদান করেন। তাঁর বাবার নাম ডাঃ জানকী নাথ আচার্য্য। তাঁর বর্তমান ঠিকানা চাঁদপুর পৌর এলাকার খলিশাডুলি বাবুরহাট, চাঁদপুর সদর। তার জন্ম তারিখ ১৯৪৫ সালের ১ ফেব্রুয়ারি। তার জন্মস্থান খলিশাডুলি ঠাকুরবাড়িতে। তিনি ১১ জুন মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় খলিশাডুলি নিজ বাড়িতে (ঠাকুর বাড়িতে) পরলোকগমন করেন। তিনি ১৯৬২ সালে কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম বাতিশা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মেট্রিকুলেশান পাস করেন। ১৯৬৫ সালে চাঁদপুর কলেজ হতে 'আইএ' এবং ১৯৬৯ সালে একই কলেজ থেকে 'স্নাতক' ও ১৯৭২ সালে চট্টগ্রাম 'ল' কলেজ থেকে 'এলএলবি' পাস করেন। তিনি ব্যক্তিজীবনে দু'টি বিবাহ করেন। প্রথম স্ত্রী মারা যান এবং দাম্পত্য জীবনে তার ৩ কন্যা সন্তান রয়েছে। বুধবার ভোরে তাকে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪০৬৪৬৩
পুরোন সংখ্যা