চাঁদপুর, শুক্রবার ১১ অক্টোবর ২০১৯, ২৬ আশ্বিন ১৪২৬, ১১ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮০। ইহা জগৎসমূহের প্রতিপালকের নিকট হইতে অবতীর্ণ।


৮১। তবুও কি তোমরা এই বাণীকে তুচ্ছ গণ্য করিবে?


৮২। এবং তোমরা মিথ্যারোপকেই তোমাদের উপজীব্য করিয়া লইয়াছো!


 


 


 


 


 


assets/data_files/web

হিংসা একটা দরজা বন্ধ করে অন্য দুটো খোলে।


-স্যামুয়েল পালমার।


 


 


নামাজ বেহেশতের চাবি এবং অজু নামাজের চাবি।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
যে কোনোভাবে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসব নির্যাতন বন্ধ করা হবে
----------শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
১১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে। বুয়েটের একজন শিক্ষার্থীকে প্রাণ হারাতে হয়েছে। এ কারণে বুয়েটের মতো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আজ অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে। যে কোনোভাবে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসব র‌্যাগিং বা নির্যাতন বন্ধ করা হবে।



গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউবিটি) ৪র্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী এমন ঘোষণা দেন।



দীপু মনি বলেন, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে। এর পেছনে কোথায় আমাদের সমস্যা থেকে যাচ্ছে তা বের করতে হবে। নিজের মত প্রকাশ করায় দেশের শীর্য পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বুয়েটে আবরার নামে একজন শিক্ষার্থী প্রাণ হারিয়েছে। এ ঘটনায় আমি শোকাহত, মর্মাহত, ব্যথিত। আবরারের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান মন্ত্রী।



আমরা যে মূল্যবোধ বিশ্বাস করি তার সঙ্গে এমন ঘটনা মেনে নেয়া যায় না উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাগিং বা বুলিংয়ের নামে শিক্ষার্থীদের ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয়। এটি একটি বড় সমস্যা, যেকোনোভাবে এটি বন্ধ করা হবে।



তিনি বলেন, র‌্যাগিং বন্ধে সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়, দলমত নির্বিশেষে এ নির্যাতন বন্ধে একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। পরিবার থেকেও এ বিষয়ে শিক্ষা দেয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী।



শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে সমাবর্তন বক্তা অস্ট্রেলিয়ার সেন্ট্রাল কুইন্সল্যান্ড ইউনিভার্সিটির সিনিয়র ডেপুটি ভাইস চ্যান্সেলর এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট ল্যালাসটেইর ডসন বলেন, গ্র্যাজুয়েশন করতে আপনাদের জীবনের নানা ধরনের প্রতিকূল সময় পার করতে হয়েছে। গ্র্যাজুয়েশন করে আপনারা পড়ালেখা শেষ করবেন না। মনে রাখবেন আপনাদের জীবনে পড়ালেখার নতুন অধ্যায় শুরু হলো। ভবিষ্যতে সহপাঠী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে নতুনভাবে সম্পর্ক স্থাপন করারও আহ্বান জানান তিনি।



সমাবর্তন অনুষ্ঠানে মোট ৩ হাজার ১৯২ জনকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রদান করা হয়। কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের জন্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ জন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়েছে।



সমাবর্তনে আরও বক্তব্য রাখেন বিইউবিটির উপাচার্য অধ্যাপক আবু সালেহ ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সফিক আহমেদ সিদ্দিক। অনুষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৪৫৪১৮
পুরোন সংখ্যা