চাঁদপুর, বুধবার ৯ অক্টোবর ২০১৯, ২৪ আশ্বিন ১৪২৬, ৯ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


 


০৩। তিনিই আদি, তিনিই অন্ত; তিনিই ব্যক্ত ও তিনিই গুপ্ত এবং তিনি সর্ববিষয়ে সম্যক অবহিত।


৪। তিনিই ছয় দিবসে আকাশম-লী ও পৃথিবী সৃষ্টি করিয়াছেন; অতঃপর 'আরশে সমাসীন হইয়াছেন। তিনি জানেন যাহা কিছু ভূমিতে প্রবেশ করে ও যাহা কিছু উহা হইতে বাহির হয় এবং আকাশ হইতে যাহা কিছু নামে ও আকাশে যাহা কিছু উত্থিত হয়। তোমরা যেখানেই থাক না কেনো_তিনি তোমাদের সঙ্গে আছেন, তোমরা যাহা কিছু করো আল্লাহ তাহা দেখেন।


 


assets/data_files/web

সংশয় যেখানে থাকে সফলতা সেখানে ধীর পদক্ষেপে আসে।


-জন রে।


 


 


যে ব্যক্তি উদর পূর্তি করিয়া আহার করে, বেহেশতের দিকে তাহার জন্য পথ উন্মুক্ত হয় না।


 


যে শিক্ষা গ্রহণ করে তার মৃত্যু নেই।


 


ফটো গ্যালারি
ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবর শাহরাস্তির অসহায় পরিবারের স্মারকলিপি
মুহাম্মদ আবদুর রহমান গাজী
০৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শাহরাস্তি উপজেলার রাড়া গ্রামের ভূমিদস্যু দুলাল হোসেন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে অসহায় একটি পরিবার জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে।



গত রোববার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শওকত ওসমানের কাছে অসহায় বিল্লাল হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন এ স্মারকলিপি প্রদান করেন।



অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শওকত ওসমান তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তারকে বিষয়টি তদারকি করে দ্রুত সমাধানের নির্দেশ দেন।



স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, আমি (বিল্লাল হোসেন) দীর্ঘ ১৫ থেকে ১৬ বছর সৌদি আরবে অবস্থান করে টাকা-পয়সা উপার্জন করে আমার বাবার কাছে পাঠাই। বাবা উক্ত টাকা দিয়ে সম্পত্তি ক্রয় করে বসবাস করেন। দুলাল হোসেন আমার বাবার দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে। সে সুকৌশলে আমার বাবার কাছ থেকে অলিখিত কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে নেয়। ওই অলিখিত কাগজে ১.১৭ একর জমি তার মত করে লিখে জাল দলিল তৈরি করে। পরবর্তীতে আমাদের বিরুদ্ধে সাজানো মামলা দিয়ে হয়রানি করতে থাকে। আমি বিভিন্ন সময় এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিষয়টি অবগত করলে কয়েকবার সমাধানের জন্যে বসা হয়। গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উক্ত বিষয় বিবেচনা করে কোনো সিদ্ধান্ত দিয়ে গেলে তাদেরকেও আসামী করে মামলা দিয়ে হয়রানি করে। দুলাল হোসেন আমার পরিবারের উপর একাধিকবার হামলা করে আমাকে বসত ভিটা থেকে বের করে দিয়েছে। আমি ও আমার পরিবার ভয়ে কোনো প্রতিবাদ করতে পারিনি। উক্ত বিষয়গুলো সঠিকভাবে খতিয়ে দেখে সুষ্ঠু সমাধান কামনা করছি।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২৯৩৭৮৪
পুরোন সংখ্যা