চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫১-সূরা সূরা তূর

৪৯ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৭। মুত্তাকীরা তো থাকিবে জান্নাতে ও আরাম-আয়েশে,

১৮। তাহাদের প্রতিপালক তাহাদিগকে যাহা দিবেন তাহারা তাহা উপভোগ করিবে এবং তাহাদের রব তাহাদিগকে রক্ষা করিবেন জাহান্নামের ‘আযাব হইতে’।


নতুন দিনই নতুন চাহিদা এবং নতুন দৃষ্টিভঙ্গীর উদয় করে। -জন লিডগেট।


ক্ষমতায় মদমত্ত জালেমের জুলুমবাজির প্রতিবাদে সত্য কথা বলা ও মতের প্রচারই সর্বোৎকৃষ্ট জেহাদ।


ফটো গ্যালারি
ভবন নির্মাণের স্বল্প সময়ের মধ্যেই দেখা দিয়েছে ফাটল
কচুয়ায় জরাজীর্ণ ভবনে চলছে ফায়ার সার্ভিস কার্যক্রম
মোহাম্মদ মহিউদ্দিন
২৫ জুন, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন ভবনে জরাজীর্ণ অবস্থা বিরাজ করছে। ভবনটির স্থানে স্থানে দেখা দিয়েছে ফাটল, খসে পড়ছে পলেস্তারা, বেঁকে গেছে জানালার গ্রীল, বিনষ্ট হয়ে গেছে দরজার চৌকাঠ। ফাটল দেখা দিয়েছে ব্যারাক, গ্যারেজ বিল্ডিং, অফিস কক্ষের পিলার ও দেয়ালে। এছাড়াও ভবনের ছাদ, কার্নিশসহ বিভিন্ন অংশে বিপজ্জনক ফাটল দেখা দিয়েছে। বাথরুমের দরজা ভাঙ্গা, কমোড ব্যবহার অনুপযোগী এবং ফ্লাশগুলোও নষ্ট হয়ে আছে দীর্ঘদিন ধরে। রান্নাঘরের অবস্থাও ঠিক একই রকম। বাসভবন, জ্বালানি স্টোর, পাম্প হাউস ও ইলেকট্রনিঙ্ ভবনও সংস্কার করা হয়নি। সম্ভাব্য দুর্ঘটনার ঝ্ুঁকি নিয়ে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দাপ্তরিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ২০০৬ সালের ৯ অক্টোবর এ স্টেশনটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। স্থানীয়দের অভিযোগ, ঠিকাদার কর্তৃক নিম্নমানের কাজ হওয়ায় ভবন নির্মাণের ১৪-১৫ বছর অতিবাহিত হতে না হতেই দেখা দিয়েছে ফাটল।



কচুয়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনে কর্মরত অফিসার মোঃ ইয়াছিন প্রধান জানান, ভবনের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে কর্মকর্তাদের থাকার জায়গা ও স্টাফদের ব্যারাক। সার্বক্ষণিক ভয় ও আতঙ্কে বসবাস করছেন ২৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী। ভবনের ফাটলসহ জরাজীর্ণ অবস্থা সম্পর্কে ২০১৫ সাল থেকে প্রতি বছরই সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হচ্ছে। ২০১৭ সালে গণপূর্ত বিভাগ, চাঁদপুর-এর তৎকালীন নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার সরেজমিনে এসে জরাজীর্ণ ভবন পরিদর্শন করেন। তিনি এ ভবন জরুরি ভিত্তিতে সংস্কার করার ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দিলেও অদ্যাবধি কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৭৫৯২০
পুরোন সংখ্যা