চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৫ আগস্ট ২০১৯, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ জিলহজ ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


০৮। তুমি কি তাহাদিগকে লক্ষ্য করো না, যাহাদিগকে গোপন পরামর্শ করিতে নিষেধ করা হইয়াছিলো? অতঃপর উহারা যাহা নিষিদ্ধ তাহারই পুনরাবৃত্তি করে এবং পাপাচরণ, সীমালঙ্ঘন ও রাসূলের বিরুদ্ধাচরণের জন্য কানাকানি করে। উহারা যখন তোমার নিকট আসে তখন উহারা তোমাকে এমন কথা দ্বারা অভিবাদন করে ...যদ্ধারা আল্লাহ্ তোমাকে অভিবাদন করেন নাই। উহারা মনে মনে বলে, 'আমরা যাহা বলি তাহার জন্য আল্লাহ্ আমাদিগকে শাস্তি দেন না কেন?' জাহান্নামই উহাদের জন্য যথেষ্ট, যেথায় উহারা প্রবেশ করিবে, কত নিকৃষ্ট সেই আবাস!


 


 


 


assets/data_files/web

নিজে ঠিক থাকলেই হল, লোকে কী বলে না বলে তা নিয়ে মাথা ঘামানো উচিত নয়। -রুজভেল্ট।


 


 


 


যে ব্যক্তি সওয়াবের (পুণ্যের) নিয়তে পরিবারের জন্য খরচ করে আল্লাহ তাহাকে সদকার সওয়াব দান করিবেন।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
শিক্ষামন্ত্রীর শ্রদ্ধাঞ্জলি
১৫ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট, জাতীয় শোক দিবস ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী। ১৯৭৫ সালের এইদিনে সপরিবারে মানব ইতিহাসের বর্বরতম হত্যাকা-ের শিকার হন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ঘৃণ্য ঘাতকরা সেদিন বুলেটের আঘাতে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিবসহ পরিবারের ১৮ জন সদস্যকে হত্যা করে। আজ জাতীয় শোক দিবসে আমি মহান আল্লাহ্তায়ালার দরবারে জাতির পিতাসহ সেদিনের সকল শহীদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তাঁদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।



ঘাতকচক্র বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলেও তাঁর স্বপ্ন ও আদর্শের মৃত্যু ঘটাতে পারেনি। তাঁর আদর্শে বলীয়ান হয়ে বাঙালি জাতি আবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্যা কন্যা জননেত্রী দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে। বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা 'ভিশন ২০২১' এবং 'ভিশন ২০৪১' ঘোষণা করেছেন। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশ পরিণত হবে মধ্যম আয়ের দেশে। এজন্যে প্রয়োজন সকলের সমন্বিত প্রয়াসের পাশাপাশি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত প্রগতিশীল সমাজ প্রতিষ্ঠা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিকাশ ও স্বাধীনতার পক্ষের সকল শক্তির দৃঢ় ঐক্য।



তাই আসুন, জাতীয় শোক দিবসে আমরা জাতির পিতাকে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করি এবং তাঁর ত্যাগ-তিতিক্ষার সংগ্রামী জীবনাদর্শ ধারণ করে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত, শান্তিপূর্ণ, সমৃদ্ধ, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে আত্মনিয়োগ করি।



জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু। বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।



 



ডাঃ দীপু মনি



জাতীয় সংসদ সদস্য, চাঁদপুর-৩



ও শিক্ষামন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২৫৪৬১
পুরোন সংখ্যা