চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • অনিবার্য কারণে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির আজকের চাঁদপুর সফর স্থগিত করা হয়েছে
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


০৫। আকাশম-লী ও পৃথিবীর সর্বময় কর্তৃত্ব তাঁহারই এবং আল্লাহরই দিকে সমস্ত বিষয় প্রত্যাবর্তিত হইবে।


০৬। তিনিই রাত্রিকে প্রবেশ করান দিবসে এবং দিবসকে প্রবেশ করান রাত্রিতে এবং তিনি অন্তর্যামী।


 


 


 


assets/data_files/web

মর্যাদা রক্ষার ব্যাপারে আমি নিজের অভিভাবক। -নিকেলাস রান্ড।


 


 


যদি মানুষের ধৈর্য থাকে তবে সে অবশ্য সৌভাগ্যশালী হয়।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
হঠাৎ করে কেঁপে উঠলো ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিস!
রাসেল হাসান
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


না, কোনো ভূমিকম্প নয়। তবুও হঠাৎ যেন কেঁপে উঠলো ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিস! গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১২টায় আকস্মিক ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিস পরিদর্শনে আসেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী। পূর্বে কোনো প্রকার অবগতি ছাড়া হঠাৎ ভূমি অফিসে আকস্মিক পরিদর্শনে লেজে-গোবরে অবস্থা হয়ে পড়ে ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দের।



তাৎক্ষণিক ভূমি সচিব কথা বলেন ভূমি অফিসে সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষের সাথে। কেউ অতীতে কখনও কোনো কর্মকর্তাকে ঘুষ দিয়েছেন কি না সে সম্পর্কেও জিজ্ঞাসাবাদ করেন তিনি।



এ সময়ের সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং বর্তমান উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা মমতা আফরিন প্রশাসনিক কাজে চাঁদপুর থাকায় অফিসে অনুপস্থিত ছিলেন। ভূমি সচিব ডেকে পাঠালেন তাকেও। তড়িৎ গতিতে আধাঘণ্টার মধ্যেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলেন এসিল্যান্ড। ততক্ষণে ভূমি অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের লাইনে দাঁড় করিয়ে ভর্ৎসনা করলেন তিনি।



এ সময় কানুগো অফিসারকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, বলুনতো মিউটিশন সংক্রান্ত একটি ফাইল কত দিনে নিষ্পত্তি করতে হয়? কানুগো অফিসার জবাব দিলেন ২৫ দিনে নিষ্পত্তি করতে হয়। একই প্রশ্ন করলেন অফিসের একজন পিয়নকে। পিয়ন সঠিক জবাব দিয়ে বললেন, ২৮ দিনে নিষ্পত্তি করতে হয়। সাথে সাথে ভূমি সচিব পিয়নকে বাহবা দিয়ে সামনে টেনে আনলেন আর ভর্ৎসনা করে কানুগো অফিসারকে পিয়নের স্থানে গিয়ে দাঁড়াতে বললেন। এখানেই শেষ নয়, অফিস থেকে কেইস ফাইল এনে নথিপত্রে উল্লেখিত বাদী-বিবাদীর মোবাইল নম্বর নিজ মুঠোফোনে তুলে কথা বলে ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিসের সেবার মান নিয়ে। জানতে চাইলেন সেবাগ্রহিতাদের সন্তুষ্টি বা ক্ষোভের কথা।



সবশেষ উপস্থিত সাধারণ মানুষকে নিজের পরিচয় দিলেন ভূমি সচিব। সেই সাথে ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিস কর্তৃক সাধারণ মানুষের হয়রানির বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করলেন তিনি। তিনি উপস্থিত সকলকে নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে বলেন, যখনই কোনো হয়রানির স্বীকার হবেন বা কেউ কোনো ঘুষ চাইবে সাথে সাথে আমাকে কল করে জানাবেন এবং কোনো কর্মকর্তাকে একটি টাকাও না দেয়ার নির্দেশ দেন। সবশেষ ভূমি সচিব মাকসুদুর রহমান পাটওয়ারী ভূমি অফিসে সেবা নিতে আসা মানুষদের সাথে ছবি তুলে অনতিবিলম্বে তিনি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন বলেও উপস্থিত সবাইকে আশ্বস্ত করেন।



এভাবেই হঠাৎ করে গতকাল কেঁপে উঠলো ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিস। কেঁপে উঠলো কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ। দীর্ঘদিন ধরে ফরিদগঞ্জ ভূমি অফিসে অনিয়ম করা কর্মকর্তাদের অনেকেরই মুখোশ উন্মোচন হয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিবের আগমনে।



 



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৮৯৬৯৭
পুরোন সংখ্যা