চাঁদপুর, সোমবার ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • মতলবের জিয়াউর রহমান সাউথ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫১-সূরা সূরা তূর

৪৯ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।



১৫। ইহা কি জাদু ? না কি তোমরা দেখিতে পাইতেছ না ?

১৬। তোমরা ইহাতে প্রবেশ কর, অতঃপর তোমরা ধৈর্য ধারণ কর অথবা ধৈর্য ধারণ না কর, উভয়ই তোমাদের জন্য সমান। তোমরা যাহা করিতে তাহারই প্রতিফল তোমাদিগকে দেওয়া হইতেছে।







 


চোখের জল যাকে ফেলতে হয়নি, চোখের জলের মর্যাদা তার কাছে নেই।                  


-জেফারসন।


কৃপণ ব্যক্তি খোদা হতে দূরে লোকসমাজে ঘৃণিত, দোজখের নিকটবর্তী।

 


ফটো গ্যালারি
আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরে র‌্যালি ও আলোচনা সভা
যিনি সেবা নিবেন, তার প্রতি সর্বোচ্চ ভালোবাসা দিতে হবে
জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
২৪ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ২৩ জুন রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় চাঁদপুর সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণ থেকে দিবসের র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালির নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। র‌্যালিটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে এসে সমাপ্ত হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দিবসটি উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় এবারের প্রতিপাদ্য ছিল 'সেবা প্রদান, উদ্ভাবনী পরিবর্তন ও জবাবদিহিতামূলক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টসমূহ অর্জন করা'।



আলোচনা সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ শওকত ওসমানের সভাপতিত্বে ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমার সঞ্চালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আজ আন্তর্জাতিক পাবলিক সার্ভিস দিবস। এ বছর এ দিবসের প্রতিপাদ্য হলো সেবা প্রদান, উদ্ভাবনী পরিবর্তন ও জবাবদিহিতামূলক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টসমূহ অর্জন করা। আমরা যে কেউ পাবলিক সার্ভিস দিতে পারি। ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরা পর্যন্ত। যিনি সেবা নিবেন, তার প্রতি সর্বোচ্চ ভালোবাসা দিতে হবে। পাবলিক সার্ভিস দিবসে আমরা আজকে চাঁদপুরে অসহায় ১৯ জনকে ৫০ হাজার টাকা করে চেক প্রদান করছি। আর এই চেকের অর্থ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন। এই সরকার মানুষকে ব্যাপক হারে দিচ্ছে। তিনিও পাবলিক সার্ভিস করে যাচ্ছেন। তেমনি আমরা যারা সরকারের কর্মচারী আমাদেরকেও পাবলিক সার্ভিস দিতে হবে। তিনি আরও বলেন, যখন আমি যশোরে চাকুরি করেছি তখন আমি অনেক অসহায়দের বাড়িতে গিয়েও সরকারের এ ধরনের চেক দিয়েছি। এটাই হলো পাবলিক সার্ভিস।



অন্যান্য বক্তারা বলেন, এ দিবসটি আমাদের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ দিবস। জনসেবকদের হাত ধরেই জবাবদিহিতামূলক কাজের বাস্তবায়ন হবে। আমরা যারা সরকারের কর্মচারী হিসেবে কাজ করি তাদের জন্যে আজকের দিনটি গুরুত্বপূর্ণ। আজকের বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। পাবলিক সার্ভিস দিবসের দিকে দৃষ্টি দিয়েই আমাদেরকে কাজ করতে হবে। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান, জেলা পরিষদ সচিব মিজানুর রহমান, চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. এএসএম দেলওয়ার হোসেন, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শহীদ পাটওয়ারী প্রমুখ।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১১৫১১৮৮
পুরোন সংখ্যা