চাঁদপুর, সোমবার ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • অনিবার্য কারণে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির আজকের চাঁদপুর সফর স্থগিত করা হয়েছে
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫১-সূরা সূরা তূর

৪৯ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।



১৫। ইহা কি জাদু ? না কি তোমরা দেখিতে পাইতেছ না ?

১৬। তোমরা ইহাতে প্রবেশ কর, অতঃপর তোমরা ধৈর্য ধারণ কর অথবা ধৈর্য ধারণ না কর, উভয়ই তোমাদের জন্য সমান। তোমরা যাহা করিতে তাহারই প্রতিফল তোমাদিগকে দেওয়া হইতেছে।







 


চোখের জল যাকে ফেলতে হয়নি, চোখের জলের মর্যাদা তার কাছে নেই।                  


-জেফারসন।


কৃপণ ব্যক্তি খোদা হতে দূরে লোকসমাজে ঘৃণিত, দোজখের নিকটবর্তী।

 


ফটো গ্যালারি
অসহনীয় লোডশেডিংয়ে অতিষ্ঠ ফরিদগঞ্জের জনগণ
বিদ্যুতের নতুন সঞ্চালন লাইন নির্মাণ না হওয়ায় লোডশেডিং থেকে মুক্তি পাচ্ছে না লক্ষাধিক গ্রাহক
ফরিদগঞ্জ ব্যুরো
২৪ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আকাশে মেঘ, বৃষ্টি, রোদের খরতাপ হলেই বিদ্যুতের আসা যাওয়া শুরু হয়-এমন অভিযোগ ফরিদগঞ্জের হাজার হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহকের। সরকারের বিদ্যুৎ উৎপাদন রেকর্ড পর্যায়ে পেঁৗছলেও এর পুরোপুরি সুফল পাচ্ছে না উপজেলাবাসী। তীব্র দাবদাহে বিদ্যুতের লোডশেডিং গ্রাহকদের অসহনীয় অবস্থায় ফেলছে। সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা আর বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের ধারণ ক্ষমতার অভাবে প্রতিদিন গড়ে ৬-৮ ঘন্টা বিদ্যুৎবিহীন থাকতে হচ্ছে উপজেলার প্রত্যন্ত জনপদের মানুষকে। আগের মতো ভয়াবহ লোডশেডিং না হলেও গ্রাহকদের মতে, বিদ্যুতের আসা যাওয়ার খেলা বন্ধ হচ্ছে না। একেক স্থানে একেক রকম অবস্থা। দিনে রাতে কতবার বিদ্যুৎ আসে আর যায় তার হিসাব রাখা কঠিন।



জানা গেছে, গত দুই বছর পূর্বে পুরাতন ৩৩ কেভি সঞ্চালন লাইনের পাশাপাশি নতুন সঞ্চালন লাইন নির্মাণের কাজ শুরু হলেও অদ্যাবধি তা সম্পন্ন হয়নি। জানা গেছে, চাঁদপুর সেতুর উপর দিয়ে প্রথমে ওভার হেড লাইন নির্মাণ করার চেষ্টা করলে স্থানীয় জনগণ বাধা প্রদান করে। পরবর্তীতে রিভার ক্রসিংয়ে সাব মেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে সঞ্চালন লাইন নির্মাণের চেষ্টা করলে এবার বাধা দেয় পিডিবি। ফলে সঞ্চালন লাইনটির নির্মাণ কাজ কবে নাগাদ শেষ হবে, তা কেউ বলতে পারছে না। এজন্যে জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন সর্বসাধারণ।



চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২-এর তথ্য মতে, ফরিদগঞ্জ ও হাইমচর উপজেলায় ১ লাখ ৪৩ হাজার গ্রাহক রয়েছে। দুটি সাব স্টেশন থেকে মোট ১১টি ফিডারের মাধ্যমে এসব গ্রাহককে বিদ্যুৎ সরবরাহ করছে কর্তৃপক্ষ। বর্তমান সরকারের শতভাগ বিদ্যুতায়নের লক্ষ্যে প্রতি মাসেই গ্রাহকের সংখ্যা দুই থেকে তিন হাজার করে বাড়ছে। ফলে বিদ্যুতের চাহিদা ক্রমেই বাড়ছে।



পিক আওয়ারে বিদ্যুতের সর্বশেষ চাহিদা অনুয়ায়ী ২৮ মেঘাওয়াট থাকলেও সঞ্চালন লাইনের ত্রুটির কারণে ব্যাপক লোডশেডিংয়ের শিকার হচ্ছে গ্রাহকরা। জানা গেছে, চাঁদপুর গ্রীড থেকে ফরিদগঞ্জ সাবস্টেশন পর্যন্ত ৩৩ কেভি সঞ্চালন লাইনটি প্রায় তিন দশকের পুরানো। এই লাইন দিয়ে সর্বোচ্চ ১২/১৪ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব। চাহিদা অনুযায়ী লোড বাড়লেই প্রায়শই সঞ্চালন লাইনের পুড়ে বা ছিঁড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। ফলে বাধ্য হয়েই চাহিদা মেটাতে পার্শ্ববর্তী রায়পুর উপজেলা থেকে ৬ মেঘাওয়াট নিতে হচ্ছে। এছাড়া কামতা সাবস্টেশন রামগঞ্জ গ্রীড থেকে ৮ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ পাচ্ছে।



উপজেলা সদর ব্যতিরেকে ফরিদগঞ্জে ছোট-বড় অর্ধশত বাজার রয়েছে। লোডশেডিংয়ে এসব বাজারের ব্যবসায়ীরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। এদিকে তীব্র দাবদাহের সাথে লোডশেডিংয়ের কারণে পোল্ট্রি ব্যবসায়ীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তারা জানান, ফার্মগুলোতে তীব্র গরমে মুরগিগুলো মরার উপক্রম হয়েছে। একই অবস্থা সেলস্ সেন্টারগুলোতে।



পবিসের এলাকা পরিচালক-২-এর সভাপতি আলিম আজম রেজা জানান, ২০ কিলোমিটার ৩৩ কেভি লাইন নির্মাণ সম্পন্ন হলে লোডশেডিং বন্ধ হবে। ডাকাতিয়া রিভার ক্রসিংয়ে সাব মেরিন ক্যাবল বসানোর কাজের ঠিকাদার কাজ করতে এসে পিডিবির বাধার সম্মুখীন হওয়ায় লাইন চালু করা যাচ্ছে না।



উপজেলার কামতা সাব স্টেশনের এজিএম মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, কামতা সাবস্টেশনের আওতায় ৪০ হাজার গ্রাহক রয়েছে। রামগঞ্জ গ্রীড হতে চাহিদা অনুযায়ী ৮ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ হয়।



চাঁদপুর পল্ল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২-এর আওতাধীন ফরিদগঞ্জ জোনাল অফিসের ডিজিএম মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, এ এলাকায় ২৮ মেঘাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা থাকলেও লাইন ক্যাপাসিটির অভাবে প্রতিদিন ৮ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ ঘাটতিতে থাকতে হচ্ছে। চাঁদপুর গ্রীড থেকে ১৮ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহের ৪ মেঘাওয়াট চাঁদপুর সদরের বালিয়ায় এবং বাকি ১৪ মেঘাওয়াট ফরিদগঞ্জে সরবরাহ করা হয়। এছাড়া রায়পুর হতে পূর্বে সাড়ে ৯ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হলেও বর্তমানে ৬ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৪৫৪০৭
পুরোন সংখ্যা